০৬:৫৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহী বিভাগে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হলেন যারা

রাজশাহী অ লে প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই নির্বাচনে আমাদের প্রতিনিধিদের তথ্যনুযায়ী যেসব প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। তারা হলেন-

 

 

রাজশাহী : গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাচনে ১০৭টি কেন্দ্রের ফলাফলে চেয়ারম্যান পদে বেলাল উদ্দিন সোহেল দোয়াত কলম প্রতিকে পেয়েছেন ৬৭ হাজার ৮৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম কাপ পিরিচে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩২৮ ভোট। এছাড়াও আরেক প্রতিদ্বন্দ্বি রবিউল আলম আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ১৩৪ ভোট।

 

বুধবার (৮ মে) রাতে উপজেলার সহকারি রির্টানিং অফিসাররা বেসরকারি ভাবে তাদের নির্বাচিত ঘোষণা করেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে শফিকুল ইসলাম সরকার তালা প্রতিক নিয়ে ৩২ হাজার ২৬৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি টিয়া প্রতিক নিয়ে সালমান ফিরোজ ফয়সাল ২৮ হাজার ৪৭৫ ভোট।

 

 

নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রজাপতি প্রতিক নিয়ে সুফিয়া খাতুন মিলি পেয়েছেন ৫৩ হাজার ৮৬৭ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বি ফুটবল প্রতিক নিয়ে কৃষ্ণা দেবী পেয়েছেন ৪৫ হাজার ৭৭৬ ভোট। অন্যদিকে তানোর উপজেলায় আবারও জয়লাভ করেছেন লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না। এছাড়াও গোদাগাড়ীতে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন বেলাল উদ্দিন সোহেল। তানোর উপজেলায় ৬১টি কেন্দ্রের ফলাফলে লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না কাপ পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৪৬ হাজার ৩৯৫ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবদুল্লাহ আল মামুন মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২০ হাজার ৭৯ ভোট।

 

 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে (পুরুষ) পদে তানভীর রেজা চশমা প্রতিক নিয়ে ৩৮ হাজার ৫৩৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বি সোহেল রানা তালা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৬০১ ভোট।

 

 

এছাড়াও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে সোনিয়া সরদার কলস প্রতিক নিয়ে ৩০ হাজার ৮৩৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বি সাগরিকা ভৌমিক বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৩ হাজার ৫৪৪ ভোট ও নাসিমা বিবি সেলাই মেশিন প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮ হাজার ২১৬ ভোট।

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলার মোট ৩৮টি ভোট কেন্দ্রের ২৪৪টি ভোট কক্ষে ভোট গ্রহণ চলে। বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নির্বাচনী মাঠে অবস্থান করে। ভোলাহাট উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৮৬হাজার ২২৯জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪২ হাজার ৫১৭ মহিলা ৪৩ হাজার ৭১২জন। প্রদত্ত ভোটের ১৩০৮৪ ভোট পেয়ে চিংড়ি মাছ প্রতীকের বিএনপির বহিস্কৃত উপজেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি মোঃ আনােয়ারুল ইসলাম বেসরকারিভাবে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি কাপ পিরিচ প্রতীকের মোঃ আব্দুল খালেক পেয়েছেন ১০৭৬৬ ভোট।

 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে বহিস্কৃত বিএনপি নেতা মোঃ কামাল উদ্দিন চশমা প্রতীকে ১৫৭৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির বহিস্কৃত উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কায়সার আহমেদ পেয়েছেন ১১৫৮৯ ভোট। মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে উপজেলা মহিলা যুলীগের মোসাঃ শাহাজাদী বিশ্বাস ভোট ২১৫৮৩ পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির বহিষ্কৃত নেত্রী মোসাঃ রেশমাতুল আরশ পেয়েছেন ১৩৬৪৪ ভোট। শান্তিপূর্ণ সুষ্ঠ ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হলেও ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। এদিকে পাঁচটিকরি আলিম মাদ্রাসা ভোট কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কাপ পিরিচ ও চিংড়ি প্রতীকের কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হলে চিংড়ি প্রতীকের আজম আলী নামের এক কর্মী আহত হয়। এ ঘটনায় কাপ পিরিচ প্রতীকের এক কর্মী তোতাকে গ্রেফতার করে ভোলাহাট থানা পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

