০৮:১৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ফুটপাত থেকে হকার মুক্ত করতে চসিকের ফের অভিযান

 

বন্দর নগরী চট্টগ্রামের নিউমার্কেট মোড় থেকে ফলমণ্ডি পর্যন্ত পুনর্দখল ঠেকাতে অভিযানে চালিয়েছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। অভিযানে ৫ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করেন চসিকের ম্যাজিস্ট্রেট।

গতকাল রবিবার (৩ মার্চ) দুপুরে পরিচালিত অভিযান সম্পর্কে মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম বলেন, ফুটপাত জনগণের জন্য এবং সড়ক যানবাহনের জন্য। আমাদের বার্তাটা হচ্ছে, ফুটপাত দিয়ে জনগণ হাঁটবে আর রাস্তা দিয়ে গাড়ি চলবে।

ফুটপাতে-রাস্তায় ব্যবসা হবে না, ব্যবসা হবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। প্রথমবার যখন উচ্ছেদ করছিলাম, তখন বলেছিলাম যদি আবার দখল হয়ে যায় উচ্ছেদ করব। তারই আলোকে আজ আমরা আবার উচ্ছেদ কার্যক্রম করেছি। অভিযান সম্পর্কে ম্যাজিস্ট্রেট চৈতী সর্ববিদ্যা জানান, রাস্তা, নালা ও ফুটপাত দখল করা ৫ ব্যবসা
প্রতিষ্ঠানকে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করেছি। সিটি করপোরেশনের লক্ষ্য হচ্ছে, ফুটপাত-সড়ক আমরা দখল হতে দেব না। পুরো শহরের সব ফুটপাত-সড়কই আমাদের কার্যক্রমের আওতায় আসবে। তাদের বারবার বলা হয়েছে, ফুটপাত-সড়ক দখল করা যাবে না। আজও মাইকিং করে আমরা তাদের সরে যেতে বলেছি, যারা এরপরও সরে যায়নি, তাদের বিরুদ্ধে আমাদের কঠোর ব্যবস্থা নিয়ে অপসারণ করেছি। ফুটপাতে কোনোভাবেই কোনো স্থাপনা তৈরির সুযোগ নেই। পুনর্দখল ঠেকাতে মনিটরিং চলমান থাকবে।

অভিযানকালে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সদস্যরা ম্যাজিস্ট্রেটদের সহায়তা করেন।

জনপ্রিয় সংবাদ

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জে ২০ প্রার্থীর মনোনয়ন দাখিল  

ফুটপাত থেকে হকার মুক্ত করতে চসিকের ফের অভিযান

আপডেট সময় : ০৮:৩৩:৫৮ অপরাহ্ন, রবিবার, ৩ মার্চ ২০২৪

 

বন্দর নগরী চট্টগ্রামের নিউমার্কেট মোড় থেকে ফলমণ্ডি পর্যন্ত পুনর্দখল ঠেকাতে অভিযানে চালিয়েছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন। অভিযানে ৫ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করেন চসিকের ম্যাজিস্ট্রেট।

গতকাল রবিবার (৩ মার্চ) দুপুরে পরিচালিত অভিযান সম্পর্কে মেয়রের একান্ত সচিব আবুল হাশেম বলেন, ফুটপাত জনগণের জন্য এবং সড়ক যানবাহনের জন্য। আমাদের বার্তাটা হচ্ছে, ফুটপাত দিয়ে জনগণ হাঁটবে আর রাস্তা দিয়ে গাড়ি চলবে।

ফুটপাতে-রাস্তায় ব্যবসা হবে না, ব্যবসা হবে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। প্রথমবার যখন উচ্ছেদ করছিলাম, তখন বলেছিলাম যদি আবার দখল হয়ে যায় উচ্ছেদ করব। তারই আলোকে আজ আমরা আবার উচ্ছেদ কার্যক্রম করেছি। অভিযান সম্পর্কে ম্যাজিস্ট্রেট চৈতী সর্ববিদ্যা জানান, রাস্তা, নালা ও ফুটপাত দখল করা ৫ ব্যবসা
প্রতিষ্ঠানকে ১১ হাজার টাকা জরিমানা করেছি। সিটি করপোরেশনের লক্ষ্য হচ্ছে, ফুটপাত-সড়ক আমরা দখল হতে দেব না। পুরো শহরের সব ফুটপাত-সড়কই আমাদের কার্যক্রমের আওতায় আসবে। তাদের বারবার বলা হয়েছে, ফুটপাত-সড়ক দখল করা যাবে না। আজও মাইকিং করে আমরা তাদের সরে যেতে বলেছি, যারা এরপরও সরে যায়নি, তাদের বিরুদ্ধে আমাদের কঠোর ব্যবস্থা নিয়ে অপসারণ করেছি। ফুটপাতে কোনোভাবেই কোনো স্থাপনা তৈরির সুযোগ নেই। পুনর্দখল ঠেকাতে মনিটরিং চলমান থাকবে।

অভিযানকালে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ সদস্যরা ম্যাজিস্ট্রেটদের সহায়তা করেন।