০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গায়ের চামড়া দিয়ে মাকে জুতা বানিয়ে পরালেন ছেলে

 

‘মা’ একটা আবেগের নাম। পৃথিবীতে মায়ের মতো কেউ হয় না। এবার সেই কথাকে বাস্তবে প্রমাণ করলেন ছেলে। নিজের গায়ের চামড়া দিয়ে মায়ের জন্য বানিয়েছেন জুতা। শুধু তাই নয়, নিজের হাতে মায়ের পায়ে পরিয়ে দিয়েছেন সেই জুতা।

 

ওই যুবকের নাম রৌনক গুর্জর। ভারতের মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়িনীর বাসিন্দা তিনি। রৌনক গুর্জর জানান, তিনি রামায়ণের ভক্ত। প্রতিদিন একবার করে রামায়ণ পাঠ করেন তিনি। রাম তার আদর্শ। সেই গ্রন্থ পাঠ করেই মায়ের জন্য কিছু করার ইচ্ছা জাগে তার মনে। এজন্য নিজের গায়ের চামড়া দিয়ে মায়ের জন্য জুতা তৈরির পরিকল্পনা করেন।

 

জানা গেছে, অতীতে বিভিন্ন অপরাধমূলক কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন রৌনক। একবার পায়ে পুলিশের গুলিও খান তিনি। পরে সেই পায়ের অংশ থেকে অস্ত্রপচারের মাধ্যমে কিছুটা চামড়া কেটে মায়ের জন্য জুতা বানান এই ছেলে। শুধু তাই নয়, নিজের হাতে মায়ের পায়ে পরিয়ে দেন সেই জুতা। এতে আবেগে মা কেঁদে ফেলেন। জুতা পেয়ে উচ্ছ্বসিত মা বলেন, ও কী করেছে, আমি জানতে পারিনি। এমন ছেলে যেন ঈশ্বর সব মাকেই দেন।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, রামায়ণ অনুযায়ী, ভগবান রাম একবার বলেছিলেন, নিজের চামড়া দিয়ে তৈরি জুতা মায়ের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের জন্য যথেষ্ট নয়। সেখান থেকেই ভাবনাটি মাথায় আসে বলে জানায় ওই যুবক।

জনপ্রিয় সংবাদ

গায়ের চামড়া দিয়ে মাকে জুতা বানিয়ে পরালেন ছেলে

আপডেট সময় : ০৭:১৪:২৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৫ মার্চ ২০২৪

 

‘মা’ একটা আবেগের নাম। পৃথিবীতে মায়ের মতো কেউ হয় না। এবার সেই কথাকে বাস্তবে প্রমাণ করলেন ছেলে। নিজের গায়ের চামড়া দিয়ে মায়ের জন্য বানিয়েছেন জুতা। শুধু তাই নয়, নিজের হাতে মায়ের পায়ে পরিয়ে দিয়েছেন সেই জুতা।

 

ওই যুবকের নাম রৌনক গুর্জর। ভারতের মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়িনীর বাসিন্দা তিনি। রৌনক গুর্জর জানান, তিনি রামায়ণের ভক্ত। প্রতিদিন একবার করে রামায়ণ পাঠ করেন তিনি। রাম তার আদর্শ। সেই গ্রন্থ পাঠ করেই মায়ের জন্য কিছু করার ইচ্ছা জাগে তার মনে। এজন্য নিজের গায়ের চামড়া দিয়ে মায়ের জন্য জুতা তৈরির পরিকল্পনা করেন।

 

জানা গেছে, অতীতে বিভিন্ন অপরাধমূলক কার্যকলাপের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন রৌনক। একবার পায়ে পুলিশের গুলিও খান তিনি। পরে সেই পায়ের অংশ থেকে অস্ত্রপচারের মাধ্যমে কিছুটা চামড়া কেটে মায়ের জন্য জুতা বানান এই ছেলে। শুধু তাই নয়, নিজের হাতে মায়ের পায়ে পরিয়ে দেন সেই জুতা। এতে আবেগে মা কেঁদে ফেলেন। জুতা পেয়ে উচ্ছ্বসিত মা বলেন, ও কী করেছে, আমি জানতে পারিনি। এমন ছেলে যেন ঈশ্বর সব মাকেই দেন।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, রামায়ণ অনুযায়ী, ভগবান রাম একবার বলেছিলেন, নিজের চামড়া দিয়ে তৈরি জুতা মায়ের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের জন্য যথেষ্ট নয়। সেখান থেকেই ভাবনাটি মাথায় আসে বলে জানায় ওই যুবক।