১২:২৩ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০২৪, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল পাবে ১৩ লাখ ৭৭ হাজার শিশু

চট্টগ্রামে ১৩ লাখ ৭৭ হাজার শিশুকে খাওয়ানো হবে ‘ভিটামিন-এ প্লাস’। আগামী শনিবার ছয় থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত নিকটস্থ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে এ কার্যক্রম চলবে।

চট্টগ্রামের ১৫ উপজেলায় ৮ লাখ ৩২ হাজার ১৭৯ জন শিশু এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৫ লাখ ৪৫ হাজার শিশুকে এ ক্যাম্পেইনের আওতায় আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, জেলায় ৮ লাখ ৩২ হাজার ১৭৯ শিশুকে লাল ও নীল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ক্যাম্পেইন বাস্তবায়নে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কাজ করছেন।

 

অন্যদিকে ১ হাজার ৩২১ কেন্দ্রে ৫ লাখ ৪৫ হাজার শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়াবে চসিক। এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাসের ৮৫ হাজার শিশুকে একটি করে নীল রঙের এবং ১২ থেকে ৫৯ মাসের ৪ লাখ ৬০ হাজার শিশুকে একটি করে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) চসিক জেনারেল হাসপাতাল মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান চসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. ইমাম হোসেন রানা। এর আগে গতবারের জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনে ৬ থেকে ১১ মাসের ৭৯ হাজার ৮৯৫ শিশুকে নীল রঙের ও ১২ থেকে ৫৯ মাসের ৪ লাখ ৫৫ হাজার ১৮২ শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছিল। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অর্জনের হার ৯৯ শতাংশ।

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, চসিকের সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, ডা. টি চক্রবর্তী, সুমন তালুকদার, হাসান মুরাদ চৌধুরী, জুয়েল মহাজন, আকিল মাহমুদ নাফে, আবু সালেহ, হোসনে আরা, দিদারুল মুনির রুবেল, শাহনাজ আকতার, জনসংযোগ কর্মকর্তা আজিজ আহমেদ প্রমুখ।

জনপ্রিয় সংবাদ

টিউশনের নামে প্রতারণার ফাঁদ

চট্টগ্রামে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল পাবে ১৩ লাখ ৭৭ হাজার শিশু

আপডেট সময় : ০৬:৩৫:৫৮ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪

চট্টগ্রামে ১৩ লাখ ৭৭ হাজার শিশুকে খাওয়ানো হবে ‘ভিটামিন-এ প্লাস’। আগামী শনিবার ছয় থেকে ৫৯ মাস বয়সী শিশুদের সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত নিকটস্থ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে এ কার্যক্রম চলবে।

চট্টগ্রামের ১৫ উপজেলায় ৮ লাখ ৩২ হাজার ১৭৯ জন শিশু এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ৫ লাখ ৪৫ হাজার শিশুকে এ ক্যাম্পেইনের আওতায় আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ।

চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী বলেন, জেলায় ৮ লাখ ৩২ হাজার ১৭৯ শিশুকে লাল ও নীল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা ক্যাম্পেইন বাস্তবায়নে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কাজ করছেন।

 

অন্যদিকে ১ হাজার ৩২১ কেন্দ্রে ৫ লাখ ৪৫ হাজার শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়াবে চসিক। এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাসের ৮৫ হাজার শিশুকে একটি করে নীল রঙের এবং ১২ থেকে ৫৯ মাসের ৪ লাখ ৬০ হাজার শিশুকে একটি করে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

বৃহস্পতিবার (৩০ মে) চসিক জেনারেল হাসপাতাল মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান চসিকের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মো. ইমাম হোসেন রানা। এর আগে গতবারের জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনে ৬ থেকে ১১ মাসের ৭৯ হাজার ৮৯৫ শিশুকে নীল রঙের ও ১২ থেকে ৫৯ মাসের ৪ লাখ ৫৫ হাজার ১৮২ শিশুকে লাল রঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছিল। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অর্জনের হার ৯৯ শতাংশ।

 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন,প্যানেল মেয়র মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, চসিকের সহকারী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম, ডা. টি চক্রবর্তী, সুমন তালুকদার, হাসান মুরাদ চৌধুরী, জুয়েল মহাজন, আকিল মাহমুদ নাফে, আবু সালেহ, হোসনে আরা, দিদারুল মুনির রুবেল, শাহনাজ আকতার, জনসংযোগ কর্মকর্তা আজিজ আহমেদ প্রমুখ।