০৫:৪৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ১ শ্রাবণ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

অনুর্ধ্ব-১৭ জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট

  • সবুজ বাংলা
  • আপডেট সময় : ১০:৪০:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০২৩
  • 41

শেরপুরে বঙ্গবন্ধুতে শ্রীবরদী, বঙ্গমাতায় পৌরসভা চ্যাম্পিয়ন।

শেরপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (বালক অনুর্ধ্ব-১৭) শ্রীবরদী উপজেলা দল চ্যাম্পিয়ন ও সদর উপজেলা দল রানারআপ হয়েছে। অপরদিকে, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (বালিকা অনুর্ধ্ব-১৭) শেরপুর পৌরসভা দল জেলা চ্যাম্পিয়ন ও শ্রীবরদী উপজেলা দল রানারআপ হয়েছে। ৯ অক্টোবর সোমবার বিকেলে শেরপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে ফাইনাল খেলা দু’টি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমে অনুষ্ঠিত বালিকা অনুর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে শেরপুর পৌরসভা দল ২-০ গোলে নালিতাবাড়ী উপজেলা দলকে পরাজিত করে। দলের পক্ষে স্ট্রাইকার ভাবনা ও আখি গোল দু’টি করেন। তিন ম্যাচে ৪ গোল করে পৌরসভা দলের স্ট্রাইকার ভাবনা টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা এবং মিডফিল্ডার খাদিজা সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন।

দ্বিতীয় ম্যাচ বালক অনুর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের  ম্যাফাইনালে  শ্রীবরদী উপজেলা দল ৩-১ গোলে শেরপুর সদর উপজেলা দলকে পরাজিত করে। শ্রীবরদীর পক্ষে স্ট্রাইকার আসাদুজ্জামান ২টি এবং রোমান ১টি গোল করেন। শেরপুরের একমাত্র গোলটি করে নাবিল মিয়া। ফাইনালে ২ গোল সহ দুই ম্যাচে তিন গোল করে শ্রীবরদীর স্ট্রাইকার আসাদুজ্জামান টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা এবং গোলকিপার বিল্লাল হোসেন সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন।

ফাইনাল খেলা শেষে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ী ও বিজিত দলের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক আব্দুল্লাহ আল খায়রুম। চ্যাম্পিয়ন ও রানারআপ দলগুলোকে ট্রফি, মেডেল এবং প্রাইজমানি প্রদান করা হয়। সেরা খেলোয়াড়কে গোল্ডেন বল এবং সর্বোচ্চ গোলদাতাকে গোল্ডেন বুট উপহার প্রদান করা হয়। পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোক্তাদিরুল আহমেদ। এসময় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, সদর ইউএনও মেহনাজ ফেরদৌস, শ্রীবরদী’র ইউএনও ইফতেখার ইউনুছ, পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. নজরুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবু সালেহ মো. নুরুল ইসলাম হিরো, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মানিক দত্ত, জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকার, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হাকিম বাবুল, সদর ইউএইচএফপিও ডা. মোবারক হোসেন সহ ডিএসএ-ডিএফএ’র কর্মকর্তা, ক্রীড়া সংগঠক সহ কোচ, রেফারী এবং খেলোয়াড়রা উপস্থিত ছিলেন।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যাগে শেরপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট জেলা পর্যায়ের খেলার আয়োজন করে। স্থানীয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে ৩-৯ অক্টোবর পর্যন্ত কেলাগুলো অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলার ৫ উপজেলা ও সদর পৌরসভার অনুর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বালক ও বালিকাদের পৃথক ৬টি করে দল নকআউট পদ্ধতিতে জেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে। জেলা পর্যায়ের বালক ও বালিকাদের চ্যাম্পিয়ন দল দু’টি পরিবর্তীতে বিভাগীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে।

শিক্ষার্থীদের উপর হামলার প্রতিবাদে নোয়াখালীতে বিক্ষোভ মিছিল

অনুর্ধ্ব-১৭ জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট

আপডেট সময় : ১০:৪০:৪৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১০ অক্টোবর ২০২৩

