০৬:৪২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

২বছর আইনী লড়াই করে চেয়ারম্যান হলেন ঈশ্বরগঞ্জের ফরিদ মিয়া

দীর্ঘ ২ বছর আইনী লড়াই করে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের মাইজবাগ ইউপি চেয়ারম্যান আদালতের আদেশ পেয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ নিলেন।

বুধবার ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে চেয়ারম্যান হিসেবে ফরিদ মিয়াকে শপথ ব্যাক পাঠ করান করান।

জানাযায়, ২০০২২ সালে ৭ ফেবর্রুয়ারী অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল মিয়া ভোট পান ৫ হাজার ২শ৩৫ এবং নিকটতম প্রতিদন্ধি প্রার্থী ফরিদ মিয়া ভোট পায় ৫হাজার ২শ২৯ সহকারি রিটানিং অফিসার ৬ ভোটের ব্যাবধানে ছায়েদুর রহমান বাবুলকে বেসরকারি ভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ঘোষণা করেন। পরে ঘোষিত পরাজিত প্রার্থী ফরিদ মিয়া নির্বাচন কমিশন ট্রাইবুনালে ওই ঘোষণার বিরুদ্ধে মামলা করেন। দীর্ঘ আইনী লড়াইয়ের পর আদালত পূণরায় ভোট গণনা আদেশ দেয় নির্বাচন কমিশনকে। পূর্ণগণনায় ফরিদ মিয়া ২৬৫ বেশি পাওয়ায় তাকে মাইজবাগ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিজয়ী ঘোষণা করেন।

 

নিন্ম আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে ছায়েদুর রহমান বাবুল উচ্চ আদালত হাইকোর্টে আফিল করায় আদাল ট্রায়বুনালের আদেশটি ষ্ট্রে করেন। এর পর দীর্ঘ শুনানির পর গত ২৫-৪-২৪ স্থানীয় সরকার বিভাগের ১ শাখা থেকে ৩৭১ সারকে এস এম নাজমুস ছালেহীন সহকারী পরিচালক স্থানীয় সরকার বিভাগের নির্দেশের ১৫ মে বুধবার ফরিদ মিয়াকে চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ গ্রহণ করান ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক। শপথ গ্রহণের পর ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সহ মাইজবাগ এলাকার শতশত লোক মোটর শোভাযাত্রা সহকাওে আতশবাজির মাঝে চেয়ারম্যান ফরিদ মিয়াকে ময়মনসিংহ থেকে ঈশ্বরগঞ্জের মাইজবাগ নিয়ে আসে।

২বছর আইনী লড়াই করে চেয়ারম্যান হলেন ঈশ্বরগঞ্জের ফরিদ মিয়া

আপডেট সময় : ০৯:০০:২২ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

দীর্ঘ ২ বছর আইনী লড়াই করে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের মাইজবাগ ইউপি চেয়ারম্যান আদালতের আদেশ পেয়ে চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ নিলেন।

বুধবার ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোহাম্মদ মাকসুদ চৌধুরী জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে চেয়ারম্যান হিসেবে ফরিদ মিয়াকে শপথ ব্যাক পাঠ করান করান।

জানাযায়, ২০০২২ সালে ৭ ফেবর্রুয়ারী অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী বাবুল মিয়া ভোট পান ৫ হাজার ২শ৩৫ এবং নিকটতম প্রতিদন্ধি প্রার্থী ফরিদ মিয়া ভোট পায় ৫হাজার ২শ২৯ সহকারি রিটানিং অফিসার ৬ ভোটের ব্যাবধানে ছায়েদুর রহমান বাবুলকে বেসরকারি ভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত ঘোষণা করেন। পরে ঘোষিত পরাজিত প্রার্থী ফরিদ মিয়া নির্বাচন কমিশন ট্রাইবুনালে ওই ঘোষণার বিরুদ্ধে মামলা করেন। দীর্ঘ আইনী লড়াইয়ের পর আদালত পূণরায় ভোট গণনা আদেশ দেয় নির্বাচন কমিশনকে। পূর্ণগণনায় ফরিদ মিয়া ২৬৫ বেশি পাওয়ায় তাকে মাইজবাগ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিজয়ী ঘোষণা করেন।

 

নিন্ম আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে ছায়েদুর রহমান বাবুল উচ্চ আদালত হাইকোর্টে আফিল করায় আদাল ট্রায়বুনালের আদেশটি ষ্ট্রে করেন। এর পর দীর্ঘ শুনানির পর গত ২৫-৪-২৪ স্থানীয় সরকার বিভাগের ১ শাখা থেকে ৩৭১ সারকে এস এম নাজমুস ছালেহীন সহকারী পরিচালক স্থানীয় সরকার বিভাগের নির্দেশের ১৫ মে বুধবার ফরিদ মিয়াকে চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ গ্রহণ করান ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক। শপথ গ্রহণের পর ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ সহ মাইজবাগ এলাকার শতশত লোক মোটর শোভাযাত্রা সহকাওে আতশবাজির মাঝে চেয়ারম্যান ফরিদ মিয়াকে ময়মনসিংহ থেকে ঈশ্বরগঞ্জের মাইজবাগ নিয়ে আসে।