০৫:০১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মস্কোয় হামলায় ‘ইউক্রেনের সম্পৃক্ততা’ মিলেছে

◆দক্ষিণ রাশিয়ার এশিয়ান ক্যাফেতে বিস্ফোরণ
মস্কোর ক্রোকাস সিটি হলে সন্ত্রাসী হামলাসহ রাশিয়ায় সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ইউক্রেনের ‘সম্পৃক্ততা’র প্রমাণ পেয়েছেন রুশ তদন্তকারীরা। এদিকে দক্ষিণ রাশিয়ার ভোরোনেজ শহরে এশিয়ার থিমযুক্ত একটি ক্যাফেতে বিস্ফোরণ ঘটেছে।
মস্কো জানিয়েছে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবাইকে গ্রেপ্তার করে রাশিয়ার কাছে হস্তান্তর করুক কিয়েভ। সেই সঙ্গে সন্ত্রাসী কার্যক্রমে ইউক্রেনের সমর্থন অবিলম্বে বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে রাশিয়া। বিশেষ করে ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান ভ্যাসিলি মালিয়ুকসহ সন্ত্রাসবাদের সন্দেহভাজন প্রত্যেককে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানান হয়েছে।
রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, ২২ মার্চ মস্কোর ক্রোকাস সিটি হলে রক্তাক্ত সন্ত্রাসী হামলা পুরো বিশ্বকে হতবাক করে দিয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে এটিই আমাদের দেশে প্রথম সন্ত্রাসী হামলা নয়। রুশ দক্ষ সংস্থাগুলোর তদন্তে এসব অপরাধে ইউক্রেনের ‘মদদ’ উন্মোচিত হয়েছে। আমরা সন্ত্রাসী হামলা এবং সন্ত্রাসবাদের অর্থায়ন দমনের জন্য আন্তর্জাতিক কনভেনশনের অধীনে হামলায় জড়িত সকলকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও হস্তান্তরের জন্য ইউক্রেন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করছি। তাদের মধ্যে সিকিউরিটি সার্ভিসের প্রধান ভ্যাসিলি মালিয়ুক রয়েছেন, যিনি ২৫ মার্চ স্বীকার করেছেন- ইউক্রেন ২০২২ সালের অক্টোবরে ক্রিমিয়ান সেতুতে হামলা চালিয়েছিল। এ ব্যক্তি রাশিয়ায় অন্যান্য সন্ত্রাসী হামলার বিবরণও প্রকাশ করেছিল।
এদিকে গতকাল টিভি চ্যানেল জেভেজদার প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজে লেনিন স্ট্রিটের ইস্টার্ন টি হাউজের ভবনটির ভেঙে পড়া জানালাগুলো দেখা যায়। ম্যাশ মিডিয়া গ্রুপ বলেছে, ক্যাফেতে ভোররাতে আক্রমণ করা হয়েছিল যখন কেউ সেখানে ছিল না। ফলে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আরআইএ পুলিশকে উদ্ধৃত করে বলেছে, ক্যাফেতে বিস্ফোরণের খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তারা। এখনও তদন্ত চলছে। বিস্ফোরণের কারণ জানা যায়নি।
জনপ্রিয় সংবাদ

মস্কোয় হামলায় ‘ইউক্রেনের সম্পৃক্ততা’ মিলেছে

আপডেট সময় : ০৭:২১:০৮ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল ২০২৪
◆দক্ষিণ রাশিয়ার এশিয়ান ক্যাফেতে বিস্ফোরণ
মস্কোর ক্রোকাস সিটি হলে সন্ত্রাসী হামলাসহ রাশিয়ায় সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ইউক্রেনের ‘সম্পৃক্ততা’র প্রমাণ পেয়েছেন রুশ তদন্তকারীরা। এদিকে দক্ষিণ রাশিয়ার ভোরোনেজ শহরে এশিয়ার থিমযুক্ত একটি ক্যাফেতে বিস্ফোরণ ঘটেছে।
মস্কো জানিয়েছে, ঘটনার সঙ্গে জড়িত সবাইকে গ্রেপ্তার করে রাশিয়ার কাছে হস্তান্তর করুক কিয়েভ। সেই সঙ্গে সন্ত্রাসী কার্যক্রমে ইউক্রেনের সমর্থন অবিলম্বে বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে রাশিয়া। বিশেষ করে ইউক্রেনের গোয়েন্দা সংস্থার প্রধান ভ্যাসিলি মালিয়ুকসহ সন্ত্রাসবাদের সন্দেহভাজন প্রত্যেককে আত্মসমর্পণের আহ্বান জানান হয়েছে।
রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, ২২ মার্চ মস্কোর ক্রোকাস সিটি হলে রক্তাক্ত সন্ত্রাসী হামলা পুরো বিশ্বকে হতবাক করে দিয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে এটিই আমাদের দেশে প্রথম সন্ত্রাসী হামলা নয়। রুশ দক্ষ সংস্থাগুলোর তদন্তে এসব অপরাধে ইউক্রেনের ‘মদদ’ উন্মোচিত হয়েছে। আমরা সন্ত্রাসী হামলা এবং সন্ত্রাসবাদের অর্থায়ন দমনের জন্য আন্তর্জাতিক কনভেনশনের অধীনে হামলায় জড়িত সকলকে অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও হস্তান্তরের জন্য ইউক্রেন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করছি। তাদের মধ্যে সিকিউরিটি সার্ভিসের প্রধান ভ্যাসিলি মালিয়ুক রয়েছেন, যিনি ২৫ মার্চ স্বীকার করেছেন- ইউক্রেন ২০২২ সালের অক্টোবরে ক্রিমিয়ান সেতুতে হামলা চালিয়েছিল। এ ব্যক্তি রাশিয়ায় অন্যান্য সন্ত্রাসী হামলার বিবরণও প্রকাশ করেছিল।
এদিকে গতকাল টিভি চ্যানেল জেভেজদার প্রকাশিত ভিডিও ফুটেজে লেনিন স্ট্রিটের ইস্টার্ন টি হাউজের ভবনটির ভেঙে পড়া জানালাগুলো দেখা যায়। ম্যাশ মিডিয়া গ্রুপ বলেছে, ক্যাফেতে ভোররাতে আক্রমণ করা হয়েছিল যখন কেউ সেখানে ছিল না। ফলে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আরআইএ পুলিশকে উদ্ধৃত করে বলেছে, ক্যাফেতে বিস্ফোরণের খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তারা। এখনও তদন্ত চলছে। বিস্ফোরণের কারণ জানা যায়নি।