০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাতিকে ডাক্তার দেখাতে গিয়ে প্রাণ গেল নানির 

লক্ষ্মীপুরে জেসমিন আক্তার (৫৩) নামের এক নারী   পিকআপ ভ্যানের চাপায় নিহত হয়েছেন। দেড় মাস বয়সী নাতি রাহাত ইসলামকে ডাক্তার দেখাতে ক্লিনিকে নেওয়ার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে।
বৃহস্পতিবার (২ মে) দুপুরে সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নের খোয়াসাগর দিঘীর পাড়ে লক্ষ্মীপুর-রায়পুর আঞ্চলিক সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত জেসমিন রায়পুর উপজেলার চর মোহনা ইউনিয়নের বাবুর হাট এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের স্ত্রী।
নিহতের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানায় যায়, রাহাতকে ডাক্তার দেখানোর জন্য জেসমিন আক্তার দালাল বাজার স্বাস্থ্য ক্লিনিকে নিয়ে আসেন। সঙ্গে শিশু রাহাতের মাও ছিলেন। এ সময় তারা অটোরিকশা থেকে নেমে রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগতির একটি পিকআপ জেসমিন আক্তারকে চাপা দেয়। ঘটনার সময় শিশু রাহাত তার নানির কোলেই ছিল। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় জেসমিনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনায় নানি মারা গেলেও নাতি প্রাণে বেঁচে যায়।
দালাল বাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এমদাদ বলেন, দুর্ঘটনায় এক নারী নিহত হয়েছেন। পিকআপটি আমাদের হেফাজতে রয়েছে। নিহতের মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। নিহতের পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় কতটুকু প্রস্তুত পবিপ্রবি?

নাতিকে ডাক্তার দেখাতে গিয়ে প্রাণ গেল নানির 

আপডেট সময় : ০৮:২২:১০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৩ মে ২০২৪
লক্ষ্মীপুরে জেসমিন আক্তার (৫৩) নামের এক নারী   পিকআপ ভ্যানের চাপায় নিহত হয়েছেন। দেড় মাস বয়সী নাতি রাহাত ইসলামকে ডাক্তার দেখাতে ক্লিনিকে নেওয়ার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে।
বৃহস্পতিবার (২ মে) দুপুরে সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নের খোয়াসাগর দিঘীর পাড়ে লক্ষ্মীপুর-রায়পুর আঞ্চলিক সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহত জেসমিন রায়পুর উপজেলার চর মোহনা ইউনিয়নের বাবুর হাট এলাকার মৃত আব্দুল খালেকের স্ত্রী।
নিহতের স্বজনদের সঙ্গে কথা বলে জানায় যায়, রাহাতকে ডাক্তার দেখানোর জন্য জেসমিন আক্তার দালাল বাজার স্বাস্থ্য ক্লিনিকে নিয়ে আসেন। সঙ্গে শিশু রাহাতের মাও ছিলেন। এ সময় তারা অটোরিকশা থেকে নেমে রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগতির একটি পিকআপ জেসমিন আক্তারকে চাপা দেয়। ঘটনার সময় শিশু রাহাত তার নানির কোলেই ছিল। এতে গুরুতর আহত অবস্থায় জেসমিনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। দুর্ঘটনায় নানি মারা গেলেও নাতি প্রাণে বেঁচে যায়।
দালাল বাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এমদাদ বলেন, দুর্ঘটনায় এক নারী নিহত হয়েছেন। পিকআপটি আমাদের হেফাজতে রয়েছে। নিহতের মরদেহ সদর হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। নিহতের পরিবারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।