০১:৫৬ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

খাগড়াছড়িতে এসপি সাথে ৯ টি থানার ওসির বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষরিত

পার্বত্য অঞ্চল খাগড়াছড়িতে পুলিশ সুপার মুক্তাধর পিপিএম (বার) মহোদয়ের সাথে ০৯ টি উপজেলার থানার অফিসার ইনচার্জদের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল সোমবার জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
সরকারি কর্মকাণ্ডে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি, সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকরণ এবং প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকারি কর্মসম্পাদন ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির আওতায় বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি প্রবর্তন করা হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক দক্ষতা বৃদ্ধি, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা জোরদার করা, সুশাসন সংহতকরণ, সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে রূপকল্প-২০৪১ এর যথাযথ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি ২০২৪-২০২৫ স্বাক্ষরিত হয়।
জুলাই ২০২৪ হতে জুন ২০২৫ পর্যন্ত খাগড়াছড়ি পার্বত্য  জেলার ০৯ টি থানা কি কি কাজ করবে তা এই চুক্তিতে লিপিবদ্ধ করা আছে। প্রতিটি থানার অফিসার ইনচার্জ পৃথক পৃথক ভাবে পুলিশ সুপার মহোদয়ের সাথে এপিএ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। সরকারি কর্মকাণ্ডে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি এবং প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি করা হয়।
এপিএ স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার বলেন, বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি, জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল ইত্যাদি আধুনিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার অন্যতম অনুষঙ্গ। এপিএ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পেশাদারিত্বের সাথে আন্তরিকভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য সকল পুলিশ অফিসারদের প্রতি আহ্বান জানান।
এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

খাগড়াছড়িতে এসপি সাথে ৯ টি থানার ওসির বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) স্বাক্ষরিত

আপডেট সময় : ০১:৫৫:১৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

পার্বত্য অঞ্চল খাগড়াছড়িতে পুলিশ সুপার মুক্তাধর পিপিএম (বার) মহোদয়ের সাথে ০৯ টি উপজেলার থানার অফিসার ইনচার্জদের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল সোমবার জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।
সরকারি কর্মকাণ্ডে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি, সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকরণ এবং প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকারি কর্মসম্পাদন ব্যবস্থাপনা পদ্ধতির আওতায় বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি প্রবর্তন করা হয়েছে। প্রাতিষ্ঠানিক দক্ষতা বৃদ্ধি, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা জোরদার করা, সুশাসন সংহতকরণ, সম্পদের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে রূপকল্প-২০৪১ এর যথাযথ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি ২০২৪-২০২৫ স্বাক্ষরিত হয়।
জুলাই ২০২৪ হতে জুন ২০২৫ পর্যন্ত খাগড়াছড়ি পার্বত্য  জেলার ০৯ টি থানা কি কি কাজ করবে তা এই চুক্তিতে লিপিবদ্ধ করা আছে। প্রতিটি থানার অফিসার ইনচার্জ পৃথক পৃথক ভাবে পুলিশ সুপার মহোদয়ের সাথে এপিএ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। সরকারি কর্মকাণ্ডে স্বচ্ছতা ও দায়বদ্ধতা বৃদ্ধি এবং প্রাতিষ্ঠানিক সক্ষমতা উন্নয়নের লক্ষ্যে বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি করা হয়।
এপিএ স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে পুলিশ সুপার বলেন, বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি, জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল ইত্যাদি আধুনিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার অন্যতম অনুষঙ্গ। এপিএ লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে পেশাদারিত্বের সাথে আন্তরিকভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য সকল পুলিশ অফিসারদের প্রতি আহ্বান জানান।
এ সময় খাগড়াছড়ি জেলা পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।