ঢাকা ০৮:০৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

অনুষ্ঠিত হলো সপ্তম লিডারশিপ সামিট

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের উদ্যোগে ১১ নভেম্বর ঢাকার রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে অনুষ্ঠিত হয়েছে লিডারশিপ সামিটের  সপ্তম অধিবেশন। আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের প্রযোজনায়, সামিট কমিউনিকেশনস লিমিটেড এবং শেলটেকের সঞ্চালনায়, বিএসআরএম, টিম গ্রুপ এবং দ্য ডেইলি স্টারের সহযোগিতায় এবং এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই), স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক এবং ন্যামকন কনসালটান্সি লিমিটেডের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত এ বছরের অধিবেশনটির প্রতিপাদ্য ছিল, ‘নেভিগেটিং দ্য নেক্সট ফ্রন্টিয়ার : ট্রান্সফরমিং অর্গানাইজেশনস ফর দ্য ফিউচার’ বা ভবিষ্যতের জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে তৈরি করে তোলা। দিনব্যাপী অধিবেশনটিতে দেশ এবং বিদেশের স্বনামধন্য ব্যবসায়ী ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষাবিদ, গবেষকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। ৩টি কিনোট সেশন, ৫টি প্যানেল ডিসকাশন এবং ১টি ইনসাইট সেশনে সাজানো এবারের লিডারশিপ সামিটে আলোচিত হয় বর্তমান সময়ে উদ্ভূত নেতৃত্বের জটিলতা, প্রতিকূলতা এবং সমাধানসহ, টেকসই প্রবৃদ্ধি, কর্পোরেট গভর্নেন্স এবং প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কৃতির নানাবিধ আলোচনা।


সামিটের স্বাগত বকতৃতায় বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরিফুল ইসলাম বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলোর লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য নির্ধারণ করে থাকেন আমাদের লিডার বা শীর্ষ কর্মকর্তারা। তাই আসন্ন ভবিষ্যতকে সামনে রেখে কিভাবে আমরা আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলোকে কার্যকরভাবে সাজাতে পারি সেই বিষয়ে ভাবতে হবে। আজকের প্রতিটি আলোচনা আমাদের এ সম্পর্কিত একটি নীতিমালা প্রণয়নে সম্যক ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

ট্যাগস :

অনুষ্ঠিত হলো সপ্তম লিডারশিপ সামিট

আপডেট সময় : ০৬:১৯:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ নভেম্বর ২০২৩

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের উদ্যোগে ১১ নভেম্বর ঢাকার রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনে অনুষ্ঠিত হয়েছে লিডারশিপ সামিটের  সপ্তম অধিবেশন। আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের প্রযোজনায়, সামিট কমিউনিকেশনস লিমিটেড এবং শেলটেকের সঞ্চালনায়, বিএসআরএম, টিম গ্রুপ এবং দ্য ডেইলি স্টারের সহযোগিতায় এবং এসপায়ার টু ইনোভেট (এটুআই), স্মার্ট বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক এবং ন্যামকন কনসালটান্সি লিমিটেডের সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত এ বছরের অধিবেশনটির প্রতিপাদ্য ছিল, ‘নেভিগেটিং দ্য নেক্সট ফ্রন্টিয়ার : ট্রান্সফরমিং অর্গানাইজেশনস ফর দ্য ফিউচার’ বা ভবিষ্যতের জন্য বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে তৈরি করে তোলা। দিনব্যাপী অধিবেশনটিতে দেশ এবং বিদেশের স্বনামধন্য ব্যবসায়ী ব্যক্তিবর্গ, শিক্ষাবিদ, গবেষকসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। ৩টি কিনোট সেশন, ৫টি প্যানেল ডিসকাশন এবং ১টি ইনসাইট সেশনে সাজানো এবারের লিডারশিপ সামিটে আলোচিত হয় বর্তমান সময়ে উদ্ভূত নেতৃত্বের জটিলতা, প্রতিকূলতা এবং সমাধানসহ, টেকসই প্রবৃদ্ধি, কর্পোরেট গভর্নেন্স এবং প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কৃতির নানাবিধ আলোচনা।


সামিটের স্বাগত বকতৃতায় বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক শরিফুল ইসলাম বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলোর লক্ষ্য এবং উদ্দেশ্য নির্ধারণ করে থাকেন আমাদের লিডার বা শীর্ষ কর্মকর্তারা। তাই আসন্ন ভবিষ্যতকে সামনে রেখে কিভাবে আমরা আমাদের প্রতিষ্ঠানগুলোকে কার্যকরভাবে সাজাতে পারি সেই বিষয়ে ভাবতে হবে। আজকের প্রতিটি আলোচনা আমাদের এ সম্পর্কিত একটি নীতিমালা প্রণয়নে সম্যক ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।