শেরপুরে বঙ্গবন্ধুতে শ্রীবরদী, বঙ্গমাতায় পৌরসভা চ্যাম্পিয়ন।

শেরপুরে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (বালক অনুর্ধ্ব-১৭) শ্রীবরদী উপজেলা দল চ্যাম্পিয়ন ও সদর উপজেলা দল রানারআপ হয়েছে। অপরদিকে, বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে (বালিকা অনুর্ধ্ব-১৭) শেরপুর পৌরসভা দল জেলা চ্যাম্পিয়ন ও শ্রীবরদী উপজেলা দল রানারআপ হয়েছে। ৯ অক্টোবর সোমবার বিকেলে শেরপুর শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে ফাইনাল খেলা দু’টি অনুষ্ঠিত হয়।

প্রথমে অনুষ্ঠিত বালিকা অনুর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে শেরপুর পৌরসভা দল ২-০ গোলে নালিতাবাড়ী উপজেলা দলকে পরাজিত করে। দলের পক্ষে স্ট্রাইকার ভাবনা ও আখি গোল দু’টি করেন। তিন ম্যাচে ৪ গোল করে পৌরসভা দলের স্ট্রাইকার ভাবনা টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা এবং মিডফিল্ডার খাদিজা সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন।

দ্বিতীয় ম্যাচ বালক অনুর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের  ম্যাফাইনালে  শ্রীবরদী উপজেলা দল ৩-১ গোলে শেরপুর সদর উপজেলা দলকে পরাজিত করে। শ্রীবরদীর পক্ষে স্ট্রাইকার আসাদুজ্জামান ২টি এবং রোমান ১টি গোল করেন। শেরপুরের একমাত্র গোলটি করে নাবিল মিয়া। ফাইনালে ২ গোল সহ দুই ম্যাচে তিন গোল করে শ্রীবরদীর স্ট্রাইকার আসাদুজ্জামান টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ গোলদাতা এবং গোলকিপার বিল্লাল হোসেন সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন।

ফাইনাল খেলা শেষে সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ী ও বিজিত দলের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক আব্দুল্লাহ আল খায়রুম। চ্যাম্পিয়ন ও রানারআপ দলগুলোকে ট্রফি, মেডেল এবং প্রাইজমানি প্রদান করা হয়। সেরা খেলোয়াড়কে গোল্ডেন বল এবং সর্বোচ্চ গোলদাতাকে গোল্ডেন বুট উপহার প্রদান করা হয়। পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোক্তাদিরুল আহমেদ। এসময় সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম, সদর ইউএনও মেহনাজ ফেরদৌস, শ্রীবরদী’র ইউএনও ইফতেখার ইউনুছ, পৌরসভার প্যানেল মেয়র মো. নজরুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবু সালেহ মো. নুরুল ইসলাম হিরো, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মানিক দত্ত, জেলা ক্রীড়া কর্মকর্তা ধীরেন্দ্র চন্দ্র সরকার, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক হাকিম বাবুল, সদর ইউএইচএফপিও ডা. মোবারক হোসেন সহ ডিএসএ-ডিএফএ’র কর্মকর্তা, ক্রীড়া সংগঠক সহ কোচ, রেফারী এবং খেলোয়াড়রা উপস্থিত ছিলেন।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উদ্যাগে শেরপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট এবং বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট জেলা পর্যায়ের খেলার আয়োজন করে। স্থানীয় শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়ামে ৩-৯ অক্টোবর পর্যন্ত কেলাগুলো অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলার ৫ উপজেলা ও সদর পৌরসভার অনুর্ধ্ব-১৭ বছর বয়সী বালক ও বালিকাদের পৃথক ৬টি করে দল নকআউট পদ্ধতিতে জেলা পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে। জেলা পর্যায়ের বালক ও বালিকাদের চ্যাম্পিয়ন দল দু’টি পরিবর্তীতে বিভাগীয় পর্যায়ে প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করবে।