০৯:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে সৈয়দপুর রপ্তানীমুখি ক্ষুদ্র গার্মেন্টস মালিক গ্রুপের সংবাদ সম্মেলন

রপ্তানীমুখি ক্ষুদ্র গার্মেন্টস ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে চঁাদা দাবি ও হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে সৈয়দপুরে মৎস্যজীবী লীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। গতকাল বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন সৈয়দপুর রপ্তানীমুখি ক্ষুদ্র গার্মেন্টস মালিক গ্রুপ। ওই নেতার নাম জুয়েল সরকার।
তিনি মৎস্যজীবী লীগ নীলফামারী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাহিন হোসেন বলেন, রেমিটেন্স যোদ্ধা ও রপ্তানিকারক ক্ষুদ্র গার্মেন্টস ব্যবসায়ী ফাইয়াজুল হক সাজুর পৈত্রিক জমি জবর দখল করে মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ  সম্পাদক জুয়েল সরকার বহুতল ভবন নির্মাণ করছেন। ভবন নির্মাণে আদালতের নিষেধাজ্ঞাও রয়েছে। তারপরেও তিনি তার কাজ নির্বিঘ্নে চলে যাচ্ছেন।
এ নির্মাণ কাজের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেন ওই জমির অংশীদার ও ব্যবসায়ী ফাইয়াজুল হক সাজু। ফলে প্রতিবাদী ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে জুয়েল সরকার সৈয়দপুর থানায় উল্টো সাজানো মামলা করে হয়রানি করে আসছে। এতে করে  প্তানিকারক ওই ব্যবসায়ীর ব্যবসায়ে ধস নামায় বৈদেশিক মুদ্রা আসাও সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে তার ফ্যাক্টরীতে কর্মরত ৪০০ শ্রমিক কর্মচারী বেকার হতে চলেছে। এমন অবস্থা থেকে ওই ব্যবসায়ী ও তার  পরিবারকে স্বাভাবিক জীবন যাপনে প্রশাসনসহ সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করা হয় ওই সংবাদ সম্মেলন থেকে।
এদিনের সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য বলেন সংগঠনের সভাপতি ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর আকতার হোসেন খান, সাবেক পৌর কাউন্সিলর শেখ মোহন,
ব্যবসায়ী ফাইয়াজুল হক সাজু, বিশিষ্টজন ইলিয়াস হোসেন প্রামানিক, ব্যবসায়ীর মা মর্জিনা বেগম।
জনপ্রিয় সংবাদ

সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে সৈয়দপুর রপ্তানীমুখি ক্ষুদ্র গার্মেন্টস মালিক গ্রুপের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট সময় : ০৫:২৭:৩৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ৩ এপ্রিল ২০২৪
রপ্তানীমুখি ক্ষুদ্র গার্মেন্টস ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে চঁাদা দাবি ও হত্যার হুমকির অভিযোগ উঠেছে সৈয়দপুরে মৎস্যজীবী লীগের এক নেতার বিরুদ্ধে। গতকাল বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন সৈয়দপুর রপ্তানীমুখি ক্ষুদ্র গার্মেন্টস মালিক গ্রুপ। ওই নেতার নাম জুয়েল সরকার।
তিনি মৎস্যজীবী লীগ নীলফামারী জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শাহিন হোসেন বলেন, রেমিটেন্স যোদ্ধা ও রপ্তানিকারক ক্ষুদ্র গার্মেন্টস ব্যবসায়ী ফাইয়াজুল হক সাজুর পৈত্রিক জমি জবর দখল করে মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ  সম্পাদক জুয়েল সরকার বহুতল ভবন নির্মাণ করছেন। ভবন নির্মাণে আদালতের নিষেধাজ্ঞাও রয়েছে। তারপরেও তিনি তার কাজ নির্বিঘ্নে চলে যাচ্ছেন।
এ নির্মাণ কাজের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেন ওই জমির অংশীদার ও ব্যবসায়ী ফাইয়াজুল হক সাজু। ফলে প্রতিবাদী ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে জুয়েল সরকার সৈয়দপুর থানায় উল্টো সাজানো মামলা করে হয়রানি করে আসছে। এতে করে  প্তানিকারক ওই ব্যবসায়ীর ব্যবসায়ে ধস নামায় বৈদেশিক মুদ্রা আসাও সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে তার ফ্যাক্টরীতে কর্মরত ৪০০ শ্রমিক কর্মচারী বেকার হতে চলেছে। এমন অবস্থা থেকে ওই ব্যবসায়ী ও তার  পরিবারকে স্বাভাবিক জীবন যাপনে প্রশাসনসহ সকল মহলের সহযোগিতা কামনা করা হয় ওই সংবাদ সম্মেলন থেকে।
এদিনের সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য বলেন সংগঠনের সভাপতি ও সাবেক পৌর কাউন্সিলর আকতার হোসেন খান, সাবেক পৌর কাউন্সিলর শেখ মোহন,
ব্যবসায়ী ফাইয়াজুল হক সাজু, বিশিষ্টজন ইলিয়াস হোসেন প্রামানিক, ব্যবসায়ীর মা মর্জিনা বেগম।