১২:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বারহাট্টায় উপজেলা নির্বাচন কে কেন্দ্র করে ৬ ইউপি সদস্য  এক সাথে 

নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের একসাথে ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।
গতকাল ১৪ মে মঙ্গলবার একটি ফেইসবুক আইডি থেকে ডাইনিং টেবিলে বসা অবস্থায় ছয় চেয়ারম্যান এর ছবিটি ভাইরাল হয়। জানা যায় বাউসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল হক এর নেতৃত্বে বারহাট্টার ইউপি চেয়ারম্যান গণ গোপন বৈঠকে বসে। তারা হলেন বাউসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল হক, রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম রাজু, সাহতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চঞ্চল, আসমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম খান চন্দু, চিরাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছাইদুর রহমান ও সিংধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসিম তালুকদার।
পোস্ট কারী বলে ৬ জন চেয়ারম্যান টাকার কাছে বিক্রি হয়ে গেছে। জনগণ এতো বোকা নয়, তারা যোগ্য প্রার্থীকেই ভোটে নির্বাচিত করবে।
বাউসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল হক বলেন। আমরা কাউকে টাকা দেইনি বা নেইনি। মোটরসাইকেলের প্রার্থীকে আমরা একবার নির্বাচিত করেছি এখন আমরা আরও ভাল প্রার্থীর সাথে আছি।  যারা আমাদের ছবি পোস্ট করেছে এবং বলছে আমরা টাকা নিয়ে নির্বাচন করছি তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনি ব্যবস্থা নেবো।
উঠান বৈঠকে মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী খায়রুল কবীর খোকন বলেন, আপনারা টাকার কাছে নিজেদের বিবেক বিক্রি করবেন না। আপনাদের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা আজ গোপন বৈঠক করে। বিভিন্ন জায়গায় টাকা দিতে গিয়ে ধরাও পরে। আমি খায়রুল কবীর আপনাদের সৃষ্টি। আপনারা আমাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করে নেতা বানিয়েছেন। আপনাদের সৃষ্টি আপনারা ধ্বংস করবেন না।
আগামী ২১ মে বুধবার অনুষ্ঠিত হবে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। বারহাট্টা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুল কবীর খোকন মোটরসাইকেল প্রতীকে ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী সাখাওয়াত হোসেন ঘোড়া প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৬ জন প্রার্থী প্রতিযোগিতা করছে।
জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

বারহাট্টায় উপজেলা নির্বাচন কে কেন্দ্র করে ৬ ইউপি সদস্য  এক সাথে 

আপডেট সময় : ০৫:৫৮:২৯ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৫ মে ২০২৪
নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ৬ ইউপি চেয়ারম্যানের একসাথে ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে।
গতকাল ১৪ মে মঙ্গলবার একটি ফেইসবুক আইডি থেকে ডাইনিং টেবিলে বসা অবস্থায় ছয় চেয়ারম্যান এর ছবিটি ভাইরাল হয়। জানা যায় বাউসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শামছুল হক এর নেতৃত্বে বারহাট্টার ইউপি চেয়ারম্যান গণ গোপন বৈঠকে বসে। তারা হলেন বাউসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল হক, রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুল ইসলাম রাজু, সাহতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চঞ্চল, আসমা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম খান চন্দু, চিরাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছাইদুর রহমান ও সিংধা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাসিম তালুকদার।
পোস্ট কারী বলে ৬ জন চেয়ারম্যান টাকার কাছে বিক্রি হয়ে গেছে। জনগণ এতো বোকা নয়, তারা যোগ্য প্রার্থীকেই ভোটে নির্বাচিত করবে।
বাউসী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামছুল হক বলেন। আমরা কাউকে টাকা দেইনি বা নেইনি। মোটরসাইকেলের প্রার্থীকে আমরা একবার নির্বাচিত করেছি এখন আমরা আরও ভাল প্রার্থীর সাথে আছি।  যারা আমাদের ছবি পোস্ট করেছে এবং বলছে আমরা টাকা নিয়ে নির্বাচন করছি তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনি ব্যবস্থা নেবো।
উঠান বৈঠকে মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী খায়রুল কবীর খোকন বলেন, আপনারা টাকার কাছে নিজেদের বিবেক বিক্রি করবেন না। আপনাদের ভোটে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা আজ গোপন বৈঠক করে। বিভিন্ন জায়গায় টাকা দিতে গিয়ে ধরাও পরে। আমি খায়রুল কবীর আপনাদের সৃষ্টি। আপনারা আমাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে সহযোগিতা করে নেতা বানিয়েছেন। আপনাদের সৃষ্টি আপনারা ধ্বংস করবেন না।
আগামী ২১ মে বুধবার অনুষ্ঠিত হবে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। বারহাট্টা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের সভাপতি খায়রুল কবীর খোকন মোটরসাইকেল প্রতীকে ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজী সাখাওয়াত হোসেন ঘোড়া প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান ৩ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৬ জন প্রার্থী প্রতিযোগিতা করছে।