০৫:২৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আংশিকের ২২ মাস পর ইবি ছাত্রলীগের পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন 

দীর্ঘ ৮ বছর পর পুর্নাঙ্গ কমিটির দেখা পেলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগ। শুক্রবার (১০ মে) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি হোসেন সাদ্দাম ও শেখ ওয়ালি আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ইবি শাখা ছাত্রলীগের পুর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

১৯৯ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তন্ময় সাহা টনি, মো. আল মামুন, নাইমুল ইসলাম জয়, বনি আমিন, মৃদুল হাসান রাব্বি, সোহানুর রহমান সিদ্দিকী সহ মোট ৭১ জন সহ-সভাপতি,  মুজাহিদুল ইসলাম, হুসাইন মজুমদার, মেহেদী হাসান হাফিজ, শাহিন আলম, তরিকুল ইসলাম তরুন সহ ১১ জন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, জাকির হোসেন, সোহাগ শেখ, মেজবাহুল ইসলামসহ ১১ জনকে সাংগঠনিক সম্পাদক মনোনীত করা হয়েছে।

নতুন কমিটির দপ্তর সম্পাদক হিসেবে কামাল হোসেন,  প্রচার সম্পাদক হিসেবে নাবিল হাসান ইমন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আশিক হোসেন, বিভিন্ন সম্পাদক ও উপসম্পাদক পদে মোট ৮২ জন কর্মীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও পূর্ণাঙ্গ কমিটির সহ-সম্পাদক হিসেবে আছেন ১৫ জন ও সদস্য হিসেবে ৭ জনকে মনোনীত করা হয়েছে।

শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয় বলেন, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পরে ইবি শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন পেয়েছে। আমরা ইবি শাখা ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মী অন্তরের অন্তস্থল থেকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি এবং বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদকের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আগামী দিন গুলোতে ইবি শাখা ছাত্রলীগ কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী আরো সুন্দর ও স্পৃহা নিয়ে কাজ করবে বলে প্রত্যাশা করছি।

শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত বলেন, সাংগঠনিক একটি পরিচয় পাওয়া প্রতিটি কর্মীর জন্য একটি গর্বের বিষয়। সকল ষড়যন্ত্র ভেঙ্গে দীর্ঘ ৮ বছর পরে যে ইবি শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা একটি পরিচয় পেয়েছে, এতে কর্মীদের চেয়ে আমরাই বেশি খুশি। ইবি শাখা ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে আমি ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাই।

এর আগে, ২০২২ সালের ৩১ জুলাই রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তৎকালীন সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ইবি শাখা ছাত্রলীগের ২৪ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়। কমিটি গঠনের এক বছর দশ মাস পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করলো ইবি শাখা ছাত্রলীগ।

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় কতটুকু প্রস্তুত পবিপ্রবি?

আংশিকের ২২ মাস পর ইবি ছাত্রলীগের পুর্নাঙ্গ কমিটি গঠন 

আপডেট সময় : ০৯:৩৫:৩০ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪

দীর্ঘ ৮ বছর পর পুর্নাঙ্গ কমিটির দেখা পেলো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগ। শুক্রবার (১০ মে) রাত সাড়ে ১০ টার দিকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি হোসেন সাদ্দাম ও শেখ ওয়ালি আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ইবি শাখা ছাত্রলীগের পুর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

১৯৯ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে তন্ময় সাহা টনি, মো. আল মামুন, নাইমুল ইসলাম জয়, বনি আমিন, মৃদুল হাসান রাব্বি, সোহানুর রহমান সিদ্দিকী সহ মোট ৭১ জন সহ-সভাপতি,  মুজাহিদুল ইসলাম, হুসাইন মজুমদার, মেহেদী হাসান হাফিজ, শাহিন আলম, তরিকুল ইসলাম তরুন সহ ১১ জন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, জাকির হোসেন, সোহাগ শেখ, মেজবাহুল ইসলামসহ ১১ জনকে সাংগঠনিক সম্পাদক মনোনীত করা হয়েছে।

নতুন কমিটির দপ্তর সম্পাদক হিসেবে কামাল হোসেন,  প্রচার সম্পাদক হিসেবে নাবিল হাসান ইমন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আশিক হোসেন, বিভিন্ন সম্পাদক ও উপসম্পাদক পদে মোট ৮২ জন কর্মীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও পূর্ণাঙ্গ কমিটির সহ-সম্পাদক হিসেবে আছেন ১৫ জন ও সদস্য হিসেবে ৭ জনকে মনোনীত করা হয়েছে।

শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাসিম আহমেদ জয় বলেন, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পরে ইবি শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন পেয়েছে। আমরা ইবি শাখা ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মী অন্তরের অন্তস্থল থেকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সংগ্রামী সভাপতি এবং বিপ্লবী সাধারণ সম্পাদকের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। আগামী দিন গুলোতে ইবি শাখা ছাত্রলীগ কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী আরো সুন্দর ও স্পৃহা নিয়ে কাজ করবে বলে প্রত্যাশা করছি।

শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিদ্দিকী আরাফাত বলেন, সাংগঠনিক একটি পরিচয় পাওয়া প্রতিটি কর্মীর জন্য একটি গর্বের বিষয়। সকল ষড়যন্ত্র ভেঙ্গে দীর্ঘ ৮ বছর পরে যে ইবি শাখা ছাত্রলীগের কর্মীরা একটি পরিচয় পেয়েছে, এতে কর্মীদের চেয়ে আমরাই বেশি খুশি। ইবি শাখা ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে আমি ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানাই।

এর আগে, ২০২২ সালের ৩১ জুলাই রাতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের তৎকালীন সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ইবি শাখা ছাত্রলীগের ২৪ সদস্য বিশিষ্ট আংশিক কমিটির অনুমোদন দেওয়া হয়। কমিটি গঠনের এক বছর দশ মাস পর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করলো ইবি শাখা ছাত্রলীগ।