বুধবার- ২৯ নভেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

বুধবার- ২৯ নভেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

প্রচ্ছদ /

মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠক শেষে সিইসি

খেজুরের রস সংগ্রহের ঠিলে তৈরীতে ব্যস্ত কুমাররা

Add Your Heading Text Here

রুহুল আমিন সৌরভ,কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ)

হেমন্তের শিশির জানান দিচ্ছে আসছে শীত। খেজুর গাছ থেকে নামবে মিষ্টি রস। গাছিরা খেজুর গাছ প্রস্তুত করেছেন। পরিচর্যা শেষে নলানো গাছে বাঁধবেন মাটির ঠিলে বা ভাড়(স্থানীয় ভাষা)। ঠিলে ভরে গাছ থেকে খেজুরের মিষ্টিরস নামাবে গাছিরা। নতুন পাতিলে রস আর গুড় এ মৌসুমে সবার বাড়িতে থাকে। তাই মৌসুমী ব্যবসা হিসেবে রসের হাড়ি, পিঠার ছাঁচ, গুড়ের খুঁড়ি তৈরিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন কুমারেরা।
রস গুড়ের জন্য বিখ্যাত এ অঞ্চলের কুমারেরা এখন বেশি ব্যস্ত ঠিলে বা কলস তৈরীতে। উপজেলার শিবনগর, গোমরাইল,অনুপমপুর গ্রামের কুমাররা হরেক রকম মাটির তৈজসপত্র তৈরির সাথে রস গুড়ের পাতিল তৈরীতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পালবাড়ির পুরুষের পাশাপাশি এ কাজে নারীরাও ব্যস্ত। কাজ চলছে কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত।
একদিকে চলছে কাদামাটির তৈরী পাতিল রোদে শুকানো অপরদিকে চলছে বিশাল চুল্লিতে আগুনের তাপে পোড়ানো। খেজুর গাছের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে ব্যাপক। তাই চাহিদা কম হলেও সীমিত লাভে কুমোরেরা ধরে রেখেছেন বাপ- ঠাকুরদার দীর্ঘ দিনের পেশাকে।
শীতকে ঘিরে কুমারেরা তৈরি করছেন মাটির নানান পণ্য। রস সংগ্রহের জন্য মাটির ঠিলা বা ভাড়(আঞ্চলিক ভাষা), গুড় পাটালির জন্য মাটির খুঁড়ি ও কলস, এবং পিঠা তৈরির ছাঁচ চাহিদা সব থেকে বেশি থাকায় বিরামহীন ভাবে চলছে এসব মাটির তৈজসপত্র তৈরির কাজ।
উপজেলার বিভিন্ন বাজারে তাদের তৈরিকৃত পন্যের পসরা সাজিয়ে বসেন বিক্রেতারা। সেখানে, হাড়ি, ঢাকুন, ফুলের টব, কলস, ব্যাংক, পণ্যগুলো ৮ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৪০ টাকার মধ্যে বিক্রি হচ্ছে।
বনখির্দা গ্রামের ক্রেতা রওশন গাছি জানান, গুড় তৈরির জন্য গুরুত্বপূর্ণ মাটির খুঁড়িতে রেখেই জমাতে হয় মুছি পাটালি। এ বছর ভালো মানের নতুন খুঁড়ি কিনছি ৮ টাকা পিস। রস সংগ্রহের জন্য মাটির ঠিলে ৩০ টাকা, গুড়ের জন্য বড় আকারের লম্বা কলস ৪০ টাকা। কম দামে ভালো মানের জিনিস পেয়ে খুশি তিনি।
কুমার মধু পাল জানান, এ পেশায় আগের মতো লাভ হয়না। বংশের ঐতিহ্য ধরে রেখেছি মাত্র। চাহিদা কম থাকায় দাম অনেক কম। দাম বাড়াতে পারিনি পূর্বের দামেই বিক্রি করছি। এই মৌসুমে বেচাকেনা অনেক ভালো হবে বলে আশা করছি। আবহাওয়া যেমন আছে এভাবে অনুকুলে থাকলে ভালোই হবে।

ট্যাগঃ

সম্পর্কিত আরো খবর

জনপ্রিয়