০৮:৫৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দুর্জয়ের রেকর্ড ভাঙলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক

চলমান মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের আগে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কোনো সংস্করণেই আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা ছিল না নিল ব্র্যান্ডের। সেই তার কাঁধেই প্রোটিয়াদের নেতৃত্বের গুরুদায়িত্ব! অভিষেক টেস্ট ম্যাচে নেতৃত্ব দিতে নেমে এমনিতেই রেকর্ডবুকে নাম লিখিয়েছেন, সেই সঙ্গে এবার বল হাতেও ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই হলো বাঁহাতি এই স্পিন অলরাউন্ডারের।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সারির ক্রিকেটারদের বেশিরভাগই নিজ দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ এসএ টি-টুয়েন্টি লিগে ব্যস্ত থাকায় আনকোড়া দল নিয়েই নিউজিল্যান্ড সফরে আসে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের পারফরম্যান্স দিয়েই দলের নেতৃত্ব পান নিল ব্র্যান্ড। আর খেলতে নেমেই ভাঙলেন বাংলাদেশের সাবেক টেস্ট অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়ের বিরল এক রেকর্ড।

টেস্ট ক্রিকেটের প্রায় ১৪৭ বছরের ইতিহাসে অধিনায়ক হিসেবে টেস্ট অভিষেকে ৬ উইকেট শিকারের কীর্তি এতদিন ছিল শুধুই নাঈমুর রহমান দুর্জয়ের। ২০০০ সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে ১৩২ রানে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন দুর্জয়। যে রেকর্ড এতদিন অক্ষতই ছিল।

২৪ বছর পর টাইগার অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারের সেই রেকর্ড ভাঙলেন ব্র্যান্ড। তিনি মূলত ওপেনার। তবে হাতও ঘোরাতে পারেন প্রয়োজনের সময়ে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে কখনও ৫ উইকেটের স্বাদ না পাওয়া ব্রান্ড টেস্ট অভিষেকেই শিকার করলেন ৬ উইকেট!

মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে রাচিন রবীন্দ্রর ডাবল ও কেইন উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরিতে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৫১১ রানের পাহাড় গড়েছে নিউজিল্যান্ড। সফরকারী বোলারদের বাজে দিনে দ্যুতি ছড়ালেন নিল ব্র্যান্ড। ২৬ ওভার বল করে ১১৯ রান খরচ করলেও তুলে নিয়েছেন ৬ উইকেট। ২৪০ রান করা রাচিন রবীন্দ্র ছাড়াও সাজঘরে পাঠিয়েছেন ড্যারিল মিচেল ও গ্লেন ফিলিপসদের মতো ব্যাটারদের।

অবশ্য রেকর্ড রাঙানো বোলিং করলেও ব্যাটিংটা রাঙাতে পারলেন না ব্র্যান্ড। ইনিংস শুরু করতে নেমে আউট হয়ে গেছেন ৩ রানে। প্রথম ইনিংসে কিউইদের ৫১১ রান পাহাড়ের জবাবে স্কোরবোর্ডে ৮০ রান যোগ করতেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

 

 

 

স/ম

ফুটপাত থেকে হকার মুক্ত করতে চসিকের ফের অভিযান

দুর্জয়ের রেকর্ড ভাঙলেন প্রোটিয়া অধিনায়ক

আপডেট সময় : ০২:৪৫:৫৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

চলমান মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের আগে দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কোনো সংস্করণেই আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা ছিল না নিল ব্র্যান্ডের। সেই তার কাঁধেই প্রোটিয়াদের নেতৃত্বের গুরুদায়িত্ব! অভিষেক টেস্ট ম্যাচে নেতৃত্ব দিতে নেমে এমনিতেই রেকর্ডবুকে নাম লিখিয়েছেন, সেই সঙ্গে এবার বল হাতেও ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই হলো বাঁহাতি এই স্পিন অলরাউন্ডারের।

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সারির ক্রিকেটারদের বেশিরভাগই নিজ দেশের ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ এসএ টি-টুয়েন্টি লিগে ব্যস্ত থাকায় আনকোড়া দল নিয়েই নিউজিল্যান্ড সফরে আসে দক্ষিণ আফ্রিকা। প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটের পারফরম্যান্স দিয়েই দলের নেতৃত্ব পান নিল ব্র্যান্ড। আর খেলতে নেমেই ভাঙলেন বাংলাদেশের সাবেক টেস্ট অধিনায়ক নাইমুর রহমান দুর্জয়ের বিরল এক রেকর্ড।

টেস্ট ক্রিকেটের প্রায় ১৪৭ বছরের ইতিহাসে অধিনায়ক হিসেবে টেস্ট অভিষেকে ৬ উইকেট শিকারের কীর্তি এতদিন ছিল শুধুই নাঈমুর রহমান দুর্জয়ের। ২০০০ সালে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ভারতের বিপক্ষে অভিষেক ম্যাচে ১৩২ রানে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন দুর্জয়। যে রেকর্ড এতদিন অক্ষতই ছিল।

২৪ বছর পর টাইগার অফ স্পিনিং অলরাউন্ডারের সেই রেকর্ড ভাঙলেন ব্র্যান্ড। তিনি মূলত ওপেনার। তবে হাতও ঘোরাতে পারেন প্রয়োজনের সময়ে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে কখনও ৫ উইকেটের স্বাদ না পাওয়া ব্রান্ড টেস্ট অভিষেকেই শিকার করলেন ৬ উইকেট!

মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টে রাচিন রবীন্দ্রর ডাবল ও কেইন উইলিয়ামসনের সেঞ্চুরিতে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৫১১ রানের পাহাড় গড়েছে নিউজিল্যান্ড। সফরকারী বোলারদের বাজে দিনে দ্যুতি ছড়ালেন নিল ব্র্যান্ড। ২৬ ওভার বল করে ১১৯ রান খরচ করলেও তুলে নিয়েছেন ৬ উইকেট। ২৪০ রান করা রাচিন রবীন্দ্র ছাড়াও সাজঘরে পাঠিয়েছেন ড্যারিল মিচেল ও গ্লেন ফিলিপসদের মতো ব্যাটারদের।

অবশ্য রেকর্ড রাঙানো বোলিং করলেও ব্যাটিংটা রাঙাতে পারলেন না ব্র্যান্ড। ইনিংস শুরু করতে নেমে আউট হয়ে গেছেন ৩ রানে। প্রথম ইনিংসে কিউইদের ৫১১ রান পাহাড়ের জবাবে স্কোরবোর্ডে ৮০ রান যোগ করতেই ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

 

 

 

স/ম