০৬:৪১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সন্তানকে ভর্তিযুদ্ধে পাঠিয়ে উৎকন্ঠিত অপেক্ষা অভিভাবকদের 

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) গুচ্ছভুক্ত দেশের ২৪ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের এ (বিজ্ঞান) ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হয়েছে। শনিবার (২৭ এপ্রিল) বেলা ১২ টায় ইবির ৬ টি ভবনে পরীক্ষা হয়। ইবিতে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৫৮৬৩ জন পরীক্ষার্থী।
তবে পরীক্ষার্থীর সাথে সাথে অভিভাবকদেরও ছিল অন্যরকম এক যুদ্ধ। আদরের সন্তানকে পরীক্ষার হলে পাঠিয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠা নিয়ে বাইরে অপেক্ষায় ছিলেন হাজারো অভিভাবক। দীর্ঘ এক যুগের লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলস পরিশ্রম করে যাওয়া শিক্ষার্থীদের  স্বপ্ন পূরণে তাদের ছায়াসঙ্গী হয়ে ছিলেন অভিভাবকরা। সন্তানদের পরীক্ষার হলে পাঠিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে অপেক্ষা করছেন হাজারো অভিভাবক।
সরেজমিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন গেটের পাশে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, ডায়না চত্বর, বটতলা, কেন্দ্রীয় মসজিদ, খেলার মাঠ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থানে গাছপালার ছায়ায় অভিভাবকদের উপস্থিতি প্রবলভাবে লক্ষ্য করা গেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিভাবকদের বিশ্রামের জন্য বসার বন্দোবস্ত থাকলেও অনেকেই সময় কাটিয়েছেন একান্ত নিরিবিলিতে, সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করে।
এসব স্থান ঘুরে দেখা যায়, অভিভাবকদের চোখেমুখে চিন্তার ভাজ। দূর দূরান্ত থেকে আসা অভিভাবকদের কেউ একে অপরের সঙ্গে গল্প করছেন আবার কেউ পত্রিকা পড়ে সময় কাটাচ্ছেন। অনেক মায়েদের দেখা গেছে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনারত। তীব্র গরম আর ক্লান্তি ভুলে স্বপ্ন দেখছেন অভিভাবকরা, দেখে মনে হচ্ছে সম্ভব হলে অভিভাবকরা নিজেরাই যেন সন্তানের ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে দিতেন।
অভিভাবক কর্নারে বসে সন্তানের জন্য অপেক্ষারত চুয়াডাঙ্গা থেকে আসা এক অভিভাবক বলেন, আমার ছেলের পরীক্ষার জন্য এসেছি। ছেলেটা পরীক্ষায় বসার পর থেকেই সার্বক্ষণিক চিন্তায় হচ্ছে। দোয়া করছি, আল্লাহ যেন ভালো ভাবে পরীক্ষা দেওয়ান।
মেহেরপুর থেকে আসা আরেক শিক্ষার্থীর মা বলেন, আল্লাহর কাছে শুধু দোয়া করছি যাতে মেয়েটার পরীক্ষাটা ভালো হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পায়। সে অনেকদিন যাবত পরিশ্রম করছে। আল্লাহ যেন ওকে সফলতা দান করেন।
প্রসঙ্গত, এবছর গুচ্ছভুক্ত ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে বিজ্ঞান শাখাভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা আজ অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়া মানবিক শাখাভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা ৩ মে এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখাভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা ১০ মে অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ডি’ ইউনিটের স্বতন্ত্র পরীক্ষা ১১ মে অনুষ্ঠিত হবে।

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় কতটুকু প্রস্তুত পবিপ্রবি?

সন্তানকে ভর্তিযুদ্ধে পাঠিয়ে উৎকন্ঠিত অপেক্ষা অভিভাবকদের 

আপডেট সময় : ০৫:৫৯:২৮ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৭ এপ্রিল ২০২৪
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) গুচ্ছভুক্ত দেশের ২৪ টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমন্বিত ২০২৩-২৪ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের এ (বিজ্ঞান) ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শেষ হয়েছে। শনিবার (২৭ এপ্রিল) বেলা ১২ টায় ইবির ৬ টি ভবনে পরীক্ষা হয়। ইবিতে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে ৫৮৬৩ জন পরীক্ষার্থী।
তবে পরীক্ষার্থীর সাথে সাথে অভিভাবকদেরও ছিল অন্যরকম এক যুদ্ধ। আদরের সন্তানকে পরীক্ষার হলে পাঠিয়ে উদ্বেগ উৎকন্ঠা নিয়ে বাইরে অপেক্ষায় ছিলেন হাজারো অভিভাবক। দীর্ঘ এক যুগের লালিত স্বপ্ন বাস্তবায়নে নিরলস পরিশ্রম করে যাওয়া শিক্ষার্থীদের  স্বপ্ন পূরণে তাদের ছায়াসঙ্গী হয়ে ছিলেন অভিভাবকরা। সন্তানদের পরীক্ষার হলে পাঠিয়ে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানে অপেক্ষা করছেন হাজারো অভিভাবক।
সরেজমিনে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন গেটের পাশে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, ডায়না চত্বর, বটতলা, কেন্দ্রীয় মসজিদ, খেলার মাঠ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্থানে গাছপালার ছায়ায় অভিভাবকদের উপস্থিতি প্রবলভাবে লক্ষ্য করা গেছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিভাবকদের বিশ্রামের জন্য বসার বন্দোবস্ত থাকলেও অনেকেই সময় কাটিয়েছেন একান্ত নিরিবিলিতে, সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করে।
এসব স্থান ঘুরে দেখা যায়, অভিভাবকদের চোখেমুখে চিন্তার ভাজ। দূর দূরান্ত থেকে আসা অভিভাবকদের কেউ একে অপরের সঙ্গে গল্প করছেন আবার কেউ পত্রিকা পড়ে সময় কাটাচ্ছেন। অনেক মায়েদের দেখা গেছে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনারত। তীব্র গরম আর ক্লান্তি ভুলে স্বপ্ন দেখছেন অভিভাবকরা, দেখে মনে হচ্ছে সম্ভব হলে অভিভাবকরা নিজেরাই যেন সন্তানের ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে দিতেন।
অভিভাবক কর্নারে বসে সন্তানের জন্য অপেক্ষারত চুয়াডাঙ্গা থেকে আসা এক অভিভাবক বলেন, আমার ছেলের পরীক্ষার জন্য এসেছি। ছেলেটা পরীক্ষায় বসার পর থেকেই সার্বক্ষণিক চিন্তায় হচ্ছে। দোয়া করছি, আল্লাহ যেন ভালো ভাবে পরীক্ষা দেওয়ান।
মেহেরপুর থেকে আসা আরেক শিক্ষার্থীর মা বলেন, আল্লাহর কাছে শুধু দোয়া করছি যাতে মেয়েটার পরীক্ষাটা ভালো হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পায়। সে অনেকদিন যাবত পরিশ্রম করছে। আল্লাহ যেন ওকে সফলতা দান করেন।
প্রসঙ্গত, এবছর গুচ্ছভুক্ত ২৪টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে ২২টি বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্র নির্ধারণ করা হয়েছে। এতে বিজ্ঞান শাখাভুক্ত ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা আজ অনুষ্ঠিত হয়। এ ছাড়া মানবিক শাখাভুক্ত ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষা ৩ মে এবং ব্যবসায় শিক্ষা শাখাভুক্ত ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা ১০ মে অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ডি’ ইউনিটের স্বতন্ত্র পরীক্ষা ১১ মে অনুষ্ঠিত হবে।