০১:৫১ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
ধর্ষণ ইস্যু

জাবির ঘটনায় উত্তাল ক্যাম্পাস

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) স্বামীকে হলরুমে আটকে রেখে এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বিভিন্ন উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে এবং ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে গতকাল জাবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ছাড়াও মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ হয়েছে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়েও। অন্যদিকে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে শিক্ষকের শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ে।
জাবিতে বিক্ষোভ : গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি এবং দ্রুত বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থীরা।
গতকার সোমবার বিকাল পৌনে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন কলাভবনের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিকাল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন কলাভবনের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি সড়ক প্রদক্ষিণ করে নতুন কলাভবনের সামনে এসে শেষ হয়। মানবন্ধনে শিক্ষার্থীরা ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি ও দ্রুত বিচারের দাবি জানান।
বুয়েটে মানববন্ধন : গতকাল সোমবার দুপুর দেড়টায় বুয়েট শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বুয়েটের একদল সাধারণ শিক্ষার্থীদের আয়োজনে মানববন্ধন করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা- ‘ক্যাম্পাসে সন্ত্রাস, ধর্ষণ বন্ধ করো, রুখে দাঁড়াও; সারা দেশে নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করো; এ বাংলার মাটিতে ধর্ষকদের ঠাই নাই; নারীদের উপর সহিংসতা বন্ধ করুন; স্টপ ভায়োলেন্স এগেইন্সে ওমেন’ ঝঃড়ঢ় ইত্যাদি প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রতিবাদ জানান। শিক্ষার্থীরা বলেন, ক্যাম্পাসে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা যেন না হয়, শুধু ক্যাম্পাস না, সারা দেশে যেনো নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা দরকার।
রাবিতে বিক্ষোভে ছাত্রলীগের বাধা: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো। এ সময় সরকার ও ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে স্লোগান দিলে, বিক্ষোভ মিছিলে বাধা দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। সোমবার দুপুর দেড়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান
ফটকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিদের মধ্যে প্রশাসনিক ভবনের সামনে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।
চবিতে আন্দোলন অব্যাহত: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) স্নাতকোত্তর পর্বের থিসিস করতে গিয়ে বিভাগের শিক্ষক কর্তৃক যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন একই বিভাগের এক ছাত্রী। সেই শিক্ষকের শাস্তিসহ দুই দাবিতে তৃতীয় দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো অভিযুক্ত শিক্ষককে স্থায়ী বহিষ্কার করতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করতে হবে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বিল্ডিং এর সামনে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা।
এর আগে, রসায়ন বিভাগের এক অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ৩১ জানুয়ারি উপাচার্য বরাবর অভিযোগপত্র দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী। অভিযোগে বলা হয়, থিসিস চলাকালীন সুপারভাইজার (অধ্যাপক) কর্তৃক যৌন হয়রানি ও নিপীড়নের শিকার হন তিনি। ল্যাবে একা কাজ করার সময় এবং কেমিকেল দেওয়ার বাহানায় নিজ কক্ষে ডেকে দরজা আটকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন ওই শিক্ষক।

 

 

 

স/ম

ধর্ষণ ইস্যু

জাবির ঘটনায় উত্তাল ক্যাম্পাস

আপডেট সময় : ১১:৫৩:১৬ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) স্বামীকে হলরুমে আটকে রেখে এক নারীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনার প্রতিবাদে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে বিভিন্ন উচ্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে এবং ধর্ষকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে গতকাল জাবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ ছাড়াও মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। বিক্ষোভ হয়েছে রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়েও। অন্যদিকে শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে শিক্ষকের শাস্তি দাবিতে বিক্ষোভ হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ^বিদ্যালয়ে।
জাবিতে বিক্ষোভ : গৃহবধূকে দলবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি এবং দ্রুত বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ^বিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থীরা।
গতকার সোমবার বিকাল পৌনে ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন কলাভবনের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিকাল ৪টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন কলাভবনের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি সড়ক প্রদক্ষিণ করে নতুন কলাভবনের সামনে এসে শেষ হয়। মানবন্ধনে শিক্ষার্থীরা ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি ও দ্রুত বিচারের দাবি জানান।
বুয়েটে মানববন্ধন : গতকাল সোমবার দুপুর দেড়টায় বুয়েট শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে বুয়েটের একদল সাধারণ শিক্ষার্থীদের আয়োজনে মানববন্ধন করা হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা- ‘ক্যাম্পাসে সন্ত্রাস, ধর্ষণ বন্ধ করো, রুখে দাঁড়াও; সারা দেশে নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করো; এ বাংলার মাটিতে ধর্ষকদের ঠাই নাই; নারীদের উপর সহিংসতা বন্ধ করুন; স্টপ ভায়োলেন্স এগেইন্সে ওমেন’ ঝঃড়ঢ় ইত্যাদি প্ল্যাকার্ড নিয়ে প্রতিবাদ জানান। শিক্ষার্থীরা বলেন, ক্যাম্পাসে এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা যেন না হয়, শুধু ক্যাম্পাস না, সারা দেশে যেনো নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা দরকার।
রাবিতে বিক্ষোভে ছাত্রলীগের বাধা: জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্ষণের ঘটনায় জড়িতদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলো। এ সময় সরকার ও ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে স্লোগান দিলে, বিক্ষোভ মিছিলে বাধা দেয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। সোমবার দুপুর দেড়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান
ফটকে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও প্রগতিশীল ছাত্র সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিদের মধ্যে প্রশাসনিক ভবনের সামনে বাকবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে বলে জানা গেছে।
চবিতে আন্দোলন অব্যাহত: চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) স্নাতকোত্তর পর্বের থিসিস করতে গিয়ে বিভাগের শিক্ষক কর্তৃক যৌন হয়রানির শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন একই বিভাগের এক ছাত্রী। সেই শিক্ষকের শাস্তিসহ দুই দাবিতে তৃতীয় দিনের মতো অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের দাবিগুলো হলো অভিযুক্ত শিক্ষককে স্থায়ী বহিষ্কার করতে হবে এবং বিশ্ববিদ্যালয় বাদী হয়ে মামলা দায়ের করতে হবে। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে নয়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বিল্ডিং এর সামনে অবস্থান নেন শিক্ষার্থীরা।
এর আগে, রসায়ন বিভাগের এক অধ্যাপকের বিরুদ্ধে ৩১ জানুয়ারি উপাচার্য বরাবর অভিযোগপত্র দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী। অভিযোগে বলা হয়, থিসিস চলাকালীন সুপারভাইজার (অধ্যাপক) কর্তৃক যৌন হয়রানি ও নিপীড়নের শিকার হন তিনি। ল্যাবে একা কাজ করার সময় এবং কেমিকেল দেওয়ার বাহানায় নিজ কক্ষে ডেকে দরজা আটকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন ওই শিক্ষক।

 

 

 

স/ম