০১:৪১ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

কসবায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবায় সম্পদ বণ্টনের জের ধরে বৃদ্ধ স্বামী আবদুর রহিমের (৭৫) ছুরিকাঘাতে সালেহা (৬০) খাতুন নামে বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে উপজেলার খাড়েরা ইউনিয়নের দেলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আবদুর রহিম দেলী গ্রামের মৃত সবর আলীর ছেলে। ঘটনার পর আবদুর রহিমকে আটক করেছে পুলিশ। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আহত মেয়ে রোকেয়া বেগমকে (৩৮) কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে বৃদ্ধ আবদুর রহিম সম্পদ বণ্টন নিয়ে মেয়ে রোকেয়ার সঙ্গে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে পড়েন। পরে রাগ সামলাতে না পেরে হাতের কাছে থাকা ছুরি দিয়ে মেয়েকে আঘাত করার সময় মা সালেহা বেগম এসে সামনে দাঁড়ান। তখন আবদুর রহিমের ছুরিকাঘাতে মা-মেয়ে দুজনই গুরুতর আহত হন। তাদের আর্তচিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে মা-মেয়েকে উদ্ধার করে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দুজনকেই কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। কুমিল্লা নেওয়ার পথে মারা যান বৃদ্ধা সালেহা বেগম। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ রাজু আহাম্মেদ। তিনি বলেন, ‘খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বৃদ্ধ আবদুর রহিমকে আটক করা হয়েছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

কসবায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

আপডেট সময় : ০৬:০৬:৪৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

ব্রা‏হ্মণবাড়িয়ার কসবায় সম্পদ বণ্টনের জের ধরে বৃদ্ধ স্বামী আবদুর রহিমের (৭৫) ছুরিকাঘাতে সালেহা (৬০) খাতুন নামে বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সকালে উপজেলার খাড়েরা ইউনিয়নের দেলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আবদুর রহিম দেলী গ্রামের মৃত সবর আলীর ছেলে। ঘটনার পর আবদুর রহিমকে আটক করেছে পুলিশ। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় আহত মেয়ে রোকেয়া বেগমকে (৩৮) কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে বৃদ্ধ আবদুর রহিম সম্পদ বণ্টন নিয়ে মেয়ে রোকেয়ার সঙ্গে কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে উত্তেজিত হয়ে পড়েন। পরে রাগ সামলাতে না পেরে হাতের কাছে থাকা ছুরি দিয়ে মেয়েকে আঘাত করার সময় মা সালেহা বেগম এসে সামনে দাঁড়ান। তখন আবদুর রহিমের ছুরিকাঘাতে মা-মেয়ে দুজনই গুরুতর আহত হন। তাদের আর্তচিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে মা-মেয়েকে উদ্ধার করে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে দুজনকেই কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন। কুমিল্লা নেওয়ার পথে মারা যান বৃদ্ধা সালেহা বেগম। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কসবা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ রাজু আহাম্মেদ। তিনি বলেন, ‘খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। বৃদ্ধ আবদুর রহিমকে আটক করা হয়েছে। মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।