১১:৩৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জামালপুরে ছাত্রকে হত্যার দায়ে ৭ জনের যাবজ্জীবন

জামালপুরের তুলশীপুরে কলেজ শিক্ষার্থী লিটন হত্যা মামলায় সাত জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়াও সাতজনকে ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ৬  মাসের কারাদন্ড ও অতিরিক্ত ২ বছরের কারাদন্ডের আদেশ দেন বিচারক।

আজ মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জামালপুর সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এহসানুল হক এই রায় দেন। সাজা প্রাপ্তরা হলেন- রামদেব বাড়ী গ্রামের মজিবর রহমান (পলাতক), মিজান, সোহেল, সুমন, লাভলু, হেলাল উদ্দিন ও মো: মিজান।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী নির্মল কান্তি ভদ্র জানান, জামালপুর সদর উপজেলার রামদেববাড়ী গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে কলেজ শিক্ষার্থী লিটন ২০১৬ সালের ১৩ জানুয়ারি রাতে চাচার বাড়িতে যাবার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর ১৪ জানুয়ারি বিকাল ৩টার দিকে গোপীনাথপুরে লিটনের মরদেহ পাওয়া যায়। এই ঘটনায় লিটনের বাবা আব্দুস সামাদ বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি বলেন, তথ্য উপাত্ত থেকে জানা যায়। স্থানীয় একটি সমিতির টাকা লেনদেন নিয়ে শত্রুতার জেড় ধরে লিটনকে জবাই করে হত্যার পর আংশিক পুড়িয়ে ফেলে আসামীরা।  মামলায় বাদীসহ মোট ১৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহন শেষে আদালত এই রায় ঘোষনা করেন। মামলার বিবাদী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন এডভোকেট আমান উল্লাহ আকাশ ও এডভোকেট জামিল হাসান তাপস।

স/মিফা

অব্যাহত অভিযানেও চলছে অবৈধ ক্লিনিক হাসপাতাল-ডায়াগনস্টিক সেন্টার

জামালপুরে ছাত্রকে হত্যার দায়ে ৭ জনের যাবজ্জীবন

আপডেট সময় : ০৬:০৩:৩৪ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

জামালপুরের তুলশীপুরে কলেজ শিক্ষার্থী লিটন হত্যা মামলায় সাত জনকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। এছাড়াও সাতজনকে ২০ হাজার টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে ৬  মাসের কারাদন্ড ও অতিরিক্ত ২ বছরের কারাদন্ডের আদেশ দেন বিচারক।

আজ মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জামালপুর সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক এহসানুল হক এই রায় দেন। সাজা প্রাপ্তরা হলেন- রামদেব বাড়ী গ্রামের মজিবর রহমান (পলাতক), মিজান, সোহেল, সুমন, লাভলু, হেলাল উদ্দিন ও মো: মিজান।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী নির্মল কান্তি ভদ্র জানান, জামালপুর সদর উপজেলার রামদেববাড়ী গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে কলেজ শিক্ষার্থী লিটন ২০১৬ সালের ১৩ জানুয়ারি রাতে চাচার বাড়িতে যাবার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর ১৪ জানুয়ারি বিকাল ৩টার দিকে গোপীনাথপুরে লিটনের মরদেহ পাওয়া যায়। এই ঘটনায় লিটনের বাবা আব্দুস সামাদ বাদী হয়ে জামালপুর সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

তিনি বলেন, তথ্য উপাত্ত থেকে জানা যায়। স্থানীয় একটি সমিতির টাকা লেনদেন নিয়ে শত্রুতার জেড় ধরে লিটনকে জবাই করে হত্যার পর আংশিক পুড়িয়ে ফেলে আসামীরা।  মামলায় বাদীসহ মোট ১৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহন শেষে আদালত এই রায় ঘোষনা করেন। মামলার বিবাদী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন এডভোকেট আমান উল্লাহ আকাশ ও এডভোকেট জামিল হাসান তাপস।

স/মিফা