 

উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ শাহাজাহান মানিক বলেন, কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ভোট গ্রহণ সুষ্ঠ সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে।

 

 

নাটোর : নাটোর সদর উপজেলায় আবারও নির্বাচিত হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান। তিনি কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৩৪ হাজার ৭৯৭ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হন। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বি দোয়াত কলম প্রতীকে রিয়াজুল ইসলাম ৩১ হাজার ৮৫৩ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যানে তালা প্রতীকে শফিকুর রহমান পেয়েছেন ২৯ হাজার ১৭৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবদুল্লাহ আল সাকিব চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ২৩৪ ভোট। নারী ভাইস চেয়ারম্যানে ফুটবল প্রতীকে কামরুন্নাহার পেয়েছে ৬০ হাজার ৬৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি শেফালী আক্তার হাঁস প্রতীকে পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৭০৪ ভোট।

 

নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন আনিছুর রহমান লিখন। তিনি পেয়েছেন ৩৬ হাজার ১০৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি হান্নান আহমেদ হাসান পেয়েছেন ২৪ হাজার ০৫২ ভোট। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন শামীমা হক রোজী। তিনি পেয়েছেন ২৮ হাজার ৭৭০ ভোট।

নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচনে বেসরকারি বিজয়ী হয়েছেন জোড়া ফুল প্রতীকের রবিউল ইসলাম। তিনি পেয়েছেন ১১ হাজার ২৪০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি তৌহিদুর রহমান লিটন কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১০ হাজার ৭১৭ ভোট।

 

নওগাঁ : নওগাঁর তিনটি উপজেলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলাগুলো হচ্ছে ধামইরহাট, পত্নীতলা এবং বদলগাছি। বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে নির্বাচিতরা হলেনÑ বদলগাছিতে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সামসুল আলম খান। ধামইরহাটে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজাহার আলী। এবং পত্নীতলায় উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল গাফফার চৌধুরী।

 

বগুড়া : বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় সাখাওয়াত হোসেন সজল, সোনাতলায় মিনহাদুজ্জামান লিটন এবং গাবতলীতে অরুণ কান্তি রায় সিটন বেসরারিকভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। রিটার্নিং অফিসার জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান বুধবার (৮ মে) রাতে এ তথ্য জানান।

 

মাহমুদ হাসান জানান, বগুড়ার তিনটি উপজেলায় নির্বাচনে মোট ১১ জন চেয়ারম্যান, ১০ জন ভাইস চেয়ারম্যান এবং ১১ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

 

 

তিনটি উপজেলায় মোট ভোটার ছয় লাখ ৪১ হাজার ৩৮৭ জন। এর মধ্যে মহিলা ভোটার তিন লাখ ২২ হাজার ৮৮৪ জন এবং পুরুষ ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ১৮ হাজার ৫০৩ জন। বগুড়া প্রথম ধাপে তিনটি উপজেলা নির্বাচনে মোট ভোট ২২২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হয়। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ।

 

জয়পুরহাট : জয়পুরহাটের কালাইয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির মিনফুজুর রহমান। তিনি টানা চতুর্থবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন। ক্ষেতলালে নির্বাচিত হয়েছেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. দুলাল মিয়া সরদার। আক্কেলপুরে মো. মোকছেদ আলী মাস্টার নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি।

রাজশাহী বিভাগে চেয়ারম্যান পদে জয়ী হলেন যারা

আপডেট সময় : ০৪:১০:৫২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪

রাজশাহী অ লে প্রথম ধাপের উপজেলা নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এই নির্বাচনে আমাদের প্রতিনিধিদের তথ্যনুযায়ী যেসব প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। তারা হলেন-

 

 

