১০:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ফিলিস্তিন নিয়ে বাজে মন্তব্য করার পদ হারালেন কানাডার মন্ত্রী

ফিলিস্তিন নিয়ে বিতর্কিত ও বেফাঁস মন্তব্য করে পদ হারিয়েছেন কানাডার পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার প্রাদেশিক সরকারের শিক্ষামন্ত্রী সেলিনা রবিনসন। সোমবার তিনি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

গত সপ্তাহে এক অনুষ্ঠানে সেলিনা বলেছিলেন, আধুনিক ইসরায়েল খুবই বাজে একটি ভূখণ্ডের ওপর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তার এই মন্তব্যে কানাডার ফিলিস্তিনপন্থীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয় এবং বিভিন্নভাবে তা তারা প্রকাশও করা শুরু করেন।

রোববার এক বিবৃতিতে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার মুখ্যমন্ত্রী ডেভিড ইবি বলেছিলেন, ‘আমি সেলিনা রবিনসনের সঙ্গে বৈঠক করেছি। তিনি স্বীকার করেছেন যে তার ওই মন্তব্য ভুল ছিল এবং তিনি অনুতপ্ত।’

তার পরের দিনই পদত্যাগপত্র জমা দেন সেলিনা, যিনি নিজে একজন ইহুদি ধর্মাবলম্বী। তবে মন্ত্রিত্ব ছাড়লেও প্রাদেশিক আইনসভায় তার সদস্যপদ বহাল থাকবে বলে জানা গেছে।

১৯৪৮ সালে ফিলিস্তিন ভূখণ্ডের বড় একটি অংশ দখল করে গঠিত হয় ইসরায়েল রাষ্ট্র। গত শতকের ষাটের দশকে ওই ভূখণ্ডে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন নামের দু’টি স্বাধীন রাষ্ট্রের চুক্তি হয়েছিল। দুই রাষ্ট্রের সীমানাও নির্ধারণ করা হয়েছিল; কিন্তু কার্যক্ষেত্রে সেই চুক্তি বা সীমানা কোনাটাই মানেনি ইসরায়েল।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের ইরেজ সীমান্তে অতর্কিত হামলা চলায় ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস। সেই হামলায় ইসরায়েলে নিহত হয়েছিলেন ১ হাজার ২০০ ফিলিস্তিনি ও বিদেশি নাগরিক। সেই সঙ্গে ২৪০ জন ইসরায়েলি ও বিদেশি নাগরিককে জিম্মি হিসেবে ধরে নিয়ে যায় হামাস।

জবাবে সেদিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। সেই অভিযানে নিহতের সংখ্যা ইতোমধ্যে ২৭ হাজার ছাড়িয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স

 

 

 

স/ম

ফিলিস্তিন নিয়ে বাজে মন্তব্য করার পদ হারালেন কানাডার মন্ত্রী

আপডেট সময় : ০২:৪২:২৯ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

ফিলিস্তিন নিয়ে বিতর্কিত ও বেফাঁস মন্তব্য করে পদ হারিয়েছেন কানাডার পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার প্রাদেশিক সরকারের শিক্ষামন্ত্রী সেলিনা রবিনসন। সোমবার তিনি পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

গত সপ্তাহে এক অনুষ্ঠানে সেলিনা বলেছিলেন, আধুনিক ইসরায়েল খুবই বাজে একটি ভূখণ্ডের ওপর প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তার এই মন্তব্যে কানাডার ফিলিস্তিনপন্থীদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয় এবং বিভিন্নভাবে তা তারা প্রকাশও করা শুরু করেন।

রোববার এক বিবৃতিতে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার মুখ্যমন্ত্রী ডেভিড ইবি বলেছিলেন, ‘আমি সেলিনা রবিনসনের সঙ্গে বৈঠক করেছি। তিনি স্বীকার করেছেন যে তার ওই মন্তব্য ভুল ছিল এবং তিনি অনুতপ্ত।’

তার পরের দিনই পদত্যাগপত্র জমা দেন সেলিনা, যিনি নিজে একজন ইহুদি ধর্মাবলম্বী। তবে মন্ত্রিত্ব ছাড়লেও প্রাদেশিক আইনসভায় তার সদস্যপদ বহাল থাকবে বলে জানা গেছে।

১৯৪৮ সালে ফিলিস্তিন ভূখণ্ডের বড় একটি অংশ দখল করে গঠিত হয় ইসরায়েল রাষ্ট্র। গত শতকের ষাটের দশকে ওই ভূখণ্ডে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন নামের দু’টি স্বাধীন রাষ্ট্রের চুক্তি হয়েছিল। দুই রাষ্ট্রের সীমানাও নির্ধারণ করা হয়েছিল; কিন্তু কার্যক্ষেত্রে সেই চুক্তি বা সীমানা কোনাটাই মানেনি ইসরায়েল।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলের ইরেজ সীমান্তে অতর্কিত হামলা চলায় ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা নিয়ন্ত্রণকারী গোষ্ঠী হামাস। সেই হামলায় ইসরায়েলে নিহত হয়েছিলেন ১ হাজার ২০০ ফিলিস্তিনি ও বিদেশি নাগরিক। সেই সঙ্গে ২৪০ জন ইসরায়েলি ও বিদেশি নাগরিককে জিম্মি হিসেবে ধরে নিয়ে যায় হামাস।

জবাবে সেদিন থেকেই গাজায় অভিযান শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। সেই অভিযানে নিহতের সংখ্যা ইতোমধ্যে ২৭ হাজার ছাড়িয়েছে।

সূত্র : রয়টার্স

 

 

 

স/ম