১১:৫৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শঙ্কা কাটিয়ে নির্বিঘ্নে শেষ হচ্ছে এবারের হজযাত্রা

❖ এ পর্যন্ত প্রায় ৮৩ হাজার হজযাত্রী সৌদি পৌঁছেছেন
❖ শেষ হজফ্লাইট আজ ঢাকা ছাড়বে
❖ এ পর্যন্ত ১৫ হজযাত্রীর মৃত্যু

এবার পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ জুন। বিশে^র অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৬৩ হাজার হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। বাকি হজযাত্রীদের নিয়ে আজ দুপুরে শেষ ফ্লাইট ঢাকা ছাড়বে। এরইমধ্য দিয়ে বাংলাদেশ থেকে এবারের হজযাত্রার কার্যক্রম শেষ হচ্ছে। নানা শঙ্কা ও উদ্বেগ থাকলেও শেষ পর্যন্ত এবারের হজযাত্রা নির্বিঘ্নভাবেই শেষ হচ্ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এখন পর্যন্ত কারো হজযাত্রা বাতিল বা বড়ধরনের কোনো অনিশ্চয়তা নেই বলে হজ অফিস এবং হাব নেতারা জানিয়েছেন।

এবারের হজ কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে আশকোনা হজ অফিসের সহকারী পরিচালক আব্দুল মালেক গতকাল সবুজ বাংলাকে বলেন, এবার হজযাত্রায় কোনো সমস্যা হয়নি। সবকিছু ঠিকঠাকমতোই হচ্ছে। আজ বুধবার দুপুর দুইটায় সর্বশেষ হজফ্লাইট ঢাকা ছাড়বে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সূত্রমতে, বাংলাদেশ এবং সৌদি রাজকীয় সরকারের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় হজচুক্তি মোতাবেক এ বছর বাংলাদেশের জন্য ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রীর কোটা বরাদ্দ করা হয়। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ১৭ হাজার জনের কোটা বরাদ্ধ করা হয়। তবে নানা কারণে এ কোটা পূরণ হয়নি। এবার গাইডসহ সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪ হাজার ৫৬২ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮০ হাজার ৬৯৫ জন মোট ৮৫,২৫৭ জন হজযাত্রী হজে গমণের জন্য নিবন্ধন করেন।

হজ অফিসের তথ্য অনুযায়ী গত ১০ জুন পর্যন্ত ৭৯ হাজার ৫৫৯ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। এরমধ্যে একজন নারীসহ ১৫ জন মারা গেছেন। গতকাল ৮টি ফ্লাইটে প্রায় তিন হাজার হজযাত্রীর সৌদি যাওয়ার কথা ছিল। সেহিসেবে এরই মধ্যে প্রায় ৮৩ হাজার হজযাত্রী দেশটিতে পৌঁছেছেন। বাকি হজযাত্রীদের নিয়ে আজ ফ্লাইনাস ও সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের ৬টি ফ্লাইট ঢাকা ছাড়বে। গত ৯ মে থেকে হজফ্লাইট শুরু হয়।

এবারের হজ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে জানতে চাইলে বেসরকারি হজ এজেন্সি মালিকদের সংগঠন-হাবের সভাপতি এম শাহাদত হোসাইন তসলিম মক্কা থেকে সবুজ বাংলাকে বলেন, আলহামদুলিল্লাহ-এবার হজযাত্রায় কোনো সমস্যা হয়নি। সব হজযাত্রীই নির্বিঘ্নে সৌদিতে পৌঁছাতে পারছেন।

এর আগে তিনি বলেন, এ বছর ভিসা ও টিকেট ইস্যু সম্পন্নকরণ নিয়ে বহু শঙ্কা, অনিশ্চয়তা ও উৎকণ্ঠা ছিল। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে, প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে ও নির্দেশনায়, ধর্ম মন্ত্রণালয় ও হাব এর যৌথ প্রচেষ্টায় এ বছর নিবন্ধিত হজযাত্রীদের প্রায় সব ভিসা ও টিকিট ইস্যু করা সম্ভব হয়েছে। সামান্য কিছু হজযাত্রী প্রতিবছরই অসুস্থতা, মৃতুজনিত কারণ বা অন্যান্য ব্যাক্তিগত কারণে স্বেচ্ছায় গমন বাতিল করেন।

এদিকে সৌদি আরবে অবস্থানরত বাংলাদেশি হজযাত্রীদের সহায়তার জন্য সরকারের ধর্মমন্ত্রণালয় গঠিত বিভিন্ন টিম দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া হাবের পক্ষ থেকেও হজযাত্রীদের সেবা প্রদান করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

শঙ্কা কাটিয়ে নির্বিঘ্নে শেষ হচ্ছে এবারের হজযাত্রা

আপডেট সময় : ০৭:৪৮:৩৪ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

❖ এ পর্যন্ত প্রায় ৮৩ হাজার হজযাত্রী সৌদি পৌঁছেছেন
❖ শেষ হজফ্লাইট আজ ঢাকা ছাড়বে
❖ এ পর্যন্ত ১৫ হজযাত্রীর মৃত্যু

এবার পবিত্র হজ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৫ জুন। বিশে^র অন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৬৩ হাজার হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। বাকি হজযাত্রীদের নিয়ে আজ দুপুরে শেষ ফ্লাইট ঢাকা ছাড়বে। এরইমধ্য দিয়ে বাংলাদেশ থেকে এবারের হজযাত্রার কার্যক্রম শেষ হচ্ছে। নানা শঙ্কা ও উদ্বেগ থাকলেও শেষ পর্যন্ত এবারের হজযাত্রা নির্বিঘ্নভাবেই শেষ হচ্ছে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা। এখন পর্যন্ত কারো হজযাত্রা বাতিল বা বড়ধরনের কোনো অনিশ্চয়তা নেই বলে হজ অফিস এবং হাব নেতারা জানিয়েছেন।

এবারের হজ কার্যক্রম সম্পর্কে জানতে চাইলে আশকোনা হজ অফিসের সহকারী পরিচালক আব্দুল মালেক গতকাল সবুজ বাংলাকে বলেন, এবার হজযাত্রায় কোনো সমস্যা হয়নি। সবকিছু ঠিকঠাকমতোই হচ্ছে। আজ বুধবার দুপুর দুইটায় সর্বশেষ হজফ্লাইট ঢাকা ছাড়বে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সূত্রমতে, বাংলাদেশ এবং সৌদি রাজকীয় সরকারের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় হজচুক্তি মোতাবেক এ বছর বাংলাদেশের জন্য ১ লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন হজযাত্রীর কোটা বরাদ্দ করা হয়। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার ১৯৮ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১ লাখ ১৭ হাজার জনের কোটা বরাদ্ধ করা হয়। তবে নানা কারণে এ কোটা পূরণ হয়নি। এবার গাইডসহ সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৪ হাজার ৫৬২ এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮০ হাজার ৬৯৫ জন মোট ৮৫,২৫৭ জন হজযাত্রী হজে গমণের জন্য নিবন্ধন করেন।

হজ অফিসের তথ্য অনুযায়ী গত ১০ জুন পর্যন্ত ৭৯ হাজার ৫৫৯ জন হজযাত্রী সৌদি আরবে পৌঁছেছেন। এরমধ্যে একজন নারীসহ ১৫ জন মারা গেছেন। গতকাল ৮টি ফ্লাইটে প্রায় তিন হাজার হজযাত্রীর সৌদি যাওয়ার কথা ছিল। সেহিসেবে এরই মধ্যে প্রায় ৮৩ হাজার হজযাত্রী দেশটিতে পৌঁছেছেন। বাকি হজযাত্রীদের নিয়ে আজ ফ্লাইনাস ও সৌদিয়া এয়ারলাইন্সের ৬টি ফ্লাইট ঢাকা ছাড়বে। গত ৯ মে থেকে হজফ্লাইট শুরু হয়।

এবারের হজ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে জানতে চাইলে বেসরকারি হজ এজেন্সি মালিকদের সংগঠন-হাবের সভাপতি এম শাহাদত হোসাইন তসলিম মক্কা থেকে সবুজ বাংলাকে বলেন, আলহামদুলিল্লাহ-এবার হজযাত্রায় কোনো সমস্যা হয়নি। সব হজযাত্রীই নির্বিঘ্নে সৌদিতে পৌঁছাতে পারছেন।

এর আগে তিনি বলেন, এ বছর ভিসা ও টিকেট ইস্যু সম্পন্নকরণ নিয়ে বহু শঙ্কা, অনিশ্চয়তা ও উৎকণ্ঠা ছিল। কিন্তু আল্লাহর অশেষ রহমতে, প্রধানমন্ত্রীর প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে ও নির্দেশনায়, ধর্ম মন্ত্রণালয় ও হাব এর যৌথ প্রচেষ্টায় এ বছর নিবন্ধিত হজযাত্রীদের প্রায় সব ভিসা ও টিকিট ইস্যু করা সম্ভব হয়েছে। সামান্য কিছু হজযাত্রী প্রতিবছরই অসুস্থতা, মৃতুজনিত কারণ বা অন্যান্য ব্যাক্তিগত কারণে স্বেচ্ছায় গমন বাতিল করেন।

এদিকে সৌদি আরবে অবস্থানরত বাংলাদেশি হজযাত্রীদের সহায়তার জন্য সরকারের ধর্মমন্ত্রণালয় গঠিত বিভিন্ন টিম দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া হাবের পক্ষ থেকেও হজযাত্রীদের সেবা প্রদান করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।