১২:৫৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূমি অফিসে সক্রিয় দালালচক্র

 

💢 ৬ দালালকে পুলিশে দিলেন জেলা প্রশাসক

💢 অনিয়ম ঠেকাতে চলবে অভিযান

 

রাজধানী ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকাগুলোতে ভূমি অফিস ঘিরে সক্রিয় হয়ে উঠেছে সংঘবদ্ধ দালালচক্র। এরা নানান কৌশলে জাল-জালিয়াতি করে নামজারি থেকে ভূমিসংক্রান্তে সব ধরনের সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার নামে প্রতিনিয়ত হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। অভিযোগ রয়েছে ভূমি অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীর যোগসাজশে চক্রটি দিন দিন আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে মাঠ পর্যায়ে তদন্ত বা ভূমি অফিসে দাখিলকৃত কাগজপত্রের রেকর্ড যাচাই-বাছাই না করেই একজনের জমি অন্যজনের নামে নামজারি করে দেওয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে কয়েক ধাপ এগিয়ে রয়েছে ডেভেলপার বা হাউসিং কোম্পানিগুলো। জেলা প্রশাসক বলছেন, ভূমি অফিসের অনিয়ম রোধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে তেজগাঁও ভূমি অফিস থেকে ৬ জন দালালকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ভুক্তভোগীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দেশে জনসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আবাসনের চাহিদাও ক্রমেই বাড়ছে। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে হাউসিং বা ডেভেলপার কোম্পানিগুলো লোভনীয় প্রস্তাব দিয়ে ক্রেতা আকৃষ্ট করে নিচ্ছে। এরপর বিভিন্ন কোম্পানির নাম দিয়ে রাজধানী ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকাগুলোতে ফসলি জমির ওপর নিজেদের সম্পত্তি দাবি করে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিচ্ছে। মূলত এর আড়ালে জমি
ভাড়া নিয়ে গ্রাহকদের নিজের সম্পত্তি বলে এককালীন বা কিস্তিতে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নেওয়া। এরাই রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন নিম্নাঞ্চল, পূর্বাচল, সাভার, আশুলিয়া, ধামরাই, কেরানীগঞ্জ, টঙ্গী, গাজীপুর ও ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে কয়েক কাঠা সম্পত্তি ক্রয় করে। এরপর ফসলি জমিতে পর্যায়ক্রমে বালু ভরাট করে পাশের জমিও দখলে নিয়ে নিচ্ছে। কেউ প্রতিবাদ করলে সন্ত্রাসী বাহিনী লেলিয়ে ভুক্তভোগীর বৈধ সম্পত্তিও কেড়ে নিয়ে নামমাত্র মূল্য দিয়ে ভূমি ছাড়া করছে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন ভূমি অফিসে গড়ে ওঠা দালালচক্রদের ব্যবহার করছে কোম্পানিগুলো। বৈধ জমির মালিকরা খাজনা দিতে গিয়ে জানতে পারেন ওই সম্পত্তি বহু আগেই কেনাবেচা হয়ে গেছে। ভুক্তভোগীরা জানান, ভূমি অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারী মূল নথিপত্র পর্যালোচনা না করে অর্থের বিনিময়ে দালালদের মাধ্যমে একজনের সম্পত্তি অন্যজনের নামে নামজারি করে দিচ্ছেন। এতে বসতভিটা ও ফসলি জমি হারিয়ে অনেকেই নিঃস্ব হয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। দেওয়ানি মামলা নিষ্পত্তিতে দীর্ঘসূত্রতার কারণে ভুক্তভোগী অনেকেই আদালতের দ্বারস্থ হচ্ছেন না। ফলে ভূমি অফিস ঘিরে ক্রমেই সক্রিয় হয়ে উঠেছে সংঘবদ্ধ দালালচক্র। এমন বাস্তবতায় গত সোমবার দুপুরের দিকে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলের সাতরাস্তা মোড়ে তেজগাঁও ভূমি অফিসে অভিযান চালান ঢাকা জেলা প্রশাসক। এসময় হাতেনাতে ৬ দালালকে আটক করে পুলিশে দিয়ে মামলাও রুজু করা হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা জেলা প্রশাসকের সহকারী কমিশনার (শিক্ষা) শফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে সবুজ বাংলাকে বলেন, গত সোমবার ঢাকা জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমানের নির্দেশনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. শিবলী সাদিক রাজধানীর তেজগাঁও ভূমি অফিসে অভিযান পরিচালনা করেন। তিনি ভূমি অফিসে সেবা প্রার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। সেবা প্রার্থীদের দেওয়া বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিক ৬ জন দালালকে হাতেনাতে আটক করা হয়। তারা বিভিন্ন মানুষের নামজারি সংক্রান্ত কাগজপত্র নিয়ে ভূমি অফিসে ঘোরাঘুরি করছিলেন। পরে তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।
আটক ৬ জন দালালের বিরুদ্ধে তেজগাঁও ভূমি অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযান পরিচালনার সময় তেজগাঁও রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি), ভূমি সহকারী কর্মকর্তা শরীফ মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন, তেজগাঁও ভূমি অফিসসহ জেলা প্রশাসনের অন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন বলে জানান ঢাকা জেলা প্রশাসকের সহকারী কমিশনার (শিক্ষা) শফিকুল ইসলাম।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান সবুজ বাংলাকে বলেন, যেকোনো ভূমি অফিসে নাগরিকসেবা নিশ্চিতে এবং দ্রুততম সময়ে সেবা দিতে এরকম অভিযান অব্যাহত থাকবে। সব ধরনের অনিয়মের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছি। ভূমি অফিসে কোনো অনিয়ম হলে জেলা প্রশাসনকে জানাতে সেবাপ্রত্যাশীদের প্রতি অনুরোধ জানান ঢাকা জেলা প্রশাসক।

জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

ভূমি অফিসে সক্রিয় দালালচক্র

আপডেট সময় : ১২:১৮:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৪

 

💢 ৬ দালালকে পুলিশে দিলেন জেলা প্রশাসক

💢 অনিয়ম ঠেকাতে চলবে অভিযান

 

রাজধানী ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকাগুলোতে ভূমি অফিস ঘিরে সক্রিয় হয়ে উঠেছে সংঘবদ্ধ দালালচক্র। এরা নানান কৌশলে জাল-জালিয়াতি করে নামজারি থেকে ভূমিসংক্রান্তে সব ধরনের সমস্যা সমাধান করে দেওয়ার নামে প্রতিনিয়ত হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ লাখ টাকা। অভিযোগ রয়েছে ভূমি অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীর যোগসাজশে চক্রটি দিন দিন আরো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে মাঠ পর্যায়ে তদন্ত বা ভূমি অফিসে দাখিলকৃত কাগজপত্রের রেকর্ড যাচাই-বাছাই না করেই একজনের জমি অন্যজনের নামে নামজারি করে দেওয়া হচ্ছে। এক্ষেত্রে কয়েক ধাপ এগিয়ে রয়েছে ডেভেলপার বা হাউসিং কোম্পানিগুলো। জেলা প্রশাসক বলছেন, ভূমি অফিসের অনিয়ম রোধে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। চলমান অভিযানের অংশ হিসেবে তেজগাঁও ভূমি অফিস থেকে ৬ জন দালালকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ভুক্তভোগীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দেশে জনসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আবাসনের চাহিদাও ক্রমেই বাড়ছে। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে হাউসিং বা ডেভেলপার কোম্পানিগুলো লোভনীয় প্রস্তাব দিয়ে ক্রেতা আকৃষ্ট করে নিচ্ছে। এরপর বিভিন্ন কোম্পানির নাম দিয়ে রাজধানী ঢাকা ও এর আশপাশের এলাকাগুলোতে ফসলি জমির ওপর নিজেদের সম্পত্তি দাবি করে সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে দিচ্ছে। মূলত এর আড়ালে জমি
ভাড়া নিয়ে গ্রাহকদের নিজের সম্পত্তি বলে এককালীন বা কিস্তিতে মোটা অঙ্কের অর্থ হাতিয়ে নেওয়া। এরাই রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন নিম্নাঞ্চল, পূর্বাচল, সাভার, আশুলিয়া, ধামরাই, কেরানীগঞ্জ, টঙ্গী, গাজীপুর ও ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে কয়েক কাঠা সম্পত্তি ক্রয় করে। এরপর ফসলি জমিতে পর্যায়ক্রমে বালু ভরাট করে পাশের জমিও দখলে নিয়ে নিচ্ছে। কেউ প্রতিবাদ করলে সন্ত্রাসী বাহিনী লেলিয়ে ভুক্তভোগীর বৈধ সম্পত্তিও কেড়ে নিয়ে নামমাত্র মূল্য দিয়ে ভূমি ছাড়া করছে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন ভূমি অফিসে গড়ে ওঠা দালালচক্রদের ব্যবহার করছে কোম্পানিগুলো। বৈধ জমির মালিকরা খাজনা দিতে