০৯:১৬ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

পবিপ্রবিতে অত্যাধুনিক গবেষণা ও উদ্ভাবনকেন্দ্র গড়ছে সরকার

দেশের ভবিষ্যৎ সাফল্যের কথা চিন্তা করে গবেষণা ও উদ্ভাবনের উপরে গুরুত্ব বাড়াতে বাংলাদেশ সরকার পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি)  অত্যাধুনিক গবেষণা ও উদ্ভাবনকেন্দ্র গড়ে তুলতে চলেছে। যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সুযোগ পাবে মানসম্পন্ন গবেষণা করার।
গত ৬ ফেব্রুয়ারি মিরপুরের ইয়ুথ টাওয়ারে এনহ্যান্সিং ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যান্ড ইকোনমি (ইডিজিই) প্রকল্পের সম্মেলনকক্ষে ইডিজিই প্রকল্প ও পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সহ ১০টি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পৃথক পৃথক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।
উক্ত স্বাক্ষরতা অনুষ্ঠানে ইডিজিই প্রকল্প পবিপ্রবিতে আরআইসি প্রতিষ্ঠাসহ জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ সমস্যার সমাধানে ভালো গবেষণা ও উদ্ভাবনে অর্থায়ন করবে।
উল্লেখ্য যে, পবিপ্রবি ইতিমধ্যেই দেশের প্রথম জলহস্তীর     পূর্ণাঙ্গ কঙ্কাল বানিয়ে দেশের শিক্ষাঙ্গনে সাড়া ফেলে দিয়েছে। এছাড়াও কৃষিক্ষেত্রে তাদের গবেষণা ব্যাপক অবদান রেখে চলেছে। এমন মুহূর্তে অত্যাধুনিক গবেষণা ও উদ্ভাবন কেন্দ্র গড়ার খবরে সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ উচ্ছ্বসিত।
এ উপলক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব  সামসুল আরেফিন বলেন, আরআইসি প্রতিষ্ঠার অন্যতম লক্ষ্য হলো বাজারভিত্তিক পণ্য ও সেবা উৎপাদন ও জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ সমস্যার সমাধানে সরকার, শিল্প ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সমন্বিত ও সহযোগিতামূলক গবেষণা ও উদ্ভাবনী কার্যক্রম পরিচালনা করা। এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।

ফুটপাত থেকে হকার মুক্ত করতে চসিকের ফের অভিযান

পবিপ্রবিতে অত্যাধুনিক গবেষণা ও উদ্ভাবনকেন্দ্র গড়ছে সরকার

আপডেট সময় : ০৫:২৮:১৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
দেশের ভবিষ্যৎ সাফল্যের কথা চিন্তা করে গবেষণা ও উদ্ভাবনের উপরে গুরুত্ব বাড়াতে বাংলাদেশ সরকার পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (পবিপ্রবি)  অত্যাধুনিক গবেষণা ও উদ্ভাবনকেন্দ্র গড়ে তুলতে চলেছে। যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা সুযোগ পাবে মানসম্পন্ন গবেষণা করার।
গত ৬ ফেব্রুয়ারি মিরপুরের ইয়ুথ টাওয়ারে এনহ্যান্সিং ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যান্ড ইকোনমি (ইডিজিই) প্রকল্পের সম্মেলনকক্ষে ইডিজিই প্রকল্প ও পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় সহ ১০টি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পৃথক পৃথক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়।
উক্ত স্বাক্ষরতা অনুষ্ঠানে ইডিজিই প্রকল্প পবিপ্রবিতে আরআইসি প্রতিষ্ঠাসহ জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ সমস্যার সমাধানে ভালো গবেষণা ও উদ্ভাবনে অর্থায়ন করবে।
উল্লেখ্য যে, পবিপ্রবি ইতিমধ্যেই দেশের প্রথম জলহস্তীর     পূর্ণাঙ্গ কঙ্কাল বানিয়ে দেশের শিক্ষাঙ্গনে সাড়া ফেলে দিয়েছে। এছাড়াও কৃষিক্ষেত্রে তাদের গবেষণা ব্যাপক অবদান রেখে চলেছে। এমন মুহূর্তে অত্যাধুনিক গবেষণা ও উদ্ভাবন কেন্দ্র গড়ার খবরে সকল শিক্ষার্থী ও শিক্ষকবৃন্দ উচ্ছ্বসিত।
এ উপলক্ষে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব  সামসুল আরেফিন বলেন, আরআইসি প্রতিষ্ঠার অন্যতম লক্ষ্য হলো বাজারভিত্তিক পণ্য ও সেবা উৎপাদন ও জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ সমস্যার সমাধানে সরকার, শিল্প ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সমন্বিত ও সহযোগিতামূলক গবেষণা ও উদ্ভাবনী কার্যক্রম পরিচালনা করা। এ জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে।