০৭:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জামালপুরে মা দিবসে মা’দের সমাবেশ

জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ এবং বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষে জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের উদ্যোগে এবং জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সহযোগিতা উন্নয়ন সংঘের চাইল্ড সিটিতে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ স্বাগত সাহা। মূখ্য আলোচক ছিলেন জেলা মহিলা বিষয়ক কার্যালয়ের উপপরিচালক কামরুন্নাহার।

 

 

উন্নয়ন সংঘের মানবসম্পদ উন্নয়ন পরিচালক জাহাঙ্গীর সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক অমলেশ দে সরকার, নিউট্টিশন ইন্টারন্যাশনালের সমন্বয়কারী রাকিবুল হাসান, উন্নয়ন সংঘের পরিচালক কর্মসূচি মুর্শেদ ইকবাল, জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের ব্যবস্থাপক মিনারা পরাভীন, সিডিও সাব্বির হোসেন, সিএফ মঞ্জুয়ারা বেগম প্রমুখ। এবারের পুষ্টি সপ্তাহের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে, খাবার খাবো পুষ্টিমানে।

 

 

 

আলোচকরা বলেন, খাদ্যের কথা ভাবলে পুষ্টির কথা ভাবতে হবে। জামালপুর দেশের মধ্যে অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ একটি জেলা। পুষ্টি উন্নয়নে সরকারি, বেসরকারি সমন্বিত উদ্যোগে বহুমাত্রিক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে হবে।

 

 

জানা যায়, জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের চতুর্থ দিনে মা সমাবেশের পাশাপাশি উন্নয়ন সংঘের চাইল্ড সিটিতে পুষ্টিকর খাবারের প্রদর্শনী করা হয়। এ জন্যে জামালপুর পৌরসভাধীন মনিরাজপুর শাপলা দল, দেউরপাড় চন্দ্রা পদ্মা দল এবং যোগীর গোপার যমুনা দল পুষ্টিকর খাবার প্রদর্শনের জন্য পুরস্কৃত হয়।

 

 

সমাবেশে সপ্তাহের পুষ্টিবার্তা, শিশু, শিশুর মা ও গর্ভবতী নারীর খাদ্য ও পুষ্টি চাহিদা পূরণের সঠিক উপায় সম্পর্কে অবহিত করা হয়। সমাবেশ শেষ উন্নত ও পুষ্টি সমৃদ্ধ নাস্তা পরিবেশন করা হয়।

 

 

উল্লেখ, ওয়ার্ল্ড ভিশন এবং উন্নয়ন সংঘের যৌথ উদ্যোগে বাস্তবয়নাধীন জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের অন্যতম কার্যক্রম হলো স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও ওয়াস।

 

 

এছাড়া জীবীকায়ন ও শিশু সুরক্ষা বিশেষ কাজ হিসেবে সফলভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে বলে আয়োজক সংস্থা জানায়। স্বাস্থ্য বিভাগের সহায়ক শক্তি হিসেবে জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রাম জামালপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহে নানা ধরণের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে। পাশাপাশি সংস্থার জেসমিন প্রকল্প এবং সিডস প্রকল্পও পুষ্টি উন্নয়নে কাজ করছে বলে জানা যায়।

জামালপুরে মা দিবসে মা’দের সমাবেশ

আপডেট সময় : ০৭:২৫:৩৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১২ মে ২০২৪

জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহ এবং বিশ্ব মা দিবস উপলক্ষে জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের উদ্যোগে এবং জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সহযোগিতা উন্নয়ন সংঘের চাইল্ড সিটিতে মা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জন ডাঃ স্বাগত সাহা। মূখ্য আলোচক ছিলেন জেলা মহিলা বিষয়ক কার্যালয়ের উপপরিচালক কামরুন্নাহার।

 

 

উন্নয়ন সংঘের মানবসম্পদ উন্নয়ন পরিচালক জাহাঙ্গীর সেলিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন, জেলা স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা আনিছুর রহমান, জেলা স্বাস্থ্য তত্বাবধায়ক অমলেশ দে সরকার, নিউট্টিশন ইন্টারন্যাশনালের সমন্বয়কারী রাকিবুল হাসান, উন্নয়ন সংঘের পরিচালক কর্মসূচি মুর্শেদ ইকবাল, জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের ব্যবস্থাপক মিনারা পরাভীন, সিডিও সাব্বির হোসেন, সিএফ মঞ্জুয়ারা বেগম প্রমুখ। এবারের পুষ্টি সপ্তাহের প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মানে, খাবার খাবো পুষ্টিমানে।

 

 

 

আলোচকরা বলেন, খাদ্যের কথা ভাবলে পুষ্টির কথা ভাবতে হবে। জামালপুর দেশের মধ্যে অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ একটি জেলা। পুষ্টি উন্নয়নে সরকারি, বেসরকারি সমন্বিত উদ্যোগে বহুমাত্রিক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করতে হবে।

 

 

জানা যায়, জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহের চতুর্থ দিনে মা সমাবেশের পাশাপাশি উন্নয়ন সংঘের চাইল্ড সিটিতে পুষ্টিকর খাবারের প্রদর্শনী করা হয়। এ জন্যে জামালপুর পৌরসভাধীন মনিরাজপুর শাপলা দল, দেউরপাড় চন্দ্রা পদ্মা দল এবং যোগীর গোপার যমুনা দল পুষ্টিকর খাবার প্রদর্শনের জন্য পুরস্কৃত হয়।

 

 

সমাবেশে সপ্তাহের পুষ্টিবার্তা, শিশু, শিশুর মা ও গর্ভবতী নারীর খাদ্য ও পুষ্টি চাহিদা পূরণের সঠিক উপায় সম্পর্কে অবহিত করা হয়। সমাবেশ শেষ উন্নত ও পুষ্টি সমৃদ্ধ নাস্তা পরিবেশন করা হয়।

 

 

উল্লেখ, ওয়ার্ল্ড ভিশন এবং উন্নয়ন সংঘের যৌথ উদ্যোগে বাস্তবয়নাধীন জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রামের অন্যতম কার্যক্রম হলো স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও ওয়াস।

 

 

এছাড়া জীবীকায়ন ও শিশু সুরক্ষা বিশেষ কাজ হিসেবে সফলভাবে বাস্তবায়ন হচ্ছে বলে আয়োজক সংস্থা জানায়। স্বাস্থ্য বিভাগের সহায়ক শক্তি হিসেবে জামালপুর এরিয়া প্রোগ্রাম জামালপুরে জাতীয় পুষ্টি সপ্তাহে নানা ধরণের কার্যক্রম বাস্তবায়ন করে আসছে। পাশাপাশি সংস্থার জেসমিন প্রকল্প এবং সিডস প্রকল্পও পুষ্টি উন্নয়নে কাজ করছে বলে জানা যায়।