০৭:০৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ৭ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বাবা-মায়ের ডিভোর্সে বাড়ি ছাড়ল ছেলে

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে ১৪ বছর বয়সি এক শিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাকে একটি মসজিদের সামনে ভিক্ষা করতে দেখা গিয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্যের সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস জানিয়েছে, শিশুটির বাবা ও মায়ের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর তার বাবা আরেকটি বিয়ে করে। এ নিয়ে ঘরের ভেতর অশান্তি তৈরি হয়। এরপর বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় সে। দুবাই পুলিশ বলেছে, শিশুটিকে মসজিদের সামনে ভিক্ষা করতে দেখে একজন ব্যক্তি তাদের অবহিত করে। বিষয়টি জানতে পেরে ওই মসজিদের সামনে যান পুলিশ সদস্যরা। তখন তারা তাকে নিয়ে আসেন।

 

দুবাই পুলিশের কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার আলী সালিম আল সামসি বলেছেন, শিশুটির কাছে যাওয়া এবং তাকে সাহায্য করতে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হয়। এছাড়া গুরুত্বের সঙ্গে তার জীবনের গল্প শোনা হয়। এতে বের হয়ে আসে বাবা-মায়ের ডিভোর্স এবং বাবার দ্বিতীয় বিয়ের কারণে তৈরি দ্বন্দ্বের কারণে সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় এবং ভিক্ষাবৃত্তি শুরু করে। শিশুটি কতদিন বাড়ির বাইরে ছিল এবং কোথায় রাত্রিযাপন করেছে সে বিষয়টি নিশ্চিত নয়। এছাড়া শিশুটির পরিবারের জাতীয়তাও প্রকাশ করেনি দুবাই পুলিশ।

 

পুলিশ জানিয়েছে, তারা শিশুটির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে। এরপর তার পরিবার সিদ্ধান্ত নেয় শিশুটি এখন থেকে তার মায়ের সঙ্গে থাকবে। দুবাইসহ আরব আমিরাতের সব জায়গায় ভিক্ষা নিষিদ্ধ এবং এটি একটি দণ্ডনীয় অপরাধ। কোথাও কাউকে ভিক্ষা করতে দেখলে সেখানে দ্রুত পুলিশ উপস্থিত হয়। রমজানে ভিক্ষার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে অনেকে প্রতারণা করে থাকেন।

 

জনপ্রিয় সংবাদ

বাবা-মায়ের ডিভোর্সে বাড়ি ছাড়ল ছেলে

আপডেট সময় : ০৭:৩৮:৩১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে ১৪ বছর বয়সি এক শিশুকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাকে একটি মসজিদের সামনে ভিক্ষা করতে দেখা গিয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্যের সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস জানিয়েছে, শিশুটির বাবা ও মায়ের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায়। এরপর তার বাবা আরেকটি বিয়ে করে। এ নিয়ে ঘরের ভেতর অশান্তি তৈরি হয়। এরপর বাড়ি থেকে পালিয়ে যায় সে। দুবাই পুলিশ বলেছে, শিশুটিকে মসজিদের সামনে ভিক্ষা করতে দেখে একজন ব্যক্তি তাদের অবহিত করে। বিষয়টি জানতে পেরে ওই মসজিদের সামনে যান পুলিশ সদস্যরা। তখন তারা তাকে নিয়ে আসেন।

 

দুবাই পুলিশের কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার আলী সালিম আল সামসি বলেছেন, শিশুটির কাছে যাওয়া এবং তাকে সাহায্য করতে দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়া হয়। এছাড়া গুরুত্বের সঙ্গে তার জীবনের গল্প শোনা হয়। এতে বের হয়ে আসে বাবা-মায়ের ডিভোর্স এবং বাবার দ্বিতীয় বিয়ের কারণে তৈরি দ্বন্দ্বের কারণে সে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় এবং ভিক্ষাবৃত্তি শুরু করে। শিশুটি কতদিন বাড়ির বাইরে ছিল এবং কোথায় রাত্রিযাপন করেছে সে বিষয়টি নিশ্চিত নয়। এছাড়া শিশুটির পরিবারের জাতীয়তাও প্রকাশ করেনি দুবাই পুলিশ।

 

পুলিশ জানিয়েছে, তারা শিশুটির পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে। এরপর তার পরিবার সিদ্ধান্ত নেয় শিশুটি এখন থেকে তার মায়ের সঙ্গে থাকবে। দুবাইসহ আরব আমিরাতের সব জায়গায় ভিক্ষা নিষিদ্ধ এবং এটি একটি দণ্ডনীয় অপরাধ। কোথাও কাউকে ভিক্ষা করতে দেখলে সেখানে দ্রুত পুলিশ উপস্থিত হয়। রমজানে ভিক্ষার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়। আর এই সুযোগ কাজে লাগিয়ে অনেকে প্রতারণা করে থাকেন।