০৮:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

যশোরে ১৭৫ টাকা কেজিতে মুরগি  বিক্রি করছে আফিল গ্রুপ

যশোরে রোজার মাসে সুলভ মূল্যে ব্রয়লার মুরগি ও ডিম বিক্রয় কার্যক্রম শুরু করেছে আফিল গ্রুপ। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত আফিল এগ্রো লিমিটেডের চাঁচড়ার কার্যালয়ে ৯ টাকা ৪০ পয়সা পিস দরে মুরগির ডিম ও ১৭৫ টাকা কেজি মূল্যে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি করা হচ্ছে।
আফিল গ্রুপের পরিচালক মাহাবুব আলম লাবলু জানান, আফিল গ্রুপের আফিল এগ্রো লিমিটেড প্রতিদিন চার লাখ পিস ডিম উৎপাদন করে। রমজান মাসে সাধারণ মানুষের প্রয়োজন বিবেচনায় আমিষের ঘাটতি পূরণে সুলভ মূল্যে ডিম ও মুরগি বিক্রির কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
তিনি বলেন, ২৪ বছর আগে আফিল গ্রুপের আত্মপ্রকাশ ঘটে। ২০০০ সাল থেকে অদ্যাবধি শেখ আফিল উদ্দিনের মেধা, সততা  ও ভালোবাসার ফসল এই গ্রুপ। মাহবুব আলম লাবলু  আরো বলেন, বাংলাদেশে আফিল গ্রুপের ২৪টির বেশি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার বেশির ভাগই কৃষিভিত্তিক ও দেশ এবং মানুষের সেবায় নিয়োজিত। আফিল ফার্মের ডিম ও ব্রয়লার মুরগি সুলভ মূল্যে বিক্রয় কার্যক্রম তারই অংশ।
যশোর জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. রাশেদুল হক জানান, বাজারে এখন ব্রয়লার মুরগি ২০০ থেকে ২২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আর ডিম বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে সাড়ে ১০ টাকা পিস। এই বাজার দর সহনীয় করতে জেলা প্রশাসন ও প্রাণিসম্পদ দপ্তরের সহযোগিতায় সুলভ মূল্যে ডিম ও ব্রয়লার মুরগি বিক্রি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, এখানে ৯ টাকা ৪০ পয়সা পিস মুরগির ডিম ও ১৭৫ টাকা কেজি দরে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি করা হচ্ছে । প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিক্রি কার্যক্রম চলবে।
যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবরাউল হাছান মজুমদার বলেন, বিশ্বব্যাপী মন্দার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়েছে। যে কারণে খাদ্যের যোগান কিছুটা হলেও বিঘ্নিত হচ্ছে। স্বল্পমূল্যে ডিম ও মুরগি বিক্রির এই উদ্যোগ সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিনের অনন্য দৃষ্টান্ত। অন্যরাও এই দৃষ্টান্ত অনুসরণ করবে বলে আশা করছি।
প্রসঙ্গত, গত ২৫ মার্চ রোজার মাসে সুলভ মূল্যে ব্রয়লার মুরগি ও ডিম বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক প্রশাসক মোহাম্মদ আবরাউল হাছান মজুমদার। সংকটময় মুহূর্তে সাধারণ মানুষের পাশে থেকে আরো একটি নজির স্থাপন করলো আফিল গ্রুপ।  হাঁস-মুরগি, গবাদি পশু ও  মাছ চাষের মাধ্যমে কৃষির উন্নয়নে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে বিভিন্ন সময় শ্রেষ্ঠত্বের পদক অর্জন করেছে গ্রুপটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক যশোর-১ শার্শা আসনের সংসদ সদস্য  আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন।
জনপ্রিয় সংবাদ

যশোরে ১৭৫ টাকা কেজিতে মুরগি  বিক্রি করছে আফিল গ্রুপ

আপডেট সময় : ০৫:২৩:১৮ অপরাহ্ন, বুধবার, ২৭ মার্চ ২০২৪
যশোরে রোজার মাসে সুলভ মূল্যে ব্রয়লার মুরগি ও ডিম বিক্রয় কার্যক্রম শুরু করেছে আফিল গ্রুপ। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত আফিল এগ্রো লিমিটেডের চাঁচড়ার কার্যালয়ে ৯ টাকা ৪০ পয়সা পিস দরে মুরগির ডিম ও ১৭৫ টাকা কেজি মূল্যে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি করা হচ্ছে।
আফিল গ্রুপের পরিচালক মাহাবুব আলম লাবলু জানান, আফিল গ্রুপের আফিল এগ্রো লিমিটেড প্রতিদিন চার লাখ পিস ডিম উৎপাদন করে। রমজান মাসে সাধারণ মানুষের প্রয়োজন বিবেচনায় আমিষের ঘাটতি পূরণে সুলভ মূল্যে ডিম ও মুরগি বিক্রির কার্যক্রম শুরু হয়েছে।
তিনি বলেন, ২৪ বছর আগে আফিল গ্রুপের আত্মপ্রকাশ ঘটে। ২০০০ সাল থেকে অদ্যাবধি শেখ আফিল উদ্দিনের মেধা, সততা  ও ভালোবাসার ফসল এই গ্রুপ। মাহবুব আলম লাবলু  আরো বলেন, বাংলাদেশে আফিল গ্রুপের ২৪টির বেশি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। যার বেশির ভাগই কৃষিভিত্তিক ও দেশ এবং মানুষের সেবায় নিয়োজিত। আফিল ফার্মের ডিম ও ব্রয়লার মুরগি সুলভ মূল্যে বিক্রয় কার্যক্রম তারই অংশ।
যশোর জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. রাশেদুল হক জানান, বাজারে এখন ব্রয়লার মুরগি ২০০ থেকে ২২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আর ডিম বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে সাড়ে ১০ টাকা পিস। এই বাজার দর সহনীয় করতে জেলা প্রশাসন ও প্রাণিসম্পদ দপ্তরের সহযোগিতায় সুলভ মূল্যে ডিম ও ব্রয়লার মুরগি বিক্রি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। তিনি বলেন, এখানে ৯ টাকা ৪০ পয়সা পিস মুরগির ডিম ও ১৭৫ টাকা কেজি দরে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি করা হচ্ছে । প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বিক্রি কার্যক্রম চলবে।
যশোরের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আবরাউল হাছান মজুমদার বলেন, বিশ্বব্যাপী মন্দার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়েছে। যে কারণে খাদ্যের যোগান কিছুটা হলেও বিঘ্নিত হচ্ছে। স্বল্পমূল্যে ডিম ও মুরগি বিক্রির এই উদ্যোগ সংসদ সদস্য শেখ আফিল উদ্দিনের অনন্য দৃষ্টান্ত। অন্যরাও এই দৃষ্টান্ত অনুসরণ করবে বলে আশা করছি।
প্রসঙ্গত, গত ২৫ মার্চ রোজার মাসে সুলভ মূল্যে ব্রয়লার মুরগি ও ডিম বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক প্রশাসক মোহাম্মদ আবরাউল হাছান মজুমদার। সংকটময় মুহূর্তে সাধারণ মানুষের পাশে থেকে আরো একটি নজির স্থাপন করলো আফিল গ্রুপ।  হাঁস-মুরগি, গবাদি পশু ও  মাছ চাষের মাধ্যমে কৃষির উন্নয়নে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করে বিভিন্ন সময় শ্রেষ্ঠত্বের পদক অর্জন করেছে গ্রুপটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক যশোর-১ শার্শা আসনের সংসদ সদস্য  আলহাজ শেখ আফিল উদ্দিন।