১২:৪৯ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নওগাঁর তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা পেল ঈদ উপহার

নওগাঁয় পূর্ব ঘোষণা মোতাবেক হিজড়াদের মাঝে ঈদ উপহার প্রদান করেছেন সরকারী বসির উদ্দিন কো-অপারেটিভ মহিলা কলেজ (বিএমসি) নওগাঁর অধ্যক্ষ সামছুল হক। ১১জুন (মঙ্গলবার) দুপুরে কলেজ প্রাঙ্গনে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে অধ্যক্ষ সামছুল হক নওগাঁর হিজড়া সম্প্রদায়ের নেতার হাতে ঈদ উপহার হিসেবে নগদ বিশ হাজার টাকা তুলে দেন। এমন অনন্য ভালোবাসা প্রদান করায় নওগাঁর হিজড়া সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে অধ্যক্ষ সামছুল হক স্যারের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা হয়।
আসন্ন ইদুল আযহায় কোরবানীর পশু কিনে কোরবানী জাবাই করার মধ্যদিয়ে নিজেদের মাঝে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতেই মূলত হিজড়াদের এমন উপহার প্রদান করা হয়েছে বলে জানান অধ্যক্ষ সামছুল হক। তিনি আরো বলেন, আমরা সমাজের মানুষরা এই হিজড়াদের ঘৃর্ণা আর অবহেলার দৃষ্টিতে দেখি কিন্তু এরাও মহান আল্লাহর সৃষ্টি। পৃথিবীর সবকিছুতে এদেরও অধিকার আছে। তাই এই সম্প্রদায়ের মানুষগুলোকে ঘৃর্ণা আর অবহেলা না করে ভালোবাসার দৃষ্টিতে দেখা উচিত। আর এমন ভাবনা থেকেই সম্পন্ন নিজের অর্থায়নে এই মানুষগুলোর মাঝে ঈদের আনন্দ পৌছে দিতেই মূলত এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা। আগামীতেও এমন উদ্যোগ এই মানুষগুলোর জন্য অব্যাহত রাখার আশ্বাস প্রদান করেন এই কর্মকর্তা।
এসময় বাঁচার আশা সাংস্কৃতিক সংগঠন, নওহাঁটা, পবা, রাজশাহীর সভাপতি মোস্তফা সরকার বিজলী, প্রকল্প সমন্বয়কারী আখতারুজ্জামান, জেলার প্যারালিগ্যাল মোহাম্মদ আবির হোসেন, মুনিরা হিজড়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

নওগাঁর তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা পেল ঈদ উপহার

আপডেট সময় : ০১:৫৩:৫৮ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪
নওগাঁয় পূর্ব ঘোষণা মোতাবেক হিজড়াদের মাঝে ঈদ উপহার প্রদান করেছেন সরকারী বসির উদ্দিন কো-অপারেটিভ মহিলা কলেজ (বিএমসি) নওগাঁর অধ্যক্ষ সামছুল হক। ১১জুন (মঙ্গলবার) দুপুরে কলেজ প্রাঙ্গনে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে অধ্যক্ষ সামছুল হক নওগাঁর হিজড়া সম্প্রদায়ের নেতার হাতে ঈদ উপহার হিসেবে নগদ বিশ হাজার টাকা তুলে দেন। এমন অনন্য ভালোবাসা প্রদান করায় নওগাঁর হিজড়া সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে অধ্যক্ষ সামছুল হক স্যারের প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করা হয়।
আসন্ন ইদুল আযহায় কোরবানীর পশু কিনে কোরবানী জাবাই করার মধ্যদিয়ে নিজেদের মাঝে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতেই মূলত হিজড়াদের এমন উপহার প্রদান করা হয়েছে বলে জানান অধ্যক্ষ সামছুল হক। তিনি আরো বলেন, আমরা সমাজের মানুষরা এই হিজড়াদের ঘৃর্ণা আর অবহেলার দৃষ্টিতে দেখি কিন্তু এরাও মহান আল্লাহর সৃষ্টি। পৃথিবীর সবকিছুতে এদেরও অধিকার আছে। তাই এই সম্প্রদায়ের মানুষগুলোকে ঘৃর্ণা আর অবহেলা না করে ভালোবাসার দৃষ্টিতে দেখা উচিত। আর এমন ভাবনা থেকেই সম্পন্ন নিজের অর্থায়নে এই মানুষগুলোর মাঝে ঈদের আনন্দ পৌছে দিতেই মূলত এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা। আগামীতেও এমন উদ্যোগ এই মানুষগুলোর জন্য অব্যাহত রাখার আশ্বাস প্রদান করেন এই কর্মকর্তা।
এসময় বাঁচার আশা সাংস্কৃতিক সংগঠন, নওহাঁটা, পবা, রাজশাহীর সভাপতি মোস্তফা সরকার বিজলী, প্রকল্প সমন্বয়কারী আখতারুজ্জামান, জেলার প্যারালিগ্যাল মোহাম্মদ আবির হোসেন, মুনিরা হিজড়া প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।