০৫:১৯ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফেনীতে সিএনজি’র যাত্রী সেজে  ছিনতাই,পৃথক ঘটনায় গ্রেপ্তার-২ 

ফেনীতে সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী সেজে ছিনতাইয়ের পৃথক ঘটনায় দুই দূর্বৃত্বকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।রোববার (১২ মে) রাতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়।
এরা হলেন, ছাগলনাইয়া পৌর এলাকার পশ্চিম ছাগলনাইয়া বক্সি সওদাগর বাড়ী/আদু মিয়ার বাড়ীর মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোঃ ইয়াছিন আরাফাত(২৩)
ও ফেনী শহরের বিরিঞ্চি এলাকার আলম গাজী রোডস্থ মইন উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম সৈকত(২৮)।এর আগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকালে শহরের নাজির রোড  এবং সদর উপজেলার মোটবী এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালানা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত একটি মোবাইল ও কিছু নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ জানায়, গত ০৩ মে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে রাজীব কর্মকার এক ব্যাক্তি জেলার ছাগলনাইয়া হতে সিএনজি যোগে ফেনী শহরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে।
এসময় ওই সিএনজির  চালকসহ অপরাপর অজ্ঞাতনামা আরও দুইজন ছিনতাইতকারী তাকে ফেনী সদর উপজেলার  কাজিরবাগ এলাকার একটি  নির্জন সড়কে তাঁর গলায় ও হাতে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে ভয়ভীতি দেখিয়ে সঙ্গে থাকা নগদ ৩০ হাজার টাকা  ব্যবহৃত ০১টি মোবাইল ফোন ও হাতঘড়ি ছিনতাই করে তাঁকে ওই সড়কে ফেলে সিএনজি চালিয়ে পালিয়ে যায়।
এঘটনায় ফেনী মডেল থানায় ভুক্তভোগীর দায়েরকৃত মামলা নং-০৭, তাং-০৪/৫/২০২৪ইং ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড।  তথ্য প্রযুক্তি ও ম্যানুয়াল সোর্সিংয়ের মাধ্যমে মডাস অপারেন্ডির ধরন বিবেচনায় নিয়ে এবং সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে শহরের নাজির রোড় থেকে মোঃ ইয়াছিন আরাফাত(২৩)কে গ্রেপ্তার করা হয়।
 এসময় তার কাছ থেকে  বাদীর  লুন্ঠিত বাদীর মোবাইল ফোন ও  ছিনতাইকৃত নগদ টাকার মধ্যে ৮শ টাকা  উদ্ধার করা হয়। অবশিষ্ট লুন্ঠিত নগদ টাকা ও হাতঘড়ি উদ্ধার এবং অপরাপর ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে পুলিশী অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে।
অপরদিকে গত ১২ মার্চ রাত সাড়ে ৮টার দিকে এমরান হোসেন সাকিব নামে ফেনীতে কর্মরত এক  সেলসম্যান  শহরের বিভিন্ন দোকান হতে কালেকশন পাওনা কালেকশন করে নগদ ১ লক্ষ ৩৪হাজার  টাকা এবং ৮/৯ হাজার টাকার কসমেটিক নিয়া মহিপাল যাওয়ার উদ্দেশ্যে ট্রাংক রোড হতে সিএনজি অটোরিকশায় উঠে।
এরপর তাঁকে বহনকৃত সিএনজি অটোরিকশাটি ফেনী জিয়া মহিলা কলেজের সামনে পৌছালে অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন ছিনতাইকারী অস্ত্রেমুখে তাঁকে জিম্মি করে মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে মারধর করতঃ তার সাথে থাকা নগদ টাকাগুলো ও  ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ছিনতাই করে তাকে তথায় ফেলে দিয়ে সিএনজি চালিয়ে  দ্রুত পালিয়ে যায়।
পরবর্তীতে ওই ভুক্তভোগীর দায়েরকৃত ফেনী মডেল থানার মামলা নং-০৫, তাং-০৪/৪/২০২৪ইং ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড। সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন সহ তথ্য প্রযুক্তি ও ম্যানুয়াল সোর্সিং এর মাধ্যমে মডাস অপারেন্ডির ধরন বিবেচনায় নিয়ে এবং সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে জেলার সদর উপজেলার মোটবী এলাকায় বিশেষ  অভিযান চালিয়ে নজরুলকে গ্রেপ্তার করা হয়।
ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীরা ঘটনার সহিত জড়িত  থাকার বিবষয়ে স্বীকার করে এবং অপরাপর আসামীদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করেছে।
তবে,ঘটনার সময় লুন্ঠিত বাদীর মোবাইল ফোন ও  নগদ টাকা এবং অপরাপর ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।

ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবেলায় কতটুকু প্রস্তুত পবিপ্রবি?

