০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘পুতুল সরকার না পাওয়া পর্যন্ত তাদের কোনও ভোটই পছন্দ হবে না’

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনস্টিটিউট (এনডিআই) ও ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই) যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছে, তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

সোমবার (১৮ মার্চ) তিনি এক ফেইসবুক পোস্টে লিখেছেন, “যুক্তরাষ্ট্র যতদিন বাংলাদেশে একটি পুতুল সরকার বসাতে না পারবে, ততদিন পর্যন্ত কোনও নির্বাচনই তাদের পছন্দ হবে না।”

৭ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে এনডিআই ও আইআরআই প্রতিবেদন প্রকাশের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এই প্রতিক্রিয়া জানালেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র জয়।

ওই নির্বাচনের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশে টানা চতুর্থ মেয়াদে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ এবং প্রধানমন্ত্রী হন শেখ হাসিনা।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রধান রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ বিএনপি অংশ নেয়নি। ফলে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী মধ্যেই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়। এনডিএ ও আইআরআইর প্রতিবেদনে বলা হয়, নির্বাচনের আগে পরে সহিংসতা কম হয়েছে। তার কারণ হিসাবে নির্বাচনী প্রতিযোগিতার অনুপস্থিতি এবং দেশের নিরাপত্তায় সরকারের বাড়তি নজরকে চিহ্নিত করেছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

‘পুতুল সরকার না পাওয়া পর্যন্ত তাদের কোনও ভোটই পছন্দ হবে না’

আপডেট সময় : ০১:৪২:৪৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৮ মার্চ ২০২৪

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক ইনস্টিটিউট (এনডিআই) ও ইন্টারন্যাশনাল রিপাবলিকান ইনস্টিটিউট (আইআরআই) যে পর্যবেক্ষণ দিয়েছে, তার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

সোমবার (১৮ মার্চ) তিনি এক ফেইসবুক পোস্টে লিখেছেন, “যুক্তরাষ্ট্র যতদিন বাংলাদেশে একটি পুতুল সরকার বসাতে না পারবে, ততদিন পর্যন্ত কোনও নির্বাচনই তাদের পছন্দ হবে না।”

৭ জানুয়ারির নির্বাচন নিয়ে এনডিআই ও আইআরআই প্রতিবেদন প্রকাশের ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এই প্রতিক্রিয়া জানালেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র জয়।

ওই নির্বাচনের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশে টানা চতুর্থ মেয়াদে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ এবং প্রধানমন্ত্রী হন শেখ হাসিনা।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রধান রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ বিএনপি অংশ নেয়নি। ফলে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীর সঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী মধ্যেই মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়। এনডিএ ও আইআরআইর প্রতিবেদনে বলা হয়, নির্বাচনের আগে পরে সহিংসতা কম হয়েছে। তার কারণ হিসাবে নির্বাচনী প্রতিযোগিতার অনুপস্থিতি এবং দেশের নিরাপত্তায় সরকারের বাড়তি নজরকে চিহ্নিত করেছে।