ঢাকা ০৮:৩৭ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামে একঘন্টার প্রতীকি সিভিল সার্জন মার্জিয়া মেধা

কুড়িগ্রামে গার্লস টেকওভার অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এক ঘন্টার সিভিল সার্জনের দায়িত্ব পালন করলেন জেলা এনসিটিএফ’র সভাপতি ও কুড়িগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী মার্জিয়া মেধা। ব্যতিক্রমধর্মী এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ইয়ুথ ফর চেঞ্জ ও ইয়েস বাংলাদেশ। মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে মার্জিয়া মেধার কাছে প্রতীকি দায়িত্ব হস্তান্তর করেন সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ-মুর্শেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. লুৎফর রহমান, মেডিকেল অফিসার ডা. আনম গোলাম মোহাইমেন, শিশু সংগঠক ও সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির সূর্য, কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মাহফুজার রহমান খন্দকার, ইয়েস বাংলাদেশ’র জেলা সভাপতি কেএম রেজওয়ানুল হক নুরনবী, কার্যকরী সদস্য সংগ্রামী প্রীতি বাঁধন। অনুষ্ঠানে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন জেলা জাতীয় শিশু টাস্কফোর্সের চাইল্ড পার্লামেন্ট সদস্য কেএম নাজমুস সাকিব শাহী।
নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন দায়িত্ব বুঝে নেয়ার পর তিনি স্বাস্থ্যবিভাগের সকল কর্মকর্তাদের সাথে পরিচিত হন। পরে প্রাক্তন সিভিল সার্জনসহ স্বাস্থ্যবিভাগের চিকিৎসকদের সাথে নিয়ে আড়াইশ শয্যা বিশিষ্ট কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগ, শিশুবিভাগসহ বিভিন্ন
ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের খোঁজখবর নেন।
পরে সিভিল সার্জন কার্যালয় হলরুমে অনুষ্ঠিত টেকওভার অনুষ্ঠানে নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন মার্জিয়া মেধা উপস্থিত সকলের সামনে জেলার
স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ৭দফা সুপারিশমালা উপস্থাপন করেন। সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ-মুর্শেদ সুপারিশমালাগুলো বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিবেন বলে জানান।
উল্লেখ্য, ব্যতিক্রমধর্মী ‘গার্লস টেকওভার’ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে একজন কিশোরী, কন্যাশিশু অথবা যুব নারীকে নেতৃত্ব প্রদানকারী ভূমিকা পালন করতে
সহায়তা করা হয়। এতে তার আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পায় এবং নিজের স্বপ্ন পূরণে অঙ্গীকারাবদ্ধ হয়। সমাজে কন্যা শিশুরা সমান সুযোগ এবং সমান অধিকার পেলে বদলে দিতে পারে জীবন, তাদের আশেপাশের সমাজ এবং সমাজের মানুষদের- এমন বিশ্বাস থেকেই গার্লস টেকওভার কর্মসূচি চালু করা হয়। আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস ২০২৩ উপলক্ষে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ যৌথভাবে অনুষ্ঠানের সহযোগিতা করে।

ট্যাগস :

কুড়িগ্রামে একঘন্টার প্রতীকি সিভিল সার্জন মার্জিয়া মেধা

আপডেট সময় : ০৩:৩৯:৪২ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০২৩

কুড়িগ্রামে গার্লস টেকওভার অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এক ঘন্টার সিভিল সার্জনের দায়িত্ব পালন করলেন জেলা এনসিটিএফ’র সভাপতি ও কুড়িগ্রাম সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী মার্জিয়া মেধা। ব্যতিক্রমধর্মী এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা ইয়ুথ ফর চেঞ্জ ও ইয়েস বাংলাদেশ। মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে মার্জিয়া মেধার কাছে প্রতীকি দায়িত্ব হস্তান্তর করেন সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ-মুর্শেদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মো. লুৎফর রহমান, মেডিকেল অফিসার ডা. আনম গোলাম মোহাইমেন, শিশু সংগঠক ও সিনিয়র সাংবাদিক হুমায়ুন কবির সূর্য, কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের যুগ্ম সম্পাদক মাহফুজার রহমান খন্দকার, ইয়েস বাংলাদেশ’র জেলা সভাপতি কেএম রেজওয়ানুল হক নুরনবী, কার্যকরী সদস্য সংগ্রামী প্রীতি বাঁধন। অনুষ্ঠানে সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন জেলা জাতীয় শিশু টাস্কফোর্সের চাইল্ড পার্লামেন্ট সদস্য কেএম নাজমুস সাকিব শাহী।
নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন দায়িত্ব বুঝে নেয়ার পর তিনি স্বাস্থ্যবিভাগের সকল কর্মকর্তাদের সাথে পরিচিত হন। পরে প্রাক্তন সিভিল সার্জনসহ স্বাস্থ্যবিভাগের চিকিৎসকদের সাথে নিয়ে আড়াইশ শয্যা বিশিষ্ট কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালের জরুরী বিভাগ, শিশুবিভাগসহ বিভিন্ন
ওয়ার্ডে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের খোঁজখবর নেন।
পরে সিভিল সার্জন কার্যালয় হলরুমে অনুষ্ঠিত টেকওভার অনুষ্ঠানে নতুন দায়িত্বপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন মার্জিয়া মেধা উপস্থিত সকলের সামনে জেলার
স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ৭দফা সুপারিশমালা উপস্থাপন করেন। সিভিল সার্জন ডা. মঞ্জুর-এ-মুর্শেদ সুপারিশমালাগুলো বাস্তবায়নে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিবেন বলে জানান।
উল্লেখ্য, ব্যতিক্রমধর্মী ‘গার্লস টেকওভার’ অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে একজন কিশোরী, কন্যাশিশু অথবা যুব নারীকে নেতৃত্ব প্রদানকারী ভূমিকা পালন করতে
সহায়তা করা হয়। এতে তার আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পায় এবং নিজের স্বপ্ন পূরণে অঙ্গীকারাবদ্ধ হয়। সমাজে কন্যা শিশুরা সমান সুযোগ এবং সমান অধিকার পেলে বদলে দিতে পারে জীবন, তাদের আশেপাশের সমাজ এবং সমাজের মানুষদের- এমন বিশ্বাস থেকেই গার্লস টেকওভার কর্মসূচি চালু করা হয়। আন্তর্জাতিক কন্যা শিশু দিবস ২০২৩ উপলক্ষে প্ল্যান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ যৌথভাবে অনুষ্ঠানের সহযোগিতা করে।