গিয়ে জানতে পারেন ওই সম্পত্তি বহু আগেই কেনাবেচা হয়ে গেছে। ভুক্তভোগীরা জানান, ভূমি অফিসের কতিপয় অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারী মূল নথিপত্র পর্যালোচনা না করে অর্থের বিনিময়ে দালালদের মাধ্যমে একজনের সম্পত্তি অন্যজনের নামে নামজারি করে দিচ্ছেন। এতে বসতভিটা ও ফসলি জমি হারিয়ে অনেকেই নিঃস্ব হয়ে পথে পথে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। দেওয়ানি মামলা নিষ্পত্তিতে দীর্ঘসূত্রতার কারণে ভুক্তভোগী অনেকেই আদালতের দ্বারস্থ হচ্ছেন না। ফলে ভূমি অফিস ঘিরে ক্রমেই সক্রিয় হয়ে উঠেছে সংঘবদ্ধ দালালচক্র। এমন বাস্তবতায় গত সোমবার দুপুরের দিকে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলের সাতরাস্তা মোড়ে তেজগাঁও ভূমি অফিসে অভিযান চালান ঢাকা জেলা প্রশাসক। এসময় হাতেনাতে ৬ দালালকে আটক করে পুলিশে দিয়ে মামলাও রুজু করা হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার বিকালে ঢাকা জেলা প্রশাসকের সহকারী কমিশনার (শিক্ষা) শফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করে সবুজ বাংলাকে বলেন, গত সোমবার ঢাকা জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমানের নির্দেশনায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. শিবলী সাদিক রাজধানীর তেজগাঁও ভূমি অফিসে অভিযান পরিচালনা করেন। তিনি ভূমি অফিসে সেবা প্রার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন। সেবা প্রার্থীদের দেওয়া বিভিন্ন তথ্যের ভিত্তিতে তাৎক্ষণিক ৬ জন দালালকে হাতেনাতে আটক করা হয়। তারা বিভিন্ন মানুষের নামজারি সংক্রান্ত কাগজপত্র নিয়ে ভূমি অফিসে ঘোরাঘুরি করছিলেন। পরে তাদের পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।
আটক ৬ জন দালালের বিরুদ্ধে তেজগাঁও ভূমি অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। অভিযান পরিচালনার সময় তেজগাঁও রাজস্ব সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি), ভূমি সহকারী কর্মকর্তা শরীফ মোহাম্মদ হেলাল উদ্দীন, তেজগাঁও ভূমি অফিসসহ জেলা প্রশাসনের অন্য কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন বলে জানান ঢাকা জেলা প্রশাসকের সহকারী কমিশনার (শিক্ষা) শফিকুল ইসলাম।
এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক আনিসুর রহমান সবুজ বাংলাকে বলেন, যেকোনো ভূমি অফিসে নাগরিকসেবা নিশ্চিতে এবং দ্রুততম সময়ে সেবা দিতে এরকম অভিযান অব্যাহত থাকবে। সব ধরনের অনিয়মের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করছি। ভূমি অফিসে কোনো অনিয়ম হলে জেলা প্রশাসনকে জানাতে সেবাপ্রত্যাশীদের প্রতি অনুরোধ জানান ঢাকা জেলা প্রশাসক।