০৭:৩৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৮ মে ২০২৪, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজবাড়ীতে বৃষ্টি প্রার্থনা করে বিশেষ নামাজ ও দোয়া

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে সারাদেশে। জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে কাজকর্মে,নেই স্বস্তি। এমন অবস্থায় বৃষ্টির ইসতিসকার নামাজ আদায় করে আল্লাহর কাছে অঝোর নয়নে নিজেদের কৃতকর্মের ফলের জন্য মাফ চেয়ে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা করেন কয়েকশ ধর্মপ্রান মুসলমান।

 

 

শনিবার (২৭ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় সরকারি গোয়ালন্দ কামরুল ইসলাম কলেজ মাঠে ও এগারোটায় দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের মাঠে তীব্র গরম উপেক্ষা করে শতশত মানুষ অংশ নেন এই নামাজে। সবার একটাই চাওয়া একটু স্বস্তির বৃষ্টি।

 

 

নামাজ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ভান্ডারিয়া দরবার শরিফের পীর সাহেব (শায়েখ) মাওলানা আবুল এরশাদ মোঃ সিরাজুন্মুনির। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তফা মুন্সি, দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম সহ স্থানীয় লোকজন।

 

এসময় আল্লাহর কাছে নিজেদের পাপের প্রায়শ্চিত্ত চেয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করে বৃষ্টি চান মোনাজাতরত মুসুল্লিরা। অনেককে অঝোরে কাদতে দেখা যায়। তারা আল্লাহর এই গজব থেকে মুক্তি চান।

 

এছাড়া সকাল দশটায় গোয়ালন্দ সরকারি কামরুল ইসলাম কলেজ মাঠে আরেকটি ইসতিকার জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রচন্ড রোদ উপেক্ষা করে শতশত মুসুল্লি হাজির হয়ে আল্লাহর দরবারে হাত তুলেন। এখানে নামাজ পরিচালনা করেন, গোয়ালন্দ ইমাম কমিটির সভাপতি মৌলানা জালাল উদ্দীন প্রামানিক।

রাষ্ট্রপতির কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেছেন তিন দেশের রাষ্ট্রদূতগণ

রাজবাড়ীতে বৃষ্টি প্রার্থনা করে বিশেষ নামাজ ও দোয়া

আপডেট সময় : ০৪:০৫:২৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪

তীব্র দাবদাহে পুড়ছে সারাদেশে। জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে কাজকর্মে,নেই স্বস্তি। এমন অবস্থায় বৃষ্টির ইসতিসকার নামাজ আদায় করে আল্লাহর কাছে অঝোর নয়নে নিজেদের কৃতকর্মের ফলের জন্য মাফ চেয়ে বৃষ্টির জন্য প্রার্থনা করেন কয়েকশ ধর্মপ্রান মুসলমান।

 

 

শনিবার (২৭ এপ্রিল) সকাল ১০ টায় সরকারি গোয়ালন্দ কামরুল ইসলাম কলেজ মাঠে ও এগারোটায় দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের মাঠে তীব্র গরম উপেক্ষা করে শতশত মানুষ অংশ নেন এই নামাজে। সবার একটাই চাওয়া একটু স্বস্তির বৃষ্টি।

 

 

নামাজ ও মোনাজাত পরিচালনা করেন ভান্ডারিয়া দরবার শরিফের পীর সাহেব (শায়েখ) মাওলানা আবুল এরশাদ মোঃ সিরাজুন্মুনির। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তফা মুন্সি, দৌলতদিয়া মডেল হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম সহ স্থানীয় লোকজন।

 

এসময় আল্লাহর কাছে নিজেদের পাপের প্রায়শ্চিত্ত চেয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করে বৃষ্টি চান মোনাজাতরত মুসুল্লিরা। অনেককে অঝোরে কাদতে দেখা যায়। তারা আল্লাহর এই গজব থেকে মুক্তি চান।

 

এছাড়া সকাল দশটায় গোয়ালন্দ সরকারি কামরুল ইসলাম কলেজ মাঠে আরেকটি ইসতিকার জামাত অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রচন্ড রোদ উপেক্ষা করে শতশত মুসুল্লি হাজির হয়ে আল্লাহর দরবারে হাত তুলেন। এখানে নামাজ পরিচালনা করেন, গোয়ালন্দ ইমাম কমিটির সভাপতি মৌলানা জালাল উদ্দীন প্রামানিক।