০৮:৪৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গৌরীপুরে চাটাই ও কাপড়ের গোডাউনে আগুন  ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি 

  • সবুজ বাংলা
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৫:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩
  • 39
গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌর শহরের মাছুয়াকান্দা মহল্লায় বুধবার ১ নভেম্বর দিনগত রাত আনুমানিক ৩ টায় চাটাই ও কাপড়ের গোডাউনে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেন ঘর মালিক ও  গোডাউনের ভাড়াটিয়া রইছ উদ্দিন, আবুল কালাম, সুরুজ আলী ও আলআমিন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চাটাই ব্যবসায়ী ৩ জন স্থানীয় বাজার থেকে চাটাই ক্রয় করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে রপ্তানি করার জন্য উক্ত গোডাউনে চাটাই সংরক্ষণ করে রেখেছিলেন। অপরদিকে আরেক কাপড় ব্যাবসায়ী কাপড়ের গোডাউন হিসেবে একটি ঘড় ব্যবহার করতো।
এদিন রাত তিনটায় হঠাৎ গোডাউনে আগুন দেখতে পান স্থানীয়রা। শুকনো, দাহ্য বস্তু ও কাপর হওয়ায় মূহুর্তে আগুন ছড়িয়ে যায় পুরো গোডাউনে। এলাকাবাসীদের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। খবর পেয়ে তাউক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুটে আসে গৌরীপুর থানার পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- গৌরীপুর ফায়ার সার্ভিসকে তাৎক্ষণিক কল দিলেও মাত্র এক কিলোমিটার দূরত্বে আসতে তাদের একঘন্টার বেশি সময় লেগেছে। এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এ ব্যাপারে গৌরীপুর ফায়ার সার্ভিসের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
চাটাই ব্যবসায়ী রইছ উদ্দিন, আবুল কালাম, সুরুজ আলী এই তিনজন ব্যবসায়ী জানান তাদের তিনজনের প্রায় ৮ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
কাপড় ব্যবসায়ী আলআমিন জানান তার ৬ টি সেলাই মেশিনসহ প্রায় ২ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
গোডাউন মালিক মহব্বত আলী চৌধুরী জানান আগুনে তার গোডাউনটি সম্পুর্ন ভস্মীভূত হয়ে যায়। এতে প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফৌজিয়া নাজনিন, গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহেল রানা পাপ্পু  বুধবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

গৌরীপুরে চাটাই ও কাপড়ের গোডাউনে আগুন  ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি 

আপডেট সময় : ০৭:৩৫:৩৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২ নভেম্বর ২০২৩
গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
ময়মনসিংহের গৌরীপুর পৌর শহরের মাছুয়াকান্দা মহল্লায় বুধবার ১ নভেম্বর দিনগত রাত আনুমানিক ৩ টায় চাটাই ও কাপড়ের গোডাউনে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করেন ঘর মালিক ও  গোডাউনের ভাড়াটিয়া রইছ উদ্দিন, আবুল কালাম, সুরুজ আলী ও আলআমিন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, চাটাই ব্যবসায়ী ৩ জন স্থানীয় বাজার থেকে চাটাই ক্রয় করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে রপ্তানি করার জন্য উক্ত গোডাউনে চাটাই সংরক্ষণ করে রেখেছিলেন। অপরদিকে আরেক কাপড় ব্যাবসায়ী কাপড়ের গোডাউন হিসেবে একটি ঘড় ব্যবহার করতো।
এদিন রাত তিনটায় হঠাৎ গোডাউনে আগুন দেখতে পান স্থানীয়রা। শুকনো, দাহ্য বস্তু ও কাপর হওয়ায় মূহুর্তে আগুন ছড়িয়ে যায় পুরো গোডাউনে। এলাকাবাসীদের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। তবে আগুন লাগার কারণ জানা যায়নি। খবর পেয়ে তাউক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুটে আসে গৌরীপুর থানার পুলিশ।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- গৌরীপুর ফায়ার সার্ভিসকে তাৎক্ষণিক কল দিলেও মাত্র এক কিলোমিটার দূরত্বে আসতে তাদের একঘন্টার বেশি সময় লেগেছে। এতে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে এ ব্যাপারে গৌরীপুর ফায়ার সার্ভিসের কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
চাটাই ব্যবসায়ী রইছ উদ্দিন, আবুল কালাম, সুরুজ আলী এই তিনজন ব্যবসায়ী জানান তাদের তিনজনের প্রায় ৮ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
কাপড় ব্যবসায়ী আলআমিন জানান তার ৬ টি সেলাই মেশিনসহ প্রায় ২ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
গোডাউন মালিক মহব্বত আলী চৌধুরী জানান আগুনে তার গোডাউনটি সম্পুর্ন ভস্মীভূত হয়ে যায়। এতে প্রায় ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফৌজিয়া নাজনিন, গৌরীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মাহমুদুল হাসান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা সোহেল রানা পাপ্পু  বুধবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।