১০:১১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামে মায়ের মামলায় ছেলে কারাগারে 

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে এক মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা-মা।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (২৯ নভেম্বর) সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা আগটারী এলাকায়। মাদকাসক্ত ছেলের নাম মোস্তাফিজার রহমান (২৯)। তিনি ওই এলাকার আব্দুর রহমান ও আন্জুয়ারা বেগম দম্পতির ছেলে।

ফুলবাড়ী থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, মাদকাসক্ত ছেলে মোস্তাফিজার রহমান প্রতিদিন নেশার টাকার জন্য বাবা-মাকে চাপ প্রয়োগ করতো। নেশার টাকা না দিলে প্রায় সময় তার বাবা-মাকে মারপিট করতো। এমনি বাড়িতে হাঁড়িপাতিলসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর করে আসছে। তার অত্যাচারে বাবা-মাসহ পরিবারের সবাই অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে।

এরই একপর্যায়ে বুধবার সকালে বাবা-মার কাছে টাকা দাবী করেন। বাবা-মা টাকা না দেওয়ায় বাবা-মাকে মারপিট করে এবং বাড়ীর আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর করলে পরিবারের লোকজন ফুলবাড়ী থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজন মাদকাসক্ত মোস্তাফিজুর রহমানকে পুলিশে সোর্পদ করে।

দুপুরে ফুলবাড়ী থানায় উপস্থিত হয়ে মা আনজুয়ারা বেগম বাদী ছেলে মোস্তাফিজার রহমানের বিরুদ্ধে মারপিট ও ভাঙচুরের অপরাধে মামলা দায়ের করে।

বাবা আব্দুর রহমান ও মা আনজুয়ারা বেগম বলেন, সে প্রতিদিন নেশার টাকার জন্য চাপ দিতো। টাকা না দিলে সে আমাদের উপর মারপিট করে নির্যাতন করতো। এমনকি বাড়ীতে দামী দামী আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর করতো। আমরা তার অত্যাচারে বাড়ীর সবাই অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। তাই বাধ্য হয়েই তাকে পুলিশে সোর্পদ করেছি।

ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রাণকৃষ্ণ দেবনাথ জানান, প্রতিদিন নেশা করার জন্য টাকা দাবী করতো। নেশা করার টাকা না দিয়ে বাবা-মাকে সে প্রায় সময় মারপিটসহ বাসার প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভাঙচুর করতো। তার এই পাশবিক কর্মকান্ডে বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে পড়ায় মাদকাসক্ত ছেলে মোস্তাফিজুরের বিরুদ্ধে মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। বুধবার দুপুরে মাদকাসক্ত মোস্তাফিজুরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

কুড়িগ্রামে মায়ের মামলায় ছেলে কারাগারে 

আপডেট সময় : ০৫:৪১:২৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৯ নভেম্বর ২০২৩
কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে এক মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা-মা।

ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার (২৯ নভেম্বর) সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের চন্দ্রখানা আগটারী এলাকায়। মাদকাসক্ত ছেলের নাম মোস্তাফিজার রহমান (২৯)। তিনি ওই এলাকার আব্দুর রহমান ও আন্জুয়ারা বেগম দম্পতির ছেলে।

ফুলবাড়ী থানা পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, মাদকাসক্ত ছেলে মোস্তাফিজার রহমান প্রতিদিন নেশার টাকার জন্য বাবা-মাকে চাপ প্রয়োগ করতো। নেশার টাকা না দিলে প্রায় সময় তার বাবা-মাকে মারপিট করতো। এমনি বাড়িতে হাঁড়িপাতিলসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর করে আসছে। তার অত্যাচারে বাবা-মাসহ পরিবারের সবাই অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে।

এরই একপর্যায়ে বুধবার সকালে বাবা-মার কাছে টাকা দাবী করেন। বাবা-মা টাকা না দেওয়ায় বাবা-মাকে মারপিট করে এবং বাড়ীর আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর করলে পরিবারের লোকজন ফুলবাড়ী থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে ফুলবাড়ী থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজন মাদকাসক্ত মোস্তাফিজুর রহমানকে পুলিশে সোর্পদ করে।

দুপুরে ফুলবাড়ী থানায় উপস্থিত হয়ে মা আনজুয়ারা বেগম বাদী ছেলে মোস্তাফিজার রহমানের বিরুদ্ধে মারপিট ও ভাঙচুরের অপরাধে মামলা দায়ের করে।

বাবা আব্দুর রহমান ও মা আনজুয়ারা বেগম বলেন, সে প্রতিদিন নেশার টাকার জন্য চাপ দিতো। টাকা না দিলে সে আমাদের উপর মারপিট করে নির্যাতন করতো। এমনকি বাড়ীতে দামী দামী আসবাবপত্রসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর করতো। আমরা তার অত্যাচারে বাড়ীর সবাই অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছি। তাই বাধ্য হয়েই তাকে পুলিশে সোর্পদ করেছি।

ফুলবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রাণকৃষ্ণ দেবনাথ জানান, প্রতিদিন নেশা করার জন্য টাকা দাবী করতো। নেশা করার টাকা না দিয়ে বাবা-মাকে সে প্রায় সময় মারপিটসহ বাসার প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভাঙচুর করতো। তার এই পাশবিক কর্মকান্ডে বাবা-মাসহ পরিবারের লোকজন অতিষ্ঠ হয়ে পড়ায় মাদকাসক্ত ছেলে মোস্তাফিজুরের বিরুদ্ধে মা বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। বুধবার দুপুরে মাদকাসক্ত মোস্তাফিজুরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।