০৭:২২ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

রাজশাহীর দুই উপজেলায়  যুবলীগ নেতার বিজয়

রাজশাহীর তানোর ও গোদাগাড়ী উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুই যুবলীগ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে তানোর উপজেলায় পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না। আর গোদাগাড়ী উপজেলায় বর্তমান চেয়াম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে হারিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন অর্থ সম্পাদক বেলাল উদ্দিন সোহেল। বুধবার রাতে পৃথকভাবে সহকারি রিটানিং কর্মকর্তা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন।
তানোর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটানিং অফিসার কামরুজ্জামান বলেন, তানোর উপজেলায় ৪২ দশমিক ২২ শতাংশ ভোট পড়েছে। বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না (কাপ পিরিচ), ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ তানভীর রেজা (চশমা) এবং ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা সোনিয়া সরদার (কলস)।
তানোর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে তানোর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না তার কাপ পিরিচ প্রতীকে ৪৬ হাজার ৩৯৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২০ হাজার ৭৯।
এছাড়াও, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুই জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। এরমধ্যে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল রানা তালা প্রতীক নিয়ে ২৪ হাজার ৬০১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বী তানোর উপজেলার কলমা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি তানভীর রেজা চশমা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩৮ হাজার ৫৩৭।
অপরদিকে, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে তানোর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোনিয়া সরদার কলস প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩০ হাজার ৮৮৬ এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি তানোর উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক সাগরিকা ভৌমিক বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৩ হাজার ৪৫৭।
অন্যদিকে, রাত ১০টার দিকে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন সহকারি রিটানিং অফিসার জেবুন্নেসা শাম্মী। তিনি জানান, গোদাগাড়ী উপজেলা দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বেলাল উদ্দিন সোহেল। তিনি পেয়েছেন ৬৭ হাজার ৮৮ ভোট। বিজয়ী সোহেল উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম কাপ পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩২৮ ভোট।
অপরদিকে, ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুল ইসলাম সরকার তালা প্রতীক নিয়ে ৪১ হাজার ৮১৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। আর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রজাপতি প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুফিয়া খাতুন মিলি। তিনি পেয়েছেন ৬৪ হাজার ৪৮৯টি ভোট।

রাজশাহীর দুই উপজেলায়  যুবলীগ নেতার বিজয়

আপডেট সময় : ০৯:৩৭:০৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৯ মে ২০২৪
রাজশাহীর তানোর ও গোদাগাড়ী উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুই যুবলীগ নেতা নির্বাচিত হয়েছেন। এর মধ্যে তানোর উপজেলায় পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না। আর গোদাগাড়ী উপজেলায় বর্তমান চেয়াম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমকে হারিয়ে নির্বাচিত হয়েছেন অর্থ সম্পাদক বেলাল উদ্দিন সোহেল। বুধবার রাতে পৃথকভাবে সহকারি রিটানিং কর্মকর্তা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন।
তানোর উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটানিং অফিসার কামরুজ্জামান বলেন, তানোর উপজেলায় ৪২ দশমিক ২২ শতাংশ ভোট পড়েছে। বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না (কাপ পিরিচ), ভাইস চেয়ারম্যান পুরুষ তানভীর রেজা (চশমা) এবং ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা সোনিয়া সরদার (কলস)।
তানোর উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে তানোর উপজেলা যুবলীগের সভাপতি লুৎফর হায়দার রশিদ ময়না তার কাপ পিরিচ প্রতীকে ৪৬ হাজার ৩৯৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন মোটরসাইকেল প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২০ হাজার ৭৯।
এছাড়াও, পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুই জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। এরমধ্যে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক সোহেল রানা তালা প্রতীক নিয়ে ২৪ হাজার ৬০১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হন। তার নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বী তানোর উপজেলার কলমা ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি তানভীর রেজা চশমা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩৮ হাজার ৫৩৭।
অপরদিকে, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে তানোর উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সোনিয়া সরদার কলস প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৩০ হাজার ৮৮৬ এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি তানোর উপজেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক সাগরিকা ভৌমিক বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ২৩ হাজার ৪৫৭।
অন্যদিকে, রাত ১০টার দিকে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা করেন সহকারি রিটানিং অফিসার জেবুন্নেসা শাম্মী। তিনি জানান, গোদাগাড়ী উপজেলা দোয়াত-কলম প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বেলাল উদ্দিন সোহেল। তিনি পেয়েছেন ৬৭ হাজার ৮৮ ভোট। বিজয়ী সোহেল উপজেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম কাপ পিরিচ প্রতীকে পেয়েছেন ২৪ হাজার ৩২৮ ভোট।
অপরদিকে, ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শফিকুল ইসলাম সরকার তালা প্রতীক নিয়ে ৪১ হাজার ৮১৬ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। আর মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রজাপতি প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সুফিয়া খাতুন মিলি। তিনি পেয়েছেন ৬৪ হাজার ৪৮৯টি ভোট।