ঢাকা ০৫:০১ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

বিদ্যালয়ের আগুন ধরিয়ে দিলো অবরোধ সমর্থনকারীরা

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার ১৫ নং পাচুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আগুন ধরিয়েছে অবরোধ সমর্থনকারীরা।

বৃহস্পতিবার ভোরবেলায় ঘিওর উপজেলার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে অবস্থিত ১৫ নং পাচুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটায় অবরোধ সমর্থনকারীরা।

বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী মাসুদ মিয়া জানান,সারারাত বিদ্যালয় পাহারা দিয়ে ফজরের আজানের পর ঘুমাতে যাই। কিন্তু হঠাৎ করে বিদ্যালয়ের ভিতরে আগুনের ধোয়া আসতে দেখে দ্রুত রুম থেকে বিদ্যালয়ের বারান্দায় বের হই এবং বের হয়ে দেখি বিদ্যালয়ের বারান্দায় থাকা কয়েকটি প্লাস্টিকের চেয়ার আগুনে পুড়ছে। পরে সাথে সাথেই আগুন নিভিয়ে প্রধান শিক্ষককে খবর দেই।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মৌসূমী খান জানান, নৈশপ্রহরীর ফোন পেয়েসাথে সাথে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও পুলিশকে জানানো হয়। এরপর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বিদ্যালয়ে এসে দেখি বিদ্যালয়ের ভিতরে থাকা কয়েকটটি প্লাস্টিকের চেয়ার ও বেশ কয়েকটি চিত্রাংকন পুড়ে গেছে। পরে বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে জানানো হয়। যেহেতে অবরোধ চলছে, সে কারনে ধারনা করা হচ্ছে, অবরোধ সমর্থনকারীরা এধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে।

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আমিনুর রহমান জানান,বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে এবং আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার থেকে পঞ্চম দফায় ডাকা বিএনপির ৪৮ ঘন্টা অবরোধ চলছে। ১৫নং পাচুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাশেই বিএনপির প্রয়াত মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের বাসভবন এবং তার কবরস্থান।

ট্যাগস :

বিদ্যালয়ের আগুন ধরিয়ে দিলো অবরোধ সমর্থনকারীরা

আপডেট সময় : ১২:৪২:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর ২০২৩

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার ১৫ নং পাচুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের আগুন ধরিয়েছে অবরোধ সমর্থনকারীরা।

বৃহস্পতিবার ভোরবেলায় ঘিওর উপজেলার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পাশে অবস্থিত ১৫ নং পাচুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটায় অবরোধ সমর্থনকারীরা।

বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরী মাসুদ মিয়া জানান,সারারাত বিদ্যালয় পাহারা দিয়ে ফজরের আজানের পর ঘুমাতে যাই। কিন্তু হঠাৎ করে বিদ্যালয়ের ভিতরে আগুনের ধোয়া আসতে দেখে দ্রুত রুম থেকে বিদ্যালয়ের বারান্দায় বের হই এবং বের হয়ে দেখি বিদ্যালয়ের বারান্দায় থাকা কয়েকটি প্লাস্টিকের চেয়ার আগুনে পুড়ছে। পরে সাথে সাথেই আগুন নিভিয়ে প্রধান শিক্ষককে খবর দেই।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মৌসূমী খান জানান, নৈশপ্রহরীর ফোন পেয়েসাথে সাথে বিদ্যালয়ের সভাপতি ও পুলিশকে জানানো হয়। এরপর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে বিদ্যালয়ে এসে দেখি বিদ্যালয়ের ভিতরে থাকা কয়েকটটি প্লাস্টিকের চেয়ার ও বেশ কয়েকটি চিত্রাংকন পুড়ে গেছে। পরে বিষয়টি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে জানানো হয়। যেহেতে অবরোধ চলছে, সে কারনে ধারনা করা হচ্ছে, অবরোধ সমর্থনকারীরা এধরনের ঘটনা ঘটাতে পারে।

ঘিওর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.আমিনুর রহমান জানান,বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে এবং আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, গতকাল বুধবার থেকে পঞ্চম দফায় ডাকা বিএনপির ৪৮ ঘন্টা অবরোধ চলছে। ১৫নং পাচুরিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাশেই বিএনপির প্রয়াত মহাসচিব খোন্দকার দেলোয়ার হোসেনের বাসভবন এবং তার কবরস্থান।