০৬:২৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘কাচ্চি ভাই’ রেস্টুরেন্টের মালিক গ্রেফতার 

দেশে ফিরেই রাজধানীর বেইলি রোডের বহুতল ভবন গ্রিন কোজি কটেজে আগুনের ঘটনায় ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্টুরেন্টের মালিক সোহেল সিরাজ গ্রেফতার হয়েছেন।
বুধবার (৮ মে) সকালে সোহেল সিরাজকে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে পাঠায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। শুনানি শেষে আদালত তার দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে মঙ্গলবার (৭ মে) রাতে মালয়েশিয়া থেকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পরই অভিবাসন পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে সোহেলকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) হস্তান্তর করা হয়। এ নিয়ে ভয়াবহ ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সাতজন গ্রেফতার হলেন।
ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপ-পরিদর্শক (এসআই) নিজামউদ্দিন ফকির সোহেলের গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজ নামের বহুতল ভবনে আগ্নিকাণ্ড ঘটে। এতে ৪৬ জন প্রাণ হারান। ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ছিল কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টটি। এ ছাড়া ভবনটির অন্য তলায়ও অনেকগুলো খাবারের দোকান ছিল।
এ ঘটনায় অবহেলার কারণে মৃত্যুর অভিযোগে মামলা করে পুলিশ। মামলাটি তদন্ত করছে সিআইডি।

‘কাচ্চি ভাই’ রেস্টুরেন্টের মালিক গ্রেফতার 

আপডেট সময় : ০৭:২৩:৪১ অপরাহ্ন, বুধবার, ৮ মে ২০২৪
দেশে ফিরেই রাজধানীর বেইলি রোডের বহুতল ভবন গ্রিন কোজি কটেজে আগুনের ঘটনায় ‘কাচ্চি ভাই’ রেস্টুরেন্টের মালিক সোহেল সিরাজ গ্রেফতার হয়েছেন।
বুধবার (৮ মে) সকালে সোহেল সিরাজকে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালতে পাঠায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। শুনানি শেষে আদালত তার দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এর আগে মঙ্গলবার (৭ মে) রাতে মালয়েশিয়া থেকে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে নামার পরই অভিবাসন পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে সোহেলকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগে (সিআইডি) হস্তান্তর করা হয়। এ নিয়ে ভয়াবহ ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সাতজন গ্রেফতার হলেন।
ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপ-পরিদর্শক (এসআই) নিজামউদ্দিন ফকির সোহেলের গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে বেইলি রোডের গ্রিন কোজি কটেজ নামের বহুতল ভবনে আগ্নিকাণ্ড ঘটে। এতে ৪৬ জন প্রাণ হারান। ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ছিল কাচ্চি ভাই রেস্টুরেন্টটি। এ ছাড়া ভবনটির অন্য তলায়ও অনেকগুলো খাবারের দোকান ছিল।
এ ঘটনায় অবহেলার কারণে মৃত্যুর অভিযোগে মামলা করে পুলিশ। মামলাটি তদন্ত করছে সিআইডি।