ফেনীতে সিএনজি’র যাত্রী সেজে  ছিনতাই,পৃথক ঘটনায় গ্রেপ্তার-২ 

আপডেট সময় : ০২:০৪:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১৩ মে ২০২৪
ফেনীতে সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী সেজে ছিনতাইয়ের পৃথক ঘটনায় দুই দূর্বৃত্বকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।রোববার (১২ মে) রাতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানানো হয়।
এরা হলেন, ছাগলনাইয়া পৌর এলাকার পশ্চিম ছাগলনাইয়া বক্সি সওদাগর বাড়ী/আদু মিয়ার বাড়ীর মোহাম্মদ আলীর ছেলে মোঃ ইয়াছিন আরাফাত(২৩)
ও ফেনী শহরের বিরিঞ্চি এলাকার আলম গাজী রোডস্থ মইন উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম সৈকত(২৮)।এর আগে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সকালে শহরের নাজির রোড  এবং সদর উপজেলার মোটবী এলাকায় বিশেষ অভিযান পরিচালানা করে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এসময় তাদের কাছ থেকে ছিনতাইকৃত একটি মোবাইল ও কিছু নগদ টাকা উদ্ধার করা হয়।
পুলিশ জানায়, গত ০৩ মে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে রাজীব কর্মকার এক ব্যাক্তি জেলার ছাগলনাইয়া হতে সিএনজি যোগে ফেনী শহরের উদ্দেশ্যে রওয়ানা করে।
এসময় ওই সিএনজির  চালকসহ অপরাপর অজ্ঞাতনামা আরও দুইজন ছিনতাইতকারী তাকে ফেনী সদর উপজেলার  কাজিরবাগ এলাকার একটি  নির্জন সড়কে তাঁর গলায় ও হাতে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরিকাঘাত করে ভয়ভীতি দেখিয়ে সঙ্গে থাকা নগদ ৩০ হাজার টাকা  ব্যবহৃত ০১টি মোবাইল ফোন ও হাতঘড়ি ছিনতাই করে তাঁকে ওই সড়কে ফেলে সিএনজি চালিয়ে পালিয়ে যায়।
এঘটনায় ফেনী মডেল থানায় ভুক্তভোগীর দায়েরকৃত মামলা নং-০৭, তাং-০৪/৫/২০২৪ইং ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড।  তথ্য প্রযুক্তি ও ম্যানুয়াল সোর্সিংয়ের মাধ্যমে মডাস অপারেন্ডির ধরন বিবেচনায় নিয়ে এবং সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে শহরের নাজির রোড় থেকে মোঃ ইয়াছিন আরাফাত(২৩)কে গ্রেপ্তার করা হয়।
 এসময় তার কাছ থেকে  বাদীর  লুন্ঠিত বাদীর মোবাইল ফোন ও  ছিনতাইকৃত নগদ টাকার মধ্যে ৮শ টাকা  উদ্ধার করা হয়। অবশিষ্ট লুন্ঠিত নগদ টাকা ও হাতঘড়ি উদ্ধার এবং অপরাপর ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে পুলিশী অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রয়েছে।
অপরদিকে গত ১২ মার্চ রাত সাড়ে ৮টার দিকে এমরান হোসেন সাকিব নামে ফেনীতে কর্মরত এক  সেলসম্যান  শহরের বিভিন্ন দোকান হতে কালেকশন পাওনা কালেকশন করে নগদ ১ লক্ষ ৩৪হাজার  টাকা এবং ৮/৯ হাজার টাকার কসমেটিক নিয়া মহিপাল যাওয়ার উদ্দেশ্যে ট্রাংক রোড হতে সিএনজি অটোরিকশায় উঠে।
এরপর তাঁকে বহনকৃত সিএনজি অটোরিকশাটি ফেনী জিয়া মহিলা কলেজের সামনে পৌছালে অজ্ঞাতনামা ৩/৪ জন ছিনতাইকারী অস্ত্রেমুখে তাঁকে জিম্মি করে মৃত্যুর ভয় দেখিয়ে মারধর করতঃ তার সাথে থাকা নগদ টাকাগুলো ও  ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ছিনতাই করে তাকে তথায় ফেলে দিয়ে সিএনজি চালিয়ে  দ্রুত পালিয়ে যায়।
পরবর্তীতে ওই ভুক্তভোগীর দায়েরকৃত ফেনী মডেল থানার মামলা নং-০৫, তাং-০৪/৪/২০২৪ইং ধারা-৩৯৪ পেনাল কোড। সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন সহ তথ্য প্রযুক্তি ও ম্যানুয়াল সোর্সিং এর মাধ্যমে মডাস অপারেন্ডির ধরন বিবেচনায় নিয়ে এবং সিসি টিভি ফুটেজ পর্যালোচনা করে জেলার সদর উপজেলার মোটবী এলাকায় বিশেষ  অভিযান চালিয়ে নজরুলকে গ্রেপ্তার করা হয়।
ফেনীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীরা ঘটনার সহিত জড়িত  থাকার বিবষয়ে স্বীকার করে এবং অপরাপর আসামীদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করেছে।
তবে,ঘটনার সময় লুন্ঠিত বাদীর মোবাইল ফোন ও  নগদ টাকা এবং অপরাপর ছিনতাইকারীদের গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে ।