০৯:৪২ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বেতন থেকে চাঁদা কর্তন বন্ধের দাবি রাবি ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের

স্বতন্ত্র সমিতির অনুমোদন, নীতিমালা প্রণয়ন ও বেতন থেকে আগের সমিতির চাঁদা কর্তন বন্ধের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা।
আজ মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটিরিয়াতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এসব দাবি জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বয়াক আলমগীর হোসেন। তিনি বলেন, সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত অফিসারবৃন্দের মর্যাদা, অধিকার ও ন্যায় সঙ্গত বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক পেশাজীবি সংগঠন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন কাজ করে যাচ্ছে।
তিনি দাবি করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০ম গ্রেডে  নিয়োগপ্রাপ্ত ডিরেক্ট অফিসাররা ২য় গ্রেড পর্যন্ত পদোন্নতির সুবিধা ভোগ করতে পারে অথচ আমরা ৪র্থ পর্যন্ত পদোন্নতি পেয়ে আর কোন পদোন্নতি পাই না। পূর্বে সিন্ডিকেট সভায় পদোন্নতি অনুমোদিত হলেও তা এখনো কার্যকর হয় নি। পদোন্নতিসহ আপগ্রেডেড কর্মকর্তার সাথে সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণের বিভিন্ন বৈষম্য পরিলক্ষিত হয়। এই বৈষম্য দূরীকরণের লক্ষ্যে আমরা স্বতন্ত্র সমিতি গঠন করছি।
সংবাদ সম্মেলনে অফিসার্স সমিতির ওপর অনাস্থা প্রকাশ করে চারজন নির্বাচিত সদস্য সমিতি থেকে পদত্যাগ করেন। সদস্যরা হলেন- শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের উপ প্রধান আবাসিক শিক্ষক হাবিবা হায়ূার লিচু,এগ্রোনমি এন্ড এগ্রিকালচার এক্সটেনশন বিভাগের  উপ -রেজিস্ট্রার জহিরুল ইসলাম,  উপ- গ্রন্থাগারিক আসলাম রেজা ও সংস্থান শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রার আবু হানিফ।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের গত ১৮ মে সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত অফিসারদের (১০ম গ্রেড তদুর্ধ) মর্যাদা, অধিকার, ন্যায়সংগত দাবি আদায় ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের যাত্রা শুরু হয়। এতে উপ রেজিস্ট্রার মোঃ আলমগীর হোসেনকে আহবায়ক, মোঃ রাকিবুল আলমকে সদস্য সচিব করে ১৫ সদস্যের গঠনতত্ত্ব প্রণয়ন ও টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করা হয়।

বেতন থেকে চাঁদা কর্তন বন্ধের দাবি রাবি ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের

আপডেট সময় : ০৪:৫৫:২৭ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ৭ নভেম্বর ২০২৩
স্বতন্ত্র সমিতির অনুমোদন, নীতিমালা প্রণয়ন ও বেতন থেকে আগের সমিতির চাঁদা কর্তন বন্ধের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যরা।
আজ মঙ্গলবার (৭ নভেম্বর) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ক্যাফেটিরিয়াতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এসব দাবি জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের আহ্বয়াক আলমগীর হোসেন। তিনি বলেন, সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত অফিসারবৃন্দের মর্যাদা, অধিকার ও ন্যায় সঙ্গত বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সম্পূর্ণ অরাজনৈতিক পেশাজীবি সংগঠন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন কাজ করে যাচ্ছে।
তিনি দাবি করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০ম গ্রেডে  নিয়োগপ্রাপ্ত ডিরেক্ট অফিসাররা ২য় গ্রেড পর্যন্ত পদোন্নতির সুবিধা ভোগ করতে পারে অথচ আমরা ৪র্থ পর্যন্ত পদোন্নতি পেয়ে আর কোন পদোন্নতি পাই না। পূর্বে সিন্ডিকেট সভায় পদোন্নতি অনুমোদিত হলেও তা এখনো কার্যকর হয় নি। পদোন্নতিসহ আপগ্রেডেড কর্মকর্তার সাথে সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত কর্মকর্তাগণের বিভিন্ন বৈষম্য পরিলক্ষিত হয়। এই বৈষম্য দূরীকরণের লক্ষ্যে আমরা স্বতন্ত্র সমিতি গঠন করছি।
সংবাদ সম্মেলনে অফিসার্স সমিতির ওপর অনাস্থা প্রকাশ করে চারজন নির্বাচিত সদস্য সমিতি থেকে পদত্যাগ করেন। সদস্যরা হলেন- শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিজ্ঞান বিভাগের উপ প্রধান আবাসিক শিক্ষক হাবিবা হায়ূার লিচু,এগ্রোনমি এন্ড এগ্রিকালচার এক্সটেনশন বিভাগের  উপ -রেজিস্ট্রার জহিরুল ইসলাম,  উপ- গ্রন্থাগারিক আসলাম রেজা ও সংস্থান শাখার ডেপুটি রেজিস্ট্রার আবু হানিফ।
উল্লেখ্য, চলতি বছরের গত ১৮ মে সরাসরি নিয়োগপ্রাপ্ত অফিসারদের (১০ম গ্রেড তদুর্ধ) মর্যাদা, অধিকার, ন্যায়সংগত দাবি আদায় ও ভ্রাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপনের লক্ষ্যে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) ডিরেক্ট অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের যাত্রা শুরু হয়। এতে উপ রেজিস্ট্রার মোঃ আলমগীর হোসেনকে আহবায়ক, মোঃ রাকিবুল আলমকে সদস্য সচিব করে ১৫ সদস্যের গঠনতত্ত্ব প্রণয়ন ও টেকনিক্যাল কমিটি গঠন করা হয়।