রাজশাহী : গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাচনে ১০৭টি কেন্দ্রের ফলাফলে চেয়ারম্যান পদে বেলাল উদ্দিন সোহেল দোয়াত কলম প্রতিকে পেয়েছেন ৬৭ হাজার ৮৮ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম কাপ পিরিচে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩২৮ ভোট। এছাড়াও আরেক প্রতিদ্বন্দ্বি রবিউল আলম আনারস প্রতীকে পেয়েছেন ২১ হাজার ১৩৪ ভোট।

 

বুধবার (৮ মে) রাতে উপজেলার সহকারি রির্টানিং অফিসাররা বেসরকারি ভাবে তাদের নির্বাচিত ঘোষণা করেন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে শফিকুল ইসলাম সরকার তালা প্রতিক নিয়ে ৩২ হাজার ২৬৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি টিয়া প্রতিক নিয়ে সালমান ফিরোজ ফয়সাল ২৮ হাজার ৪৭৫ ভোট।

 

 

নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রজাপতি প্রতিক নিয়ে সুফিয়া খাতুন মিলি পেয়েছেন ৫৩ হাজার ৮৬৭ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বি ফুটবল প্রতিক নিয়ে কৃষ্ণা দেবী পেয়েছেন ৪৫ হাজার ৭৭৬ ভোট। অন্যদিকে তানোর উপজেলায় আবারও জয়লাভ করেছেন লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না। এছাড়াও গোদাগাড়ীতে বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন বেলাল উদ্দিন সোহেল। তানোর উপজেলায় ৬১টি কেন্দ্রের ফলাফলে লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না কাপ পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৪৬ হাজার ৩৯৫ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবদুল্লাহ আল মামুন মোটরসাইকেল প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২০ হাজার ৭৯ ভোট।

 

 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে (পুরুষ) পদে তানভীর রেজা চশমা প্রতিক নিয়ে ৩৮ হাজার ৫৩৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বি সোহেল রানা তালা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৬০১ ভোট।

 

 

এছাড়াও নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে সোনিয়া সরদার কলস প্রতিক নিয়ে ৩০ হাজার ৮৩৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বি সাগরিকা ভৌমিক বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ২৩ হাজার ৫৪৪ ভোট ও নাসিমা বিবি সেলাই মেশিন প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৮ হাজার ২১৬ ভোট।

 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের ভোলাহাটে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলার মোট ৩৮টি ভোট কেন্দ্রের ২৪৪টি ভোট কক্ষে ভোট গ্রহণ চলে। বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী নির্বাচনী মাঠে অবস্থান করে। ভোলাহাট উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা ৮৬হাজার ২২৯জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪২ হাজার ৫১৭ মহিলা ৪৩ হাজার ৭১২জন। প্রদত্ত ভোটের ১৩০৮৪ ভোট পেয়ে চিংড়ি মাছ প্রতীকের বিএনপির বহিস্কৃত উপজেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি মোঃ আনােয়ারুল ইসলাম বেসরকারিভাবে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি কাপ পিরিচ প্রতীকের মোঃ আব্দুল খালেক পেয়েছেন ১০৭৬৬ ভোট।

 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে বহিস্কৃত বিএনপি নেতা মোঃ কামাল উদ্দিন চশমা প্রতীকে ১৫৭৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির বহিস্কৃত উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কায়সার আহমেদ পেয়েছেন ১১৫৮৯ ভোট। মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবে উপজেলা মহিলা যুলীগের মোসাঃ শাহাজাদী বিশ্বাস ভোট ২১৫৮৩ পেয়ে বিজয়ী হন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির বহিষ্কৃত নেত্রী মোসাঃ রেশমাতুল আরশ পেয়েছেন ১৩৬৪৪ ভোট। শান্তিপূর্ণ সুষ্ঠ ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হলেও ভোটার উপস্থিতি ছিল কম। এদিকে পাঁচটিকরি আলিম মাদ্রাসা ভোট কেন্দ্রে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কাপ পিরিচ ও চিংড়ি প্রতীকের কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ হলে চিংড়ি প্রতীকের আজম আলী নামের এক কর্মী আহত হয়। এ ঘটনায় কাপ পিরিচ প্রতীকের এক কর্মী তোতাকে গ্রেফতার করে ভোলাহাট থানা পুলিশ। তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।

