০১:৪৫ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কুড়িগ্রামে মাছের গায়ে লেখা আল্লাহু, একনজর দেখতে জনতার ভিড়

কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার একটি পুকুর থেকে তোলা মাছের মধ্যে একটি মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা দেখা গেছে। মাছটি দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় করছে সেখানে।

রোববার (১৯ নভেম্বর) সকালে মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। এর আগে রোববার সকালে উপজেলার চাকিরপশা ইউনিয়নের তালুক নাগকাটি গ্রামের রফিকুল ইসলাম নামের একজনের পুকুরে মাছটি ধরা পরে।

স্থানীয়রা জানান, রফিকুল ইসলাম বিজিবিতে চাকুরী করেন। তিনি চাকুরীতে আছেন। সকালে তার স্ত্রী মাছ দিয়ে যান তারই ভাই। পরে মাছ কাটতে গিয়ে দেখেন মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা। এই খবর ছড়িয়ে পড়লে অন্যন্য এলাকার মানুষজন ভিড় করছে মাছটি এক নজর দেখার জন্যে।

রফিকুল ইসলামের স্ত্রী নুরেজা বেগম বলেন, আমাদের পুকুরে আমার জ্যাটাতো ভাই মাছ চাষ করতো। সে মাছ তুলে সকালে বাড়িতে দিয়ে গেছে। আমি মাছ কাটতে গিয়ে দেখি মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা। পরে আর মাছটি কাটিনি। মাছটি মাদরাসার হুজুর নিয়ে গেছে।

কুড়িগ্রামের আল্লামা ফজলুল করীম রহ: জামিয়া ইসলামীয়া মাদরাসার মুফতি মোঃ আল আমিন বলেন, দেখেন আল্লাহ রাব্বুল আলামীন অনেক কিছু সৃষ্টি করেছেন। দেখবেন মাঝেমধ্যেই গাছের মধ্যেও আল্লাহু লেখা দেখা যায়। আজ যেমন মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা দেখা গেলো সবই আল্লাহ পাকের নিদর্শন।

জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

কুড়িগ্রামে মাছের গায়ে লেখা আল্লাহু, একনজর দেখতে জনতার ভিড়

আপডেট সময় : ০৩:২৬:১১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২৩
কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার একটি পুকুর থেকে তোলা মাছের মধ্যে একটি মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা দেখা গেছে। মাছটি দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় করছে সেখানে।

রোববার (১৯ নভেম্বর) সকালে মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়েছে। এর আগে রোববার সকালে উপজেলার চাকিরপশা ইউনিয়নের তালুক নাগকাটি গ্রামের রফিকুল ইসলাম নামের একজনের পুকুরে মাছটি ধরা পরে।

স্থানীয়রা জানান, রফিকুল ইসলাম বিজিবিতে চাকুরী করেন। তিনি চাকুরীতে আছেন। সকালে তার স্ত্রী মাছ দিয়ে যান তারই ভাই। পরে মাছ কাটতে গিয়ে দেখেন মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা। এই খবর ছড়িয়ে পড়লে অন্যন্য এলাকার মানুষজন ভিড় করছে মাছটি এক নজর দেখার জন্যে।

রফিকুল ইসলামের স্ত্রী নুরেজা বেগম বলেন, আমাদের পুকুরে আমার জ্যাটাতো ভাই মাছ চাষ করতো। সে মাছ তুলে সকালে বাড়িতে দিয়ে গেছে। আমি মাছ কাটতে গিয়ে দেখি মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা। পরে আর মাছটি কাটিনি। মাছটি মাদরাসার হুজুর নিয়ে গেছে।

কুড়িগ্রামের আল্লামা ফজলুল করীম রহ: জামিয়া ইসলামীয়া মাদরাসার মুফতি মোঃ আল আমিন বলেন, দেখেন আল্লাহ রাব্বুল আলামীন অনেক কিছু সৃষ্টি করেছেন। দেখবেন মাঝেমধ্যেই গাছের মধ্যেও আল্লাহু লেখা দেখা যায়। আজ যেমন মাছের গায়ে আল্লাহু লেখা দেখা গেলো সবই আল্লাহ পাকের নিদর্শন।