০৯:০৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খাগড়াছড়িতে বৈসাবি ও বাংলা নববর্ষ-পালনে প্রস্তুতি  সভা

পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী বৈসু, সাংগ্রাইং, বিঝু (মধ্যাক্ষর বৈসাবি) ও বাংলা নববর্ষ-পালনে প্রস্তুতি মূলক সভা হয়েছে। বৃহস্পতিবার জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্বের বক্তব্যে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী বলেন, পাহাড়ের ঐতিহ্যবাহী এই উৎসকে আরও প্রাণবন্ত করতে সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করে আয়োজনের নানা দিক তুলে ধরেন ও দিক নির্দেশনা, প্রস্তুতি, উপস্থিতি, র‌্যালিসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।

 

সভায় জানানো হয়,বর্ণাঢ্য র‌্যালির মাধ্যমে বৈসাবি’র আনন্দঘন এ উৎসবমুখর আয়োজন চলবে ৫ এপ্রিল থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ৫ এপ্রিল সকাল ৯ টায় খাগড়াছড়ি টাউন হল থেকে র‌্যালী শুরু হয়ে প্রধান সড়ক ঘুরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটে এসে শেষ হবে। এছাড়া বৈসাবি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা খেলাধুলা থেকে শুরু করে নানা আয়োজন থাকবে এ উৎসবকে ঘিরে।

 

সভায় শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কৃষ্ণ চন্দ্র চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন চৌধুরী, খাগড়াছড়ি রিজিয়নের প্রতিনিধি (ডিকিউ) মেজর রেজাউল করিম, জেলা পরিষদের  নির্বাহী কর্মকর্তা টিটন খীসা, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি  সহকারী কমিশনার এস. এম নুরুন্নবী, খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দিন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ সদস্য কল্যাণ মিত্র বড়ুয়া, নিলোৎপল খীসা, খোকনেশ্বর ত্রিপুরা, হিরণ জয় ত্রিপুরা, ক্যজরী মারমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা কর্মকর্তা মো. সাইফুল্লাহ ও জনসংযোগ কর্মকর্তা চিংলামং চৌধুরী, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

খাগড়াছড়িতে বৈসাবি ও বাংলা নববর্ষ-পালনে প্রস্তুতি  সভা

আপডেট সময় : ০৪:৩৬:৪৪ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৮ মার্চ ২০২৪

পার্বত্য চট্টগ্রামের ঐতিহ্যবাহী বৈসু, সাংগ্রাইং, বিঝু (মধ্যাক্ষর বৈসাবি) ও বাংলা নববর্ষ-পালনে প্রস্তুতি মূলক সভা হয়েছে। বৃহস্পতিবার জেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্বের বক্তব্যে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী বলেন, পাহাড়ের ঐতিহ্যবাহী এই উৎসকে আরও প্রাণবন্ত করতে সকলের সহযোগিতা প্রত্যাশা করে আয়োজনের নানা দিক তুলে ধরেন ও দিক নির্দেশনা, প্রস্তুতি, উপস্থিতি, র‌্যালিসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।

 

সভায় জানানো হয়,বর্ণাঢ্য র‌্যালির মাধ্যমে বৈসাবি’র আনন্দঘন এ উৎসবমুখর আয়োজন চলবে ৫ এপ্রিল থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত। ৫ এপ্রিল সকাল ৯ টায় খাগড়াছড়ি টাউন হল থেকে র‌্যালী শুরু হয়ে প্রধান সড়ক ঘুরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটে এসে শেষ হবে। এছাড়া বৈসাবি উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা খেলাধুলা থেকে শুরু করে নানা আয়োজন থাকবে এ উৎসবকে ঘিরে।

 

সভায় শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কৃষ্ণ চন্দ্র চাকমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের মুখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা সুমন চৌধুরী, খাগড়াছড়ি রিজিয়নের প্রতিনিধি (ডিকিউ) মেজর রেজাউল করিম, জেলা পরিষদের  নির্বাহী কর্মকর্তা টিটন খীসা, খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি  সহকারী কমিশনার এস. এম নুরুন্নবী, খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দিন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ সদস্য কল্যাণ মিত্র বড়ুয়া, নিলোৎপল খীসা, খোকনেশ্বর ত্রিপুরা, হিরণ জয় ত্রিপুরা, ক্যজরী মারমা, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদের পরিষদের প্রশাসনিক কর্মকর্তা কর্মকর্তা মো. সাইফুল্লাহ ও জনসংযোগ কর্মকর্তা চিংলামং চৌধুরী, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।