০৯:২৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শেখ হাসিনা যতদিন প্রধানমন্ত্রী আছেন ততদিন মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বৃদ্ধি পেতেই থাকবে –পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ।

ধামইরহাটে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা প্রদান ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার এমপি বলেন, “শেখ হাসিনা যতদিন প্রধানমন্ত্রী আছেন ততদিন মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বৃদ্ধি পেতেই থাকবে। তিনি আরো বলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে ১৯৭১ সালে যারা স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশকে স্বাধীন করেছেন তাদের প্রতি জাতি কৃতজ্ঞ। “ধামইরহাট উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় উপজেলা পরিষদ আডিটোরিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসমা খাতুন। সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যান আজাহার আলী, সহকারি কমিশনার (ভূমি) জেসমিন আক্তার,  উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দেলদার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা, ওসি হাবিবুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান, ইয়াকুব আলী ও আব্দুর রউফ মন্ডল। যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সরদারের সঞ্চালনায় ২১২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের হাতে সংবর্ধনা পুরস্কার তুলে দেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার এমপি। এর আগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে দিনের প্রথম প্রহরে পুলিশ প্রশাসনের তোপদ্ধনির মাধ্যমে দিবসের শুরুতেই স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক ও অর্পণ, সকাল সাড়ে ৮টায় ধামইরহাট এমএম সরকারি ডিগ্রী কলেজ মাঠে পতাকা উত্তোলন, বেলুন উড়ানো, কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয়।
জনপ্রিয় সংবাদ

শেখ হাসিনা যতদিন প্রধানমন্ত্রী আছেন ততদিন মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বৃদ্ধি পেতেই থাকবে –পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ।

আপডেট সময় : ০৭:১৬:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০২৪
ধামইরহাটে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা প্রদান ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার এমপি বলেন, “শেখ হাসিনা যতদিন প্রধানমন্ত্রী আছেন ততদিন মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান বৃদ্ধি পেতেই থাকবে। তিনি আরো বলেন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে ১৯৭১ সালে যারা স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশকে স্বাধীন করেছেন তাদের প্রতি জাতি কৃতজ্ঞ। “ধামইরহাট উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় উপজেলা পরিষদ আডিটোরিয়ামে মুক্তিযোদ্ধা, যুদ্ধাহত এবং শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আসমা খাতুন। সম্বর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়াম্যান আজাহার আলী, সহকারি কমিশনার (ভূমি) জেসমিন আক্তার,  উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দেলদার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শহিদুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা, ওসি হাবিবুর রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুজ্জামান, ইয়াকুব আলী ও আব্দুর রউফ মন্ডল। যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুজ্জামান সরদারের সঞ্চালনায় ২১২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের হাতে সংবর্ধনা পুরস্কার তুলে দেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী শহীদুজ্জামান সরকার এমপি। এর আগে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে দিনের প্রথম প্রহরে পুলিশ প্রশাসনের তোপদ্ধনির মাধ্যমে দিবসের শুরুতেই স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক ও অর্পণ, সকাল সাড়ে ৮টায় ধামইরহাট এমএম সরকারি ডিগ্রী কলেজ মাঠে পতাকা উত্তোলন, বেলুন উড়ানো, কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয়।