০৭:৪৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারায়ণগঞ্জে কিশোর গ্যাং লিডার ফাহিম সহ আটক ৩

  • সবুজ বাংলা
  • আপডেট সময় : ০৭:৩৩:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩
  • 32

নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর মডেল থানাধীন খানপুরস্থ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের ভিতর ডক্টরস্ কোয়ার্টারস (বেলী) এর বাম পাশে খালি জায়গা থেকে ৮ নভেম্বর কিশোর গ্যাং লিডার ফাহিমসহ ৩ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-১১ এর একটি টিম। তবে এসময় পালিয়ে যায় ওই চক্রের আরো ৩ সদস্য। আটককৃতরা হলো, কিশোর গ্যাং চক্রের লীডার খানপুর ব্রাঞ্চরোডের বাসিন্দা মোঃ মহসিন মিয়ার পুত্র মোঃ ফাহিম (২৪), ভোলাইল বকুলতলা এলাকার মোঃ বেলায়েত হোসেনের পুত্র সিয়াম হোসেন (১৯) এবং খানপুর ব্রাঞ্চ রোডের মৃত মুকুল মিয়ার পুত্র আহাদুল ইসলাম ফাহিম (২৪)। এসময় তাদের নিকট থেকে ১ টি সুইচ গিয়ার, ২ টি লোহার পাইপ উদ্ধার ও ২ টি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। তবে ঘটনাস্থলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেছে মৃত রমজান আলীর পুত্র সিফাত (২৬), মহসিনের পুত্র অনিক (২৪) ও মোঃ আলমের পুত্র আদর আলী (১৯)।

৯ নভেম্বর বিকেলে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানা যায় যে, কতিপয় দুষ্কৃতিকারীদল পরিকল্পিতভাবে গুরুতর ধর্তব্য অপরাধ সংঘটন করার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর মডেল থানাধীন খানপুরস্থ’ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের ভিতর ডক্টরস্ কোয়ার্টারস (বেলী) এর বাম পাশে খালি জায়গায় অবস্থান করছে। এরই সূত্র ধরে গত ৮ নভেম্বর অভিযানটি পরিচালিত হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, আটককৃত আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও রাস্তা ঘাটে পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে অস্ত্রসস্ত্রের মহড়া ও দাপট প্রদর্শন করে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিশৃঙ্খলা এবং অরাজকতা পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। তারা জনমনে ত্রাসের সৃষ্টির মাধ্যমে জনসাধারণের নিকট হতে চাঁদাদাবী করে। এলাকাবাসী তাদের হিংস্রতা, অত্যাচার ও নির্যাতনের ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। তারা দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পিতভাবে ছিনতাই ও চাঁদা দাবীর উদ্দেশ্যে দলগতভাবে শক্তির মহড়া, দাপট প্রদর্শনসহ গুরুতর ধর্তব্য অপরাধ সংঘটন করে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা এলাকাসহ আশপাশ এলাকায় দলবদ্ধ হয়ে জনমনে ভয়ভীতি ও ত্রাস সৃষ্টি করে ছিনতাই এবং বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সৃষ্টির মাধ্যমে আইন শৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটিয়ে আসছে। আটককৃত আসামী কিশোর গ্যাং সদস্যদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা মডেল থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জে কিশোর গ্যাং লিডার ফাহিম সহ আটক ৩

আপডেট সময় : ০৭:৩৩:৩২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ নভেম্বর ২০২৩

নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর মডেল থানাধীন খানপুরস্থ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের ভিতর ডক্টরস্ কোয়ার্টারস (বেলী) এর বাম পাশে খালি জায়গা থেকে ৮ নভেম্বর কিশোর গ্যাং লিডার ফাহিমসহ ৩ জনকে আটক করেছে র‌্যাব-১১ এর একটি টিম। তবে এসময় পালিয়ে যায় ওই চক্রের আরো ৩ সদস্য। আটককৃতরা হলো, কিশোর গ্যাং চক্রের লীডার খানপুর ব্রাঞ্চরোডের বাসিন্দা মোঃ মহসিন মিয়ার পুত্র মোঃ ফাহিম (২৪), ভোলাইল বকুলতলা এলাকার মোঃ বেলায়েত হোসেনের পুত্র সিয়াম হোসেন (১৯) এবং খানপুর ব্রাঞ্চ রোডের মৃত মুকুল মিয়ার পুত্র আহাদুল ইসলাম ফাহিম (২৪)। এসময় তাদের নিকট থেকে ১ টি সুইচ গিয়ার, ২ টি লোহার পাইপ উদ্ধার ও ২ টি মোটরসাইকেল জব্দ করা হয়। তবে ঘটনাস্থলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেছে মৃত রমজান আলীর পুত্র সিফাত (২৬), মহসিনের পুত্র অনিক (২৪) ও মোঃ আলমের পুত্র আদর আলী (১৯)।

৯ নভেম্বর বিকেলে র‌্যাব-১১, সিপিসি-১ এর ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কাজী শাহাবুদ্দিন আহমেদ এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানা যায় যে, কতিপয় দুষ্কৃতিকারীদল পরিকল্পিতভাবে গুরুতর ধর্তব্য অপরাধ সংঘটন করার জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর মডেল থানাধীন খানপুরস্থ’ ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের ভিতর ডক্টরস্ কোয়ার্টারস (বেলী) এর বাম পাশে খালি জায়গায় অবস্থান করছে। এরই সূত্র ধরে গত ৮ নভেম্বর অভিযানটি পরিচালিত হয়। প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, আটককৃত আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও রাস্তা ঘাটে পরিকল্পিতভাবে দলবদ্ধ হয়ে অস্ত্রসস্ত্রের মহড়া ও দাপট প্রদর্শন করে ভয়ভীতি দেখিয়ে বিশৃঙ্খলা এবং অরাজকতা পরিস্থিতি সৃষ্টি করে। তারা জনমনে ত্রাসের সৃষ্টির মাধ্যমে জনসাধারণের নিকট হতে চাঁদাদাবী করে। এলাকাবাসী তাদের হিংস্রতা, অত্যাচার ও নির্যাতনের ভয়ে প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। তারা দীর্ঘদিন ধরে পরিকল্পিতভাবে ছিনতাই ও চাঁদা দাবীর উদ্দেশ্যে দলগতভাবে শক্তির মহড়া, দাপট প্রদর্শনসহ গুরুতর ধর্তব্য অপরাধ সংঘটন করে নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা এলাকাসহ আশপাশ এলাকায় দলবদ্ধ হয়ে জনমনে ভয়ভীতি ও ত্রাস সৃষ্টি করে ছিনতাই এবং বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি সৃষ্টির মাধ্যমে আইন শৃঙ্খলার বিঘ্ন ঘটিয়ে আসছে। আটককৃত আসামী কিশোর গ্যাং সদস্যদের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা মডেল থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে।