০৭:৩০ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খারকিভে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আহত ২

ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় খারকিভ শহরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। এতে তিনটি বাড়িতে আগুন লেগেছে। আহত হয়েছেন দুইজন। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গতকাল ভোররাতে এই ঘটনা ঘটেছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

 

 

ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভ। এটি রুশ সীমান্ত থেকে মাত্র ৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে রাশিয়া বিমান হামলার মাত্রা বাড়ানোয় শহরটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

 

 

টেলিগ্রাম মেসেজিং অ্যাপে গভর্নর ওলেহ সিনিহুবভ লিখেছেন, হামলার শব্দে ১১ বছর বয়সি এক শিশুসহ দুই ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। শহরটির মেয়র ইহর তেরেখভ বলেছেন, শহরে একটি এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে ২৬টি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে দুটি ভবন।

 

 

ঘটনাস্থলে রয়টার্সের একজন ক্যামেরাম্যান ছিলেন। তিনি ভোরবেলা আবাসিক ভবনে আগুন দেখতে পান। তিনি জানান, হামলার পর আগুন নেভাতে দমকলকর্মীরা ছুটে এসেছিলেন।

 

 

 

একটি টেলিভিশন সম্প্রচারে ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর মুখপাত্র ইলিয়া ইয়েভলাশ বলেছেন, রাশিয়া রাতারাতি অঞ্চলে দুটি এস-৩০০/এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে। তবে দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্রটি কোথায় আঘাত হেনেছে তা স্পষ্ট নয়।

খারকিভে রাশিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আহত ২

আপডেট সময় : ০৭:৩৪:৪৫ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪

ইউক্রেনের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় খারকিভ শহরে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে রাশিয়া। এতে তিনটি বাড়িতে আগুন লেগেছে। আহত হয়েছেন দুইজন। স্থানীয় কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, গতকাল ভোররাতে এই ঘটনা ঘটেছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এই খবর জানিয়েছে।

 

 

ইউক্রেনের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর খারকিভ। এটি রুশ সীমান্ত থেকে মাত্র ৩০ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। সাম্প্রতিক মাসগুলোতে রাশিয়া বিমান হামলার মাত্রা বাড়ানোয় শহরটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

 

 

টেলিগ্রাম মেসেজিং অ্যাপে গভর্নর ওলেহ সিনিহুবভ লিখেছেন, হামলার শব্দে ১১ বছর বয়সি এক শিশুসহ দুই ব্যক্তি অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। শহরটির মেয়র ইহর তেরেখভ বলেছেন, শহরে একটি এস-৩০০ ক্ষেপণাস্ত্র বিধ্বস্ত হয়েছে। এতে ২৬টি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে দুটি ভবন।

 

 

ঘটনাস্থলে রয়টার্সের একজন ক্যামেরাম্যান ছিলেন। তিনি ভোরবেলা আবাসিক ভবনে আগুন দেখতে পান। তিনি জানান, হামলার পর আগুন নেভাতে দমকলকর্মীরা ছুটে এসেছিলেন।

 

 

 

একটি টেলিভিশন সম্প্রচারে ইউক্রেনের বিমান বাহিনীর মুখপাত্র ইলিয়া ইয়েভলাশ বলেছেন, রাশিয়া রাতারাতি অঞ্চলে দুটি এস-৩০০/এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করেছে। তবে দ্বিতীয় ক্ষেপণাস্ত্রটি কোথায় আঘাত হেনেছে তা স্পষ্ট নয়।