০৭:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাবা টাকা দেননি; ভাড়াটে খুনি ডেকে গুলি করে হত্যা করালো ছেলে

ভাড়াটে খুনিদের দিয়ে বাবাকে খুন করালো কিশোর। একাজের জন্য তিনজনকে ভাড়া করেছিল সে। তাদের গুলিতেই মৃত্যু হয় কিশোরের ব্যবসায়ী বাবার। পুলিশ ওই তিন আততায়ীকে গ্রেপ্তার করে। আটক করা হয় ১৬ বছরের কিশোরকেও। তাকে জিজ্ঞাসা করে পুলিশ জানতে পারে, বাবার কাছে টাকা চেয়েছিল সে। তিনি পর্যাপ্ত টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় এ খুনের পরিকল্পনা।

ঘটনাটি ভারতের উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড় এলাকার। মৃত ব্যবসায়ীর নাম মহম্মদ নইম (৫০)। তিনি সোনার দোকানের মালিক ছিলেন। বৃহস্পতিবার দুষ্কৃতদের গুলিতে তার মৃত্যু হয়। তাকে মারতে বাইকে করে তিন দুষ্কৃতকারী এসেছিল। তাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, তাদের এই খুনের জন্য ভাড়া করা হয়েছিল। ব্যবসায়ীর ছেলেই টাকার বিনিময়ে তাদের একাজ করতে বলেছিল। এর পরেই পুলিশ কিশোরকে আটক করে।

কিশোর পুলিশকে জানায়, বাবার কাছে কিছু টাকা চেয়েছিল সে। না পেয়ে খুন করার পরিকল্পনা করে। ভাড়াটে গুণ্ডাদের ছয় লাখ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিল কিশোর। কাজের আগে অগ্রিম হিসাবে দেওয়া হয়েছিল দেড় লাখ টাকা। দুষ্কৃতকারীদের কিশোর জানিয়েছিল, বাবাকে খুন করতে পারলে বাকি টাকা দেবে।

তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, বাবার সোনার দোকান থেকে মাঝেমাঝেই ইচ্ছামতো টাকা চুরি করত সে। চাইলে বাবার কাছ থেকে টাকা পাওয়া যেত না। এই টাকার জন্যই আগেও সে বাবাকে খুনের পরিকল্পনা করে। কিন্তু একাধিক বার ব্যর্থ হয়েছে। জুভেনাইল কোর্টে কিশোরের বিচার হবে বলে জানান এএসপি দুর্গেশ কুমার সিং। আপাতত তাকে জুভেনাইল সেন্টারে রাখা হয়েছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

বাবা টাকা দেননি; ভাড়াটে খুনি ডেকে গুলি করে হত্যা করালো ছেলে

আপডেট সময় : ০৭:২৩:৩০ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৪ মার্চ ২০২৪

ভাড়াটে খুনিদের দিয়ে বাবাকে খুন করালো কিশোর। একাজের জন্য তিনজনকে ভাড়া করেছিল সে। তাদের গুলিতেই মৃত্যু হয় কিশোরের ব্যবসায়ী বাবার। পুলিশ ওই তিন আততায়ীকে গ্রেপ্তার করে। আটক করা হয় ১৬ বছরের কিশোরকেও। তাকে জিজ্ঞাসা করে পুলিশ জানতে পারে, বাবার কাছে টাকা চেয়েছিল সে। তিনি পর্যাপ্ত টাকা দিতে রাজি না হওয়ায় এ খুনের পরিকল্পনা।

ঘটনাটি ভারতের উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড় এলাকার। মৃত ব্যবসায়ীর নাম মহম্মদ নইম (৫০)। তিনি সোনার দোকানের মালিক ছিলেন। বৃহস্পতিবার দুষ্কৃতদের গুলিতে তার মৃত্যু হয়। তাকে মারতে বাইকে করে তিন দুষ্কৃতকারী এসেছিল। তাদের গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আটককৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায়, তাদের এই খুনের জন্য ভাড়া করা হয়েছিল। ব্যবসায়ীর ছেলেই টাকার বিনিময়ে তাদের একাজ করতে বলেছিল। এর পরেই পুলিশ কিশোরকে আটক করে।

কিশোর পুলিশকে জানায়, বাবার কাছে কিছু টাকা চেয়েছিল সে। না পেয়ে খুন করার পরিকল্পনা করে। ভাড়াটে গুণ্ডাদের ছয় লাখ টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিল কিশোর। কাজের আগে অগ্রিম হিসাবে দেওয়া হয়েছিল দেড় লাখ টাকা। দুষ্কৃতকারীদের কিশোর জানিয়েছিল, বাবাকে খুন করতে পারলে বাকি টাকা দেবে।

তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, বাবার সোনার দোকান থেকে মাঝেমাঝেই ইচ্ছামতো টাকা চুরি করত সে। চাইলে বাবার কাছ থেকে টাকা পাওয়া যেত না। এই টাকার জন্যই আগেও সে বাবাকে খুনের পরিকল্পনা করে। কিন্তু একাধিক বার ব্যর্থ হয়েছে। জুভেনাইল কোর্টে কিশোরের বিচার হবে বলে জানান এএসপি দুর্গেশ কুমার সিং। আপাতত তাকে জুভেনাইল সেন্টারে রাখা হয়েছে।