 

উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোঃ শাহাজাহান মানিক বলেন, কোন প্রকার অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ভোট গ্রহণ সুষ্ঠ সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে সম্পন্ন হয়েছে।

 

 

নাটোর : নাটোর সদর উপজেলায় আবারও নির্বাচিত হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম রমজান। তিনি কাপ-পিরিচ প্রতীক নিয়ে ৩৪ হাজার ৭৯৭ ভোট পেয়ে বেসরকারি ভাবে নির্বাচিত হন। তার নিকট প্রতিদ্বন্দ্বি দোয়াত কলম প্রতীকে রিয়াজুল ইসলাম ৩১ হাজার ৮৫৩ ভোট। ভাইস চেয়ারম্যানে তালা প্রতীকে শফিকুর রহমান পেয়েছেন ২৯ হাজার ১৭৯ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আবদুল্লাহ আল সাকিব চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ২৩৪ ভোট। নারী ভাইস চেয়ারম্যানে ফুটবল প্রতীকে কামরুন্নাহার পেয়েছে ৬০ হাজার ৬৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি শেফালী আক্তার হাঁস প্রতীকে পেয়েছেন ৩৫ হাজার ৭০৪ ভোট।

 

নাটোরের সিংড়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন আনিছুর রহমান লিখন। তিনি পেয়েছেন ৩৬ হাজার ১০৫ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি হান্নান আহমেদ হাসান পেয়েছেন ২৪ হাজার ০৫২ ভোট। নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন শামীমা হক রোজী। তিনি পেয়েছেন ২৮ হাজার ৭৭০ ভোট।

নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচনে বেসরকারি বিজয়ী হয়েছেন জোড়া ফুল প্রতীকের রবিউল ইসলাম। তিনি পেয়েছেন ১১ হাজার ২৪০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি তৌহিদুর রহমান লিটন কাপ-পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ১০ হাজার ৭১৭ ভোট।

 

নওগাঁ : নওগাঁর তিনটি উপজেলায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলাগুলো হচ্ছে ধামইরহাট, পত্নীতলা এবং বদলগাছি। বেসরকারিভাবে প্রাপ্ত ফলাফলের ভিত্তিতে নির্বাচিতরা হলেনÑ বদলগাছিতে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সামসুল আলম খান। ধামইরহাটে উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আজাহার আলী। এবং পত্নীতলায় উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল গাফফার চৌধুরী।

 

বগুড়া : বগুড়ার সারিয়াকান্দি উপজেলায় সাখাওয়াত হোসেন সজল, সোনাতলায় মিনহাদুজ্জামান লিটন এবং গাবতলীতে অরুণ কান্তি রায় সিটন বেসরারিকভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। রিটার্নিং অফিসার জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মাহমুদ হাসান বুধবার (৮ মে) রাতে এ তথ্য জানান।

 

মাহমুদ হাসান জানান, বগুড়ার তিনটি উপজেলায় নির্বাচনে মোট ১১ জন চেয়ারম্যান, ১০ জন ভাইস চেয়ারম্যান এবং ১১ জন মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

 

 

তিনটি উপজেলায় মোট ভোটার ছয় লাখ ৪১ হাজার ৩৮৭ জন। এর মধ্যে মহিলা ভোটার তিন লাখ ২২ হাজার ৮৮৪ জন এবং পুরুষ ভোটার সংখ্যা তিন লাখ ১৮ হাজার ৫০৩ জন। বগুড়া প্রথম ধাপে তিনটি উপজেলা নির্বাচনে মোট ভোট ২২২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হয়। এদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ।

 

জয়পুরহাট : জয়পুরহাটের কালাইয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির মিনফুজুর রহমান। তিনি টানা চতুর্থবারের মতো চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন। ক্ষেতলালে নির্বাচিত হয়েছেন পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. দুলাল মিয়া সরদার। আক্কেলপুরে মো. মোকছেদ আলী মাস্